Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

দুর্নীতির অভিযোগে সউদী জননিরাপত্তা প্রধান বরখাস্ত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৪:৫১ পিএম

দুর্নীতির অভিযোগে সউদী আরবের জননিরাপত্তা বিভাগের পরিচালক জেনারেল খালেদ আর হিরাবিকে বরখাস্ত করা হয়েছে। দুই পবিত্র মসজিদের জিম্মাদার বাদশা সালমান বিন আবদুল আজিজ এক আদেশে ওই কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করেন। আদেশে আরও ১৮ জনের বিরুদ্ধে শাস্তির কথা বলা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) এ বিষয়ে এক ডিক্রি জারি করা হয়। সউদী প্রেস এজেন্সির বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায় তুরস্কভিত্তিক গণমাধ্যম আনাদোলু।
ওই ডিক্রিতে হারবিসহ ১৯ জনের কথা উল্লেখ করা হলেও বাকিদের সম্পর্কে কিছু জানানো হয়নি।

সউদী জননিরাপত্তা বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময় লেফটেন্যান্ট জেনারেল খালেদ আল-হারবি কিছু আইন ভঙ্গ করেন বলে এক তদন্তে জানা গেছে। রাষ্ট্রয়াত্ব সউদী প্রেস এজেন্সির মাধ্যমে জানা গেছে যে এক রাজকীয় ফরমানের মাধ্যমে তাকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

সউদী প্রেস এজেন্সি বলছে, দুর্নীতিবিরোধী কর্তৃপক্ষকে তাদের বিরুদ্ধে আসা অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন বাদশাহ। অপরাধ প্রমাণিত হলে কঠোর আইনি ব্যবস্থার নির্দেশ এসেছে। রাজকীয় ডিক্রিতে বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্ট অথরিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ওই সিদ্ধান্ত দিয়েছেন বাদশাহ। অভিযুক্তরা জনগণের অর্থ তছরুপের সঙ্গে জড়িত এবং নিজ স্বার্থে জনগণের অর্থ ব্যবহার করা হয়েছে।

বিৃবতিতে বলা হয়েছে, জেনারেল হিরাবির বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠেছে। এসবের মধ্যে প্রতারণা, ঘুষ, ক্ষমতার অপব্যবহার ইত্যাদি রয়েছে। তার সঙ্গে আরও ১৮ ব্যক্তি জড়িত রয়েছে। অপরাধীরা সরকারি ও বেসরকারি খাতের নানা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে দুর্নীতিতে জড়িত রয়েছে বলেও বিবৃতিতে বলা হচ্ছে।

এর আগে গতবছরের আগস্ট মাসে দুর্নীতির দায়ে ২০৭ জন সরকারি কর্মচারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছিল দেশটির দুর্নীতি বিরোধী কমিশন। আরও ৪৬০ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত চলমান রয়েছে বলে ওই সময় জানানো হয়েছিল। সউদী সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আজকের না। বহুদিন ধরে সউদী প্রশাসনে দুর্নীতি চলে আসছে। সূত্র : আল-আরাবিয়া



 

Show all comments
  • Abul Kalam Azad Khan ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫:০৪ পিএম says : 0
    সউদির মত পবিত্র ভূমিতে যদি এরকম দূর্নীতি চলে তাাহলে অন্যান্য ধর্মাবলম্বিরা তো ‍মুসলমানদেরকে দেখলে হাসাহাসি করবে। সেজন্য আমাদের ঈমান-আমলে যেন হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এর আদর্শ থাকে সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে। আল্লাহ্ পাক আমাদেরকে ছহি বুঝ দান করুন। আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • hamid khan ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:১১ পিএম says : 0
    পবিত্র ভুমিতে কি সরিয়া আইন আছে??? নাই।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সউদী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ