Inqilab Logo

সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮, ১৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

চর্বি খাওয়া ও শরীরের ওজন

| প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:১০ এএম

কম খেলে সত্যিই কি ওজন কম হয়। এমন কোনো কথা নেই যে, কম খেলেই ওজন কমানোর ক্ষেত্রে অনেক ধারণা প্রচলিত আছে এবং তা ব্যাপকভাবে সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রচলিত। কিন্তু এসব প্রচলিত ধারণা সবসময় ঠিক হবে তা কিন্তু নয়। যেমন, একটা ধারণা রয়েছে তেল, মাখন বা ঘি ইত্যাদি ফ্যাট বা চর্বিজাতীয় খাবার কম খেলে বা খাওয়া বন্ধ করে দিলে ওজন কমে যায় বা কম হতে পারে। আপাতদৃষ্টিতে দেখলে কথাটা সত্যি বলে মনে হয়। কারণ, সবাই জানে, অত্যধিক চর্বিজাতীয় খাদ্য শরীরে চর্বির পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়ে মোটা করে তোলে। তা-ই স্বাভাবিক ধারণা।

চর্বিজাতীয় খাবার কম খেলে আমাদের ওজন ঠিক থাকে বা ওজন কমে যায়। কিন্তু জানেন, সম্প্রতি এক সমীক্ষায় জানা গেছে, আমরা যতটা সাধারণ ভাবছি ব্যাপারটা মোটেই ততটা সাধারণ নয়। চর্বি নয়, মোটা না হতে চাইলে বা আপনার শরীর থেকে চর্বি কমাতে চাইলে দেখা দরকার আপনি যত ক্যালোরি খাবারের মাধ্যমে গ্রহণ করছেন তার পরিমাণ ঠিক কিনা। অর্থাৎ আপনার দৈনন্দিন তালিকায় ক্যালরির মাত্রা ঠিক রাখা প্রয়োজন। কিছু ক্ষেত্রে অবশ্য ফ্যাটের মাধ্যমে পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ রাখার সঙ্গে সঙ্গে ক্যালোরির মাত্রাও কম হয়ে যায়। কিন্তু চর্বিজাতীয় খাদ্যের পরিমাণ কমানোর ক্ষেত্রে একটি অসুবিধা দেখা দেয়। কারণ, অধিকাংশ চর্বিজাতীয় খাবারে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। অর্থাৎ এই জাতীয় খাবার খাওয়ার পর বেশ কিছু সময় পেট ভরা আছে বলে মনে হয়। আর আপনি বেশী খাবার খাওয়া থেকে বেঁচে যান। সেই সঙ্গে বেশি ক্যালোরি গ্রহণ করা থেকেও বেঁচে যান। এবার হয়তো ক্যালোরি কম করার জন্য চর্বি জাতীয় খাবার খাওয়া বন্ধ করে দিলেন। তার ফলে প্রোটিন গ্রহণের মাত্রাও কম হয়ে গেল, তখন আপনার কিছুক্ষণের মধ্যেই খিদে পেয়ে গেল।

সেক্ষেত্রে না চাইলেও কিছু না কিছু আপনি খাবেন। এর দ্বারা হতে পারে আরও বেশি ক্যালোরি গ্রহণ করতে শুরু করলেন। তাই ওজন কম করার ক্ষেত্রে শুধু চর্বি জাতীয় খাদ্য গ্রহণ বন্ধ করার প্রবণতা ওজন কমানোর বদলে বাড়িয়ে তুলতে পারে। চর্বিজাতীয় খাদ্য গ্রহণ করা একেবারে বন্ধ না করে এক্ষেত্রে খাদ্যতালিকায় ক্যালোরির মাত্রা ঠিক রাখার ব্যবস্থা।

আফতাব চৌধুরী
সাংবাদিক-কলামিস্ট



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন