Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

বেগমগঞ্জে গ্রাম আদালত ভাঙচুর করল যুবলীগ নেতা

নোয়াখালী ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০৯ এএম

বেগমগঞ্জ উপজেলায় প্রত্যয়নপত্র পেতে দেরি হওয়ায় গ্রাম আদালত ভাঙচুর করে আদালত সহকারীকে পিটিয়েছে এক যুবলীগ নেতা। হামলার শিকার গ্রাম আদালত সহকারী নিজাম উদ্দিন মাহমুদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। খবর পেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য মামুনুর রশীদ কিরণ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। অভিযুক্ত মো. রাসেল আলম আমান উল্যাহপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য ও একই ইউনিয়নের ৫নম্বর ওয়ার্ডের ঘরিয়া গাজী বাড়ির লকিয়ত হোসেনের ছেলে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার ১নং আমান উল্যাপুর ইউনিয়নের পরিষদ ভবনে এ ঘটনা ঘটে।

দুপুরে গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে এমন অভিযোগ করেন আমান উল্যাপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো.আরিফুর রহমান মাহমুদ। তিনি আরও জানান, গ্রাম আদালত সহকারী আমার কক্ষের সামনে বসে। গত বুধবার দুপুরে ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন ঘরিয়া গাজী বাড়ির রাসেল কার্যালয়ে আসে একটি প্রত্যয়নপত্রের জন্য। এ সময় আদালত সহকারী তাকে বলেন আমার হাতে একটু কাজ আছে, আমাকে একটু সময় দেন। এরপর আপনার প্রত্যয়নপত্রটা দিয়ে দেব। একপর্যায়ে এটা নিয়ে দু’জনের মধ্যে বাকবিতন্ডা বেধে যায়। এ সময় আমি গিয়ে দু’পক্ষকে দুই দিকে সরিয়ে দিয়ে আমার ব্যক্তিগত কাজে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বাহিরে চলে যাই। আমি কিছুদূর যাওয়ার পর রাসেল তার অনুসারী মেহেদী ও রাজনসহ ৪জন যুবক পুনরায় ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে এসে আদালত সহকারীকে বেধড়ক মারধর করে এবং গ্রাম আদালতের এজলাস ভাঙচুর করে। চেয়ারম্যান আরিফ বলেন, এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় আমরা থানায় এখনো কোন লিখিত অভিযোগ করিনি। আমরা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে পরিষদের সভা ডেকেছি। এ সভা থেকে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আমাদের করণীয় সম্পর্কে সিন্ধান্ত নেব। এরপর তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনগত প্রদক্ষেপ গ্রহণ করব।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুবলীগ নেতা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ