Inqilab Logo

রোববার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৯ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

নেইমারময় ম্যাচে ব্রাজিলের হাসি

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলো তারকা খেলোয়াড়দের না ছাড়লেও সেটির অভাব একটুও টের পেল না ব্রাজিল। অভাবটা যে বুঝতেই দিলেন না নেইমার জুনিয়র! তার ঝলকে গতকাল ভোরে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে পেরুকে ২-০ গোলে হারিয়েছে ব্রাজিল।
নিজদের মাঠে দুটি গোলই এসেছে প্রথমার্ধে। দুটিতেই অবদান প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি) নেইমারের। প্রথমটি সতীর্থ এভারটন রিবেইরোকে দিয়ে করিয়ে, পরেরটিতে নিজেই পেরুর জাল কাঁপিয়ে। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এ নিয়ে পেরুর বিপক্ষে টানা চার ম্যাচ জিতল ব্রাজিল। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম দেখায়ও পেরুকে ৪-২ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল তিতের দল। সেবার হ্যাটট্রিক করেছিলেন নেইমার। এবারের জয়েও তার অবদান সবচেয়ে বেশি।
বাছাইয়ে টানা আট জয়ে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই রইল সেলেসাওরা। আর লিওনেল মেসির হ্যাটট্রিকে বলিভিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়া আর্জেন্টিনা ১৮ পয়েন্ট নিয়ে আছে ব্রাজিলের পরেই। আগের রাউন্ডে মুখোমুখি হয়েছিল লাতিন আমেরিকার দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী। কিন্তু ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে খেলা শুরুর ৭ মিনিটের মাথায় স্থগিত হয়ে যায়।
ব্রাজিলের উত্তর-পূর্বের শহর রেসিফেতে আয়োজিত ম্যাচে গোলমুখে চারটি শট নেয় স্বাগতিকেরা। পেরু কেবল একটি শট লক্ষ্যে রাখতে পারে। যদিও শুরুর দিকে আক্রমণে একটু এগিয়ে ছিল অতিথিরা। তবে ধীরে ধীরে নিজেদের গুছিয়ে নেওয়া ব্রাজিল এগিয়ে যায় চতুর্দশ মিনিটে।
সাইডলাইনে পেরুর ডিফেন্ডারের কাছ থেকে বল কেড়ে নিয়ে কিছুটা এগিয়ে গিয়ে বাইলাইন থেকে নেইমার খুঁজে নেন রিবেইরোকে। বাকিটা অনায়াসে সারেন তিনি। বল কেড়ে নেওয়ার সময় ফাউল করেছেন নেইমার-এমন দাবি তুলে রেফারিকে ঘিরে ধরেন পেরুর খেলোয়াড়েরা। তবে টিকে যায় সেই গোল।
আক্রমণাত্মক ফুটবল খেললেও ভালো সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না কোনো দলই। অনেকটা সৌভাগ্যবশত গোলে ৪০ মিনিটে ব্যবধান বাড়ায় ব্রাজিল। ডি-বক্সের মাথা থেকে রিবেইরোর বুলেট গতির শট পেরুর একজনের পায়ে লেগে ফিরলে পেয়ে যান নেইমার। অরক্ষিত পিএসজি তারকার স্রেফ একটা টোকা দরকার ছিল।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে গোলের জন্য মরিয়া ছিল পেরু। কিন্তু তাদের আক্রমণগুলো নস্যাৎ করে দেয় দানি আলভেস-দানিলো-আলেক্স সান্দ্রোদের নিয়ে গড়া ব্রাজিলের শক্তিশালী ডিফেন্স।
৮৪ মিনিটে গ্যাব্রিয়েল বারবোসার বদলি হিসেবে নামেন হাল্ক। এর মধ্য দিয়ে পাঁচ বছর আবার ব্রাজিলের জার্সিতে খেলতে দেখা গেল সুঠামদেহী ফরোয়ার্ডকে। মাঠে নামার পরের মিনিটে গোল প্রায় পেয়েই গিয়েছিলেন হাল্ক। কিন্তু দুরূহ কোণ থেকে নেওয়া তার শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। শেষমেশ ২ গোলের হাসি নিয়েই মাঠ ছাড়েন তিতের শিষ্যরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নেইমারময় ম্যাচ
আরও পড়ুন