Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৪ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

স্বাধীনতা উপভোগ করছেন আফগানরা

জীবনযাত্রা স্বাভাবিক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

আফগানরা দৃশ্যত তালেবান শাসনের অধীনে জীবন উপভোগ করছেন। বিভিন্ন আর্ন্তজাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন ও ছবিতে দেখা গেছে, আফগানরা রেস্তোরাঁয় জড়ো হয়েছেন কিংবা সবাই মিলে পার্কে প্যাডেল নৌকায় চড়ে অবসর উপভোগ করছেন।

হেরাতে শুক্রবার সশস্ত্র তালেবান সৈন্যরা কাছাকাছি পাহারায় দাঁড়িয়ে থাকা সত্ত্বেও যুবকদের একসাথে আড্ডা মারতে ও হাসাহাসি করতে দেখা যায়। আফগানরা রেস্তোরাঁয় ভিড় করছে, পার্কে জড়ো হচ্ছে এবং এমনকি পানিতে চিত্তাকর্ষকভাবে নৌকা চালানো উপভোগ করছে এমন দৃশ্যগুলোতে পরিস্কার যে তাদের জীবন স্বাভাবিক হয়ে আসছে। গত মাসে সাধারণ মানুষের সাথে তালেবান যোদ্ধাদের ক্রিকেট খেলতে দেখা যায় যা একই ধরনের বার্তা দেয়। তালেবানরা তাদের ইমেজকে আরও প্রগতিশীল এবং মধ্যপন্থী দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে বিশ্বব্যাপী তুলে ধরার চেষ্টা করছে। যদিও নারীদের জন্য ক্রিকেট ও ফুটবলের মতো খেলাধূলা নিষেধ করা হয়েছে এবং ছোট-খাট কিছু বিক্ষোভ হয়েছে তবে তালেবান যোদ্ধারা বলছেন, তারা বদলে গিয়েছেন এবং সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়েছে। তাদের একজন কমান্ডার হাফেজ সুলতান আহমেদ স্কাই নিউজকে বলেন, ‘আমরা বদলেছি। আমরা অনেক বদলে গেছি। আল্লাহর প্রশংসা করুন, আমাদের আচরণ এখন খুব ভালো ... আমরা ভদ্র, আমাদের আচার -আচরণ ভালো এবং আমাদের আচরণ অনেক উন্নত। আমরা গত সরকারের চেয়ে অনেক ভালো। কাবুল এখন নিরাপদ। নিরাপত্তা ভালো।’

তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের পর অনেক মানুষের মধ্যে, বিশেষ করে রাজধানী কাবুলে, নানা উদ্বেগ ও আতঙ্ক দেখা দিয়েছিলো। কিন্তু একদম প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষ, যারা এই ভয়াবহ যুদ্ধ দেখে অভ্যস্ত, তাদের মধ্যে যেন স্বস্তি ফিরে এসেছে। দেশটির পূর্বাঞ্চলের লোগারের ওইসব এলাকা ঘুরে এই তথ্য জানিয়েছেন বিবিসির সংবাদদাতা সেকান্দার কিরমানি। একজন গ্রামবাসী বিবিসিকে বলেন, ‘পরিস্থিতি আগে খুবই খারাপ ও বিশৃঙ্খল ছিল। দোকানে বা বাজারে যাওয়ার সুযোগও হতো না আমাদের। কিন্তু এখন আমি যেখানে খুশি সেখানে যেতে পারি এবং নিজে উপার্জন করতে পারি।’

কাবুল থেকে স্কাই নিউজের নারী সংবাদদাতা অ্যালেক্স ক্রোফোর্ড জানিয়েছেন, তার টিম ভারপ্রাপ্ত সরকারের কাছ থেকে অনুমতি পেয়ে তুলনামূলক স্বাচ্ছন্দ্যে আফগানিস্তান ও রাজধানী কাবুলে ঘুরে বেড়াতে পেরেছেন। তিনি বলেন, একাধিক সশস্ত্র তালেবান চেকপয়েন্ট রয়েছে যেখানে আমাদের সমস্ত কাগজপত্র কয়েকবার যাচাই -বাছাই করা হয় - কিন্তু তার সাথে প্রায়ই তারা আনন্দদায়কভাবে আমাদের ‘স্বাগতম, স্বাগত’ জানাতে থাকে। কিন্তু যখনই আমরা কোন তালেবানের সামনে পড়েছি, তারা বিদেশী সাংবাদিকদের কাজের সুবিধার্থে তাদের পথ থেকে সড়ে গিয়েছে, এটি আফগানদের জন্য স্পষ্টতই একটি ভিন্ন চিত্র।’

তিনি বলেন, ‘তারা আমাদেরকে তাদের সাথে টহলে যোগ দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানায়। আমি পুরোপুরি নিশ্চিত যে তারা ভেবেছিল শুধু স্কাইয়ের ক্যামেরাম্যান রিচি মকলার তাদের পিকআপ ট্রাকের পেছনে উঠতে যাচ্ছেন। যখন আমিও তার পিছনে উঠি, তখন এই বিদেশী নারীর কারণে তালেবান পুরুষদের মধ্যে হঠাৎ আতঙ্ক দেখা দেয়। তারা অবিলম্বে ট্রাক থেকে নেমে যায়। কেবলমাত্র আমাকে নামিয়ে নেয়ার জন্য একজনকে রেখে যায়।’ তিনি আরও বলেন, তাদের মধ্যে দু’জনকে তাদের সিনিয়ররা গাড়িতে করে আমাদের সাথে যাওয়ার জন্য জোড় করে পাঠায়। কিন্তু যাত্রাপথে একজন আমার পুরো সময় আমার দিকে পিছনে ফিরে বসে থাকেন এবং অন্যজন বেশিরভাগ সময় তার পরিহিত চাদরের পিছনে লুকিয়ে ছিলেন। দু’জনকেই লজ্জিত ও বিব্রত মনে হচ্ছিল।’ সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান, টেলিগ্রাফ, বিবিসি, স্কাই নিউজ।



 

Show all comments
  • কাজী সানাউল্লাহ ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:০৪ এএম says : 0
    আলহামদুলিল্লাহ
    Total Reply(0) Reply
  • Muhammed Washim ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:০৪ এএম says : 0
    জ্বালা শুধু এদেশের রাজাকারগুলোর
    Total Reply(0) Reply
  • ABU ABDULLAH ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:০৫ এএম says : 0
    অমুসলিম রা কি পাগল? অমুসলিম রা যত চিল্লাচিল্লি করুন না কেন কোরান হাদিসের একটি দাড়ি কমা ও কি বদলানো যাবে ? নারী অধিকার ইসলামে যাহা আছে তাহা অবৈশ্যৈ দেওয়া হবে বাট নারী অধিকার নামে নারী পুরুষ এক সাথে চলা যুবক যুবতী একসাথে ডেন্স করা, গান গাওয়া, মেয়েরা পর পুরুষের সামনে উরু দেখাইয়া ফুট বল ও ক্রিকেট খেলা ইসলামে সম্পূর্ণ হারাম হারাম
    Total Reply(0) Reply
  • রুহুল আমীন যাক্কার ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:০৫ এএম says : 0
    ইসলাম একটি সার্বজনীন জীবন ব‍্যবস্থার নাম। ইসলামি জীবন ধারায় অভ‍্যস্ত হয়ে গেলে দেখতে পাবেন ইসলামি বিধি - বিধান আর নিয়ম- কানুনের মতো সহজ এবং মানবিক জীবন ব‍্যবস্থা বিশ্বে দ্বিতীয়টি নেই। তাই যে সব গুণীজন ইসলামকে অনুসন্ধানী দৃষ্টিতে উপলব্দি করেছেন-করছেন তাদের অনেকেই এর সুশীতল ছায়াতলে আশ্রয় নিয়ে জীবনকে ধন‍্য করেছেন - করছেন। কিন্তু ইসলামের জাত শত্রুরা সর্বদাই এই পবিত্র ধর্মকে কলুষিত করতে অপপ্রয়াস চালিয়ে আসছে। ইসলামের বিধানসমূহকে সাধারণ মানুষের নিকট কঠোর বা সেকেলে বলে অপপ্রচার চালাচ্ছে। এই তালেবানদের বিপক্ষে তার কী পরিমাণ অপপ্রচার চালাচ্ছে; তা কি কারও অজানা? ইনশাআল্লাহ সকল বাধার বিন্দাচল পেরিয়ে,কোটি কোটি রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করেই ইসলাম এবং ধারক বাহকগণ এগিয়ে যাবেন।
    Total Reply(0) Reply
  • হাসান সোহাগ ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:০৫ এএম says : 0
    খবরটি শুনে খুব ভালো লাগলো
    Total Reply(0) Reply
  • Dadhack ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:০৬ এএম says : 0
    Surah:6: Ayat:120: “তোমরা প্রকাশ্য এবং গোপন পাপ বর্জন করো. যারা পাপ করে তাদের পাপের সমুচিত শাস্তি তাদেরকে দেওয়া হবে” সূরা আল আলা সংক্ষিপ্ত তাফসীর: আল্লাহ সুবহানু ওয়া তা'আলা বলেন এই কোরআন থেকে তারা উপদেশ লাভ করবে যাদের অন্তরে আল্লাহর ভীতি রয়েছে এবং যারা আল্লাহর সাথে সাক্ষাতের ভয় মনে পোষণ করে. পক্ষান্তরে যারা হতভাগ্য তারা এখান থেকে কোন শিক্ষা বা উপদেশ গ্রহণ করতে পারবে না. তারা হবে জাহান্নামের অধিবাসী সেখানে কোনরূপ আরাম-আয়েশ ও শান্তি সুখ নেই বরং আছে চিরস্থায়ী আজাব ও নানা প্রকার যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগানিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ