Inqilab Logo

সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২ কার্তিক ১৪২৮, ১০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

ফের বিতর্কিত মন্তব্য করলেন নাসিরউদ্দিন শাহ

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৩:২৮ পিএম

ফের বিতর্কিত মন্তব্য করলেন অভিনেতা নাসিরউদ্দিন শাহ। সমকালীন বলিউডকে হিটলারের জমানার সঙ্গে তুলনা করলেন তিনি। এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে এই মন্তব্য করেন ৭১ বছরের অভিনেতা। বর্ষীয়ান অভিনেতার এমন মন্তব‍্য ঘিরেই নতুন করে শুরু হয়েছে বিতর্ক। এমনকি অনেকে বলিউডে বয়কটের ডাকও দিয়েছেন তাকে।

বলিউডে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন নাসিরুদ্দিন। বহু হিট ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি। কিন্তু ধর্ম নিয়ে কখনো বৈষম্য দেখেছেন তিনি বলিউডে? সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বর্ষীয়ান অভিনেতাকে এই প্রশ্ন করা হলে তার জবাব, বলিউডে ধর্মীয় কারণে যদি বৈষম্য থাকত তবে তিন খান এখনো ইন্ডাস্ট্রির শীর্ষে থাকতে পারতেন না।

নাসিরুদ্দিন বলেন, “বর্তমানে কেন্দ্রীয় সরকারের গৌরব তুলে ধরার জন্য সিনেমা বানানোয় উৎসাহ দেওয়া হয়। শুধু তাই নয়, এরজন্যে অর্থ সাহায্যও করা হয় ইন্ডাস্ট্রির কিছু পরিচালক-প্রযোজকদের। এমনকী, সিনেমার গল্পের মাধ্যমে খুব কৌশলে সরকারের হয়ে প্রচার করলে, কোনও মামলায় জড়িত অভিনেতা-প্রযোজকদের ক্লিন চিটও দিয়ে দেওয়া হয় সরকারের তরফে। এমনটা তো হিটলারের জমানাতেও হত। সেই সময়ও নাৎসি আদর্শ তুলে ধরার জন্য প্রোপাগান্ডা ফিল্ম তৈরি করা হত।”

এদিকে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে অভিনেতাকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, মুসলিম হওয়ায় ইন্ডাস্ট্রিতে কখনও কোনও বৈষম্যের শিকার হতে হয়েছে কিনা তাকে? তার উত্তর দিতে গিয়েই নাসিরুদ্দিন বলেন, “আমি নিজে কখনও এমন বৈষম্যের শিকার হইনি বটে, কিন্তু এখানে অভিনেতাদের নিজের মনের কথা বললে হয়রানির শিকার হতে দেখেছি।”

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও বার্তায় আফগানিস্তান প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে সাম্প্রদায়িক মন্তব্য করেছিলেন নাসিরুদ্দিন শাহ। সেই মন্তব্য নিয়ে আলোচনার জন্যই একটি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন নাসিরুদ্দিন। সেখানে ফের বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন অভিনেতা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বলিউড

১৭ অক্টোবর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ