Inqilab Logo

শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ০৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

ডেঙ্গুতে শতাধিক মৃত্যু উত্তরপ্রদেশে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

ভারতের উত্তরপ্রদেশে একের পর এক জেলায় ছড়িয়ে পড়ছে ডেঙ্গু। পরিস্থিতি সামাল দিতে নাজেহাল দশা রাজ্যের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারের। ফিরোজাবাদ জেলার অবস্থা সবচেয়ে করুণ। সোমবার পর্যন্ত সরকারি হিসাবে, শুধু ফিরোজাবাদেই মৃত্যু হয়েছে ১১৪ জনের। তার মধ্যে ৮৮টি শিশু। সরকারি হাসপাতালগুলোতে দেখা গিয়েছে শয্যা সংকট। বিরোধীদের অভিযোগ, সরকারি হাসপাতালগুলোতে উপযুক্ত পরিকাঠামো নেই। কার্যত বিনা চিকিৎসায় প্রাণ হারাচ্ছে রোগীরা। ফিরোজাবাদ জেলা হাসপাতালে মঙ্গলবার সকাল ৮টা নাগাদ নিয়ে যাওয়া হয় ডেঙ্গু আক্রান্ত পাঁচ বছরের সাওনা গুপ্তকে। তাকে ভর্তি করানোর জন্য হাসপাতালের কর্মী থেকে চিকিৎসক— সবার কার্যত হাতে-পায়ে ধরেছেন শিশুটির স্বজনরা। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। তখন ওই পাঁচ বছরের মেয়েটির প্রবল জ্বর। প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা দৌড়াদৌড়ি, আবেদন-নিবেদনের পর দুপুরে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় সাওনাকে। কিন্তু ততক্ষণে যা হওয়ার হয়ে গেছে। হাসপাতালে ভর্তির কিছুক্ষণ পরই মারা যায় শিশুটি। তার ভাই বলেন, ‘সময় মতো যদি চিকিৎসা হতো, বোনকে বাঁচানো যেতো। হাসপাতালের কর্মীদের ওর অবস্থার কথা বারবার বলেছিলাম। কিন্তু কেউ আমাদের কথা কানে তুললো না।’ কাপড়ে ঢাকা সন্তানের দেহের পাশে বসে অঝোরে কেঁদে যাচ্ছিলেন শিশুটির মা। তাকে সান্ত্বনা দিচ্ছিলেন এক নারী। তিনি বলেন, ‘ডাক্তাররা কিছুই করলো না। ওরা শুধু টাকা চায়।’ শিশুটির স্বজনরা বলছেন, ফিরোজাবাদ হাসপাতালের এই ছবি রাজ্যের অন্য হাসপাতালগুলোতেও। শয্যার অভাবে ভর্তি হতে পারছে না অনেকেই। অল্পবয়সীদের কোলে নিয়ে হাসপাতালের দরজায় দরজায় ঘুরছেন তাদের স্বজনরা। এবিপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

১৬ অক্টোবর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ