Inqilab Logo

সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮, ১৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

দিনে যুক্তরাষ্ট্রের খরচ ২৯ কোটি ডলার

আফগান যুদ্ধে ২০ বছরে ২,১১,৭০০ কোটি ডলার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

ব্রাউন ইউনিভার্সিটির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানে তার যুদ্ধ প্রচেষ্টা এবং জাতি গঠনের প্রকল্পে ৭ হাজার ৩০০ দিনে প্রায় ২ লাখ ১১ হাজার ৭০০ কোটি মার্কিন ডলার করেছে। অর্থাৎ, সেখানে তারা প্রতিদিন গড়ে ২৯ কোটি ডলার ব্যয় করেছে।
প্রতিবেদনে দেখানো হয়েছে, কিভাবে যুক্তরাষ্ট্র ২০ বছরের যুদ্ধে কমপক্ষে দুই লাখ কোটি ডলার খরচ করেছে। তারা এই খরচ থেকে বেরিয়ে এসেছে সেনা প্রত্যাহারের মাধ্যমে। ব্রাউন ইউনিভার্সিটির কস্টস অব ওয়ার প্রজেক্ট থেকে প্রকাশিত রিপোর্টে এসব তথ্য দেয়া হয়েছে। এই রিপোর্ট যুক্তরাষ্ট্রের বড় বড় সংবাদ মাধ্যমের শিরোনাম হয়েছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের এই অর্থ যুবক, অতি ধনী কিছু মানুষেরক্ষুদ্র একটি গোষ্ঠী সৃষ্টি করতে সহায়ক হয়েছে। এসব আফগান যুক্তরাষ্ট্রের সেনাদের দোভাষী হিসেবে কাজ করেছেন। আর বিনিময়ে হয়ে গেছেন মিলিয়নিয়ার। এই কন্ট্রাক্টে যারা যুক্ত হয়েছিলেন তাদের মধ্যে ব্যাপক হারে দুর্নীতি জেগে উঠেছিল। আর তা পুরো আফগানিস্তানকে গ্রাস করে। ভেঙ্গে পড়ে এর ভঙ্গুর গণতন্ত্র।

ব্রাউন ইউনিভার্সিটির এই রিপোর্ট নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদ ভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল সিএনবিসি এভাবেই মন্তব্য করে। তারা রিপোর্টে জানায়, আফগানিস্তান পুনর্গঠনের উদ্দেশ্যে এসব প্রচেষ্টা চালানো হয়েছিল। এত বেশি অর্থ খরচ করা হলেও, পুনর্গঠন করা হলেও, প্রতিটি প্রাদেশিক রাজধানী তালেবানদের দখল করতে সময় লেগেছে মাত্র নয়দিন। তারা সেনাবাহিনীকে বিলুপ্ত করে দিয়েছে। উৎখাত করেছে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত সরকারকে।
পেন্টাগন ওয়াচডগ হিসেবে পরিচিত সিগার-এর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে আফগানিস্তানে দু’বারে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালনকারী রায়ান ক্রুকার ৯/১১ পরবর্তী দুর্নীতির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ব্যর্থতাকে দায়ী করেছেন। তিনি বলেন, আপনি জানেন যে, ব্যর্থতা ছিল আমাদের প্রচেষ্টায়। বিদ্রোহীদের জন্য আমাদের ব্যর্থতা নয়। এটা ছিল সীমাহীন এক দুর্নীতি।

সাবেক এই রাষ্ট্রদূত বিশ্বাস করেন, আফগানিস্তানে যে ভয়াবহ দুর্নীতি তার অনেকটার জন্য দায় যুক্তরাষ্ট্রকেও বহন করতে হবে। কারণ, আফগানিস্তানের অর্থনীতি ধারণ করতে পারবে যা, তার চেয়ে বেশি শত শত কোটি ডলার দিয়ে ভাসিয়ে দেয়া হয়েছে দেশটিকে। একটি ভঙ্গুর রাষ্ট্র এবং সমাজ ব্যবস্থায় আপনি এত বেশি অর্থ ঢালতে পারেন না। সূত্র : ডন।



 

Show all comments
  • কাওসার আহমেদ ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:২২ এএম says : 0
    রেজাল্ট শুন্য
    Total Reply(0) Reply
  • চৌধুরী হারুন আর রশিদ ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১:২৮ এএম says : 0
    সব জলে গেলো
    Total Reply(0) Reply
  • Safiul Alam ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫:২৮ এএম says : 0
    আফগানিস্তান থেকে আমেরিকা ৬ট্রলিয়ন ডলারের সম্পদ লুট করেছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Mamun Shekh ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫:২৮ এএম says : 0
    আমেরিকা কখনোই নিজ পকেটের টাকা সামরিক খাতে বা যুদ্ধ ক্ষেত্রে ব্যয় করে না, এগুলো মূলত মুসলিম প্রধান দেশগুলো থেকে লুন্ঠিত সম্পদ!
    Total Reply(0) Reply
  • Mohi Uddin ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫:২৯ এএম says : 0
    একটা মিথ্যার উপরে নির্ভর করে এতগুলো টাকা অপচয় আর এতগুলো মানুষ খুন করার দরকার ছিল না
    Total Reply(0) Reply
  • Md Shahadat Hossain ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫:২৯ এএম says : 0
    যা লুট করেছে তার হিসাব কে দিবে আফগানিস্তানে 816 বেশি খনি আছে সেগুলো থেকে যে সম্পদ লুট করেছে তার কাছে তো এটা কিছুই না
    Total Reply(0) Reply
  • Habib Ahsan ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫:৩০ এএম says : 0
    9 লক্ষ মানুষকে হত্যা করার পরেও এরা নাকি মানবতার মুখ্য কারিগর আর যারা বাঁচার জন্য লড়াই করে তারা হয়ে যায় এদের চোখে সন্ত্রাস
    Total Reply(0) Reply
  • MD Mizanur Rahman ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫:৩১ এএম says : 0
    দারুণ অর্জন
    Total Reply(0) Reply
  • Md Monir ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫:৩২ এএম says : 0
    আর সাহস পাবে না।
    Total Reply(0) Reply
  • Farooque hasan ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫:০৩ এএম says : 0
    ইসলামের একটি শিক্ষার তাকওয়া যা অবলম্বন করলে এমনিভাবে নিষ্ফল কোটি কোটি ডলার অবৈধ খরচ থেকে বেঁচে থাকা যায়। অতএব তালেবানদের মত সঠিক মুত্তাকীদের সাথে, যাদের কাছে রয়েছে এমন হাজারো সুন্দর সুন্দর গুন-শুধু টাকা পয়সা আর অস্ত্রের জোরে তাদের সাথে যুদ্ধ করে কিভাবে টিকে থাকতে পারবে? ফলাফল তাই যা হওয়ার ছিল হয়েছে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগানিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ