Inqilab Logo

শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮, ১৭ সফর ১৪৪৩ হিজরী

নিজেই বুঝতে পারবেন হাতের বুড়ো আঙুলে

হৃদরোগের আশঙ্কা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

হৃদযন্ত্র থেকে পাকস্থলী হয়ে যে ধমনীটি শরীরের নিম্নভাগের দিকে নেমে গেছে, তার মাঝ বরাবর রয়েছে একটি ফোলা অংশ। এমনিতে এটি নিয়ে কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু কারো কারো ক্ষেত্রে এই অংশ বেশি মাত্রায় ফুলতে থাকে। এক সময় তা ফেটে যেতে পারে। এটি হৃদযন্ত্রের সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এমনকি দ্রুত চিকিৎসা না করালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রোগীর মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।
চিকিৎসার পরিভাষায় এই সমস্যাকে বলা হয়ে ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’। এই সমস্যা বড় আকার নেওয়ার আগে টের পাওয়া মুশকিল। যখন টের পাওয়া যায়, তখন রোগীকে বাঁচানোর জন্য হাতে খুব কম সময় থাকে। প্রায় ৮০ শতাংশ রোগীরই মৃত্যু হয় এই অসুখে। কিন্তু এই সমস্যা এবার আগে থেকে টের পাওয়া সম্ভব। আর সেটি সম্ভব হাতের বুড়ো আঙুলের সাধারণ একটি পরীক্ষা করেই।
সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘জার্নাল অব কার্ডিয়োলজি’-তে প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্রে এমনটি দাবি করেছেন চিকিৎসকরা। তারা ৩০৫ জন রোগীর ক্ষেত্রে একটি সহজ পরীক্ষার মাধ্যমে দেখিয়েছেন, ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’-এর সমস্যা অনেক আগে থেকে টের পাওয়া সম্ভব।
কী ভাবে পরীক্ষাটি করবেন? : বাম হাতের বুড়ো আঙুল তালু বরাবর প্রসারিত করুন। যত দূর সম্ভব নিয়ে যান। যদি তালুর ভেতরেই আপনার বুড়ো আঙুল থেকে যায়, তাহলে উদ্বেগের কারণ নেই। কিন্তু যদি বুড়ো আঙুলের শীর্ষভাগ তালুর সীমানা অতিক্রম করে যায়, তাহলে বুঝতে হবে, আপনার ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’-এর সমস্যা থাকলেও থাকতে পারে।
কেন এমন হয়? : ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’-এর সমস্যায় যারা ভোগেন, তাদের পেশি এবং হাড়ের সংযোগ স্থলগুলো শিথিল হয়ে যায়। এর ফলেই বুড়ো আঙুলটিকে তালু বরাবর টেনে অনেক দূর পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া যায়। কোনো ব্যথা বা অস্বস্তি হয় না।
ভবিষ্যতে বুড়ো আঙুল আর তালুর এই পরীক্ষা অনেক আগে থেকে ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’-এর পূর্বাভাস দিতে পারবে। এর ফলে রোগীর মৃত্যুর আশঙ্কা অনেকটাই কমিয়ে ফেলা যাবে বলে দাবি গবেষকদের।
চিকিৎসকরা কী বলছেন এ বিষয়ে? : কলকাতার এসএসকেএম-এর হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের অধ্যাপক চিকিৎসক সরোজ মণ্ডল বলেন, ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’ নিয়ে এত সহজ করে এখনই কিছু বলা মুশকিল। আরো পরীক্ষা করেই তা বোঝা যাবে।
তার কথায়, ‘তালুর বাইরে বুড়ো আঙুল টেনে বের করতে পারার ঘটনা অনেকের ক্ষেত্রেই দেখা যায়। ‘মারফান সিন্ড্রোম’ নামক সমস্যার একটি লক্ষণও এটি। সেই সমস্যা থাকলে অনেকে অতিরিক্ত লম্বা হন বা পেশি বা হাড়ের সংযোগস্থল অতিরিক্ত নমনীয় হয়ে যায়। তার মানে এটা নয়, তিনি ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’-এ আক্রান্ত।’
তিনি আরো জানান, ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’-এর প্রধান কারণ ধূমপান এবং মানসিক চাপ। এই দু’টি ত্যাগ করতে পারলেই রোগের আশঙ্কা অনেক কমানো যেতে পারে। সূত্র : দ্য সান ইউকে, ফক্স নিউজ।



 

Show all comments
  • Mohammed Haneepp ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১:৪৫ এএম says : 0
    তাহলে আর ড্াক্তারের কাছে যাওয়ার প্রয়োজন নেই
    Total Reply(0) Reply
  • রেজাউল করিম ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১:৪৫ এএম says : 0
    উপকারী নিউজ। এভাবে ট্রাই করা যায়।
    Total Reply(0) Reply
  • রুকাইয়া খাতুন ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১:৪৫ এএম says : 0
    ভালোই তো, নিজে নিজেই পরীক্ষা করা যাবে
    Total Reply(0) Reply
  • রক্তিম সূর্য ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১:৪৬ এএম says : 0
    ভালো খবর..
    Total Reply(0) Reply
  • Omar forkan ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ২:৩৯ পিএম says : 0
    চমৎকার রিভিউ। জাজাকুমুল্লাহু খায়ের।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বুড়ো আঙুল
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ