Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩ কার্তিক ১৪২৮, ১১ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

২১ নিয়োগ পরীক্ষা একই দিনে, পরীক্ষার্থী-অভিভাবকদের ক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১:০৭ পিএম

১৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন স্কুল-কলেজে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ২১টি নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। একই সময়ে একাধিক পরীক্ষার আয়োজন করায় ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অভিভাবকরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত হওয়া নিয়োগ পরীক্ষাসহ বেশ কয়েকটি ব্যাংকের প্রবেশনারি পরীক্ষার আয়োজন করা হয় শুক্রবার। পরীক্ষাগুলো ঢাকার বিভিন্ন কেন্দ্রে দুই শিফটে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এক পরীক্ষার্থী জানান, আজ সারাদিনে পাঁচটি পরীক্ষার তারিখ পড়েছে। এখন চাইলেও দুটি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া যাচ্ছে না। বাধ্য হয়ে ওয়াচার কনস্টেবল পদে পরীক্ষা দিচ্ছি। একই সময়ে শুরু হওয়া দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের কম্পিউটার অপারেটর পদের পরীক্ষাটি বাদ দিতে হচ্ছে। একইভাবে বিকেল ৩টা ও সাড়ে ৩টায় রয়েছে আরও দুটি পরীক্ষা। বিকেলের শিফটে সাড়ে ৩টার পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার প্রস্তুতি থাকলেও বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের মিটার টেস্টার পদের নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেওয়া যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, পরীক্ষা আয়োজনের ক্ষেত্রে সমন্বয় থাকা উচিত ছিল। সমন্বয়হীনতার কারণে টাকা খরচ করে ঢাকায় এসেও সব পরীক্ষায় অংশ নিতে পারছি না।

এক অভিভাবক জানান, বিকাল ৩টা থেকে সাড়ে ৩টার মধ্যে আরও দুটি পরীক্ষা আছে। কিন্তু একটিতে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন তার মেয়ে।

অন্য এক পরীক্ষার্থী জানান, লাখ লাখ পরীক্ষার্থী চাকরির প্রত্যাশায় আবেদন করেছে। কিন্তু সমন্বয়হীনতার কারণে সবগুলো পরীক্ষায় অংশ নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। এটা খুবই অন্যায়। টাকা খরচ করে আবেদন করেছি, টাকা খরচ করে ঢাকার বাইরে থেকে পরীক্ষা দিতে এসেছি। কিন্তু সবগুলো পরীক্ষায় অংশ নিতে না পারাটা হতাশার।



 

Show all comments
  • Sajib Khan ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:২৩ পিএম says : 0
    সরকারি সিস্টেম কতটা ফালতো হলে একদিনে এতগুলো পরীক্ষা হয়। আজ কয়েকটি পরীক্ষা মিচ করলাম।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Riaj Uddin ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:২২ পিএম says : 0
    তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির নিয়োগ বিপিএসসির মাধ্যমে হোক। রাষ্ট্রপতির আদেশ থাকা সত্ত্বেও দায়িত্বশীলদের সদিচ্ছার অভাবে এটা বাস্তবায়ন হচ্ছে না। গুচ্ছ নিয়োগ পরীক্ষা হলে অনেকাংশে এসব যন্ত্রণা থেকে চাকুরী প্রার্থীরা মুক্তি পেতো।
    Total Reply(0) Reply
  • Nijhum Rimpa ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:২২ পিএম says : 0
    শিক্ষার্থীদের একসঙ্গে এর প্রতিবাদ করা উচিত
    Total Reply(0) Reply
  • Asaduzzaman Sagor ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:২২ পিএম says : 0
    এদেশের সব থেকে নিকৃষ্ট প্রাণী বেকাররা। পরিবার, বন্ধু- বান্ধব, আত্মীয় -স্বজন, পাড়াপ্রতিবেশি, প্রিয় মানুষ, এমনকি নিজ দেশ। কারও কাছেই এদের মূল্য নেই। সব জায়গায় এদের নিগৃহীত হতে হয়।সবাই এদের সাথে মজা নেই। এদেশে বেকার হওয়াটাই যেন আজন্মের পাপ।
    Total Reply(0) Reply
  • Mst Jannatul Ferdus ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:২৩ পিএম says : 0
    আরও একটা কথা না বললেই নয় সব পরীক্ষা কেন ঢাকায় হবে? একজন বেকারের কি প্রতি শুক্রবার ২০০০ টাকা খরচ করা কি সম্ভব?সারা রাত বাসে গিয়ে তার কত মেনটালি পিপারেশন থাকে? সকল পরীক্ষা যার যার বিভাগীয় শহরে হবে??? এটা আমাদের সময়ের দাবি।
    Total Reply(0) Reply
  • হাবিবুর রহমান ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯:২৫ পিএম says : 0
    চরম দায়িত্বহীনতার পরিচয়! কেউই নিবে না এর দায়,সকল নিয়োগ পরীক্ষার জন্য আলাদা করে সময় নির্ধারণ করা উচিৎ! এখানে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপই পারে সমস্যার সমাধান করতে! অন্য সবাই উ ার মুখের দিকেই তাকিয়ে থাকেন!
    Total Reply(0) Reply
  • আনোয়ার ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০:৩৪ এএম says : 0
    ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীর চাকরীর দায়িত্ব পি এস সি কে দওয়া হোক।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ