Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬, ১৬ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

রামগড় হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ রেখে স্বামীর পালায়ন

প্রকাশের সময় : ৮ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

রামগড় (খাগড়াছড়ি) উপজেলা সংবাদদাতা : জেলার রামগড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার সময় মৃত স্ত্রীর লাশ রেখে পালিয়ে গেছে স্বামীসহ আরো দুই যুবক। লাশটি পৌরসভার মহামুনী এলাকার সাইদুল হক এর পুত্র আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী। নিহতের নাম রহিমা বেগম (৩০) পিতা আবু তাহের বাগান টিলা।
হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিস্তেজ এক মহিলাকে নিয়ে আসে তিন যুবক। মহিলাটিকে পরীক্ষা করে মৃত জানালে লোকগুলো কৌশলে লাশটি রেখে পালিয়ে যায়।
পুলিশ জানান, রাত সাড়ে ৯টার সময় রবিউল হক নামে এক কিশোর লাশটিকে তাঁর বড় বোন বলে সনাক্ত করলে রাতেই লাশটি থানায় নেয়া হয়। শুক্রবার লাশের ময়না তদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি প্রেরণ করা হয়েছে।
নিহতের পিতা আবু তাহের অভিযোগ করে বলেন, স্বামী পক্ষের লোকজন তাঁর মেয়েকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে হত্যা করেছে। ২০০৭ সালে পৌরসভার মহামুনী এলাকার সাইদুল হক (বড় মিয়ার) পুত্র বর্তমানে টমটম চালক আনোয়ার হোসেনের সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় কিন্তু বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন সময় মেয়েকে শারিরীক ভাবে নির্যাতন করা হতো। মেয়ের দুইজন কন্যা সন্তান রয়েছে।
অফিসার ইনচার্জ মাইন উদ্দিন খাঁন জানান, মামলার প্রস্তুতি চলছে। তদন্ত ছাড়া কিছু বলা যাচ্ছে না। মহিলার স্বামী পক্ষের লোকজনকে ধরতে রাতেই অভিযান চালানো হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ