Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩ কার্তিক ১৪২৮, ১১ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

সহপাঠী সবার বিয়ে হয়ে যাওয়ায় নার্গিসের একা ক্লাস, ছবি ভাইরাল

সোশাল মিডিয়া ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯:৪১ পিএম

করোনার কারণে দীর্ঘ সময় স্কুল বন্ধ থাকায় এক একে সহপাঠী সবার বিয়ে হয়ে যাওয়ায় একা ক্লাস করছে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী নার্গিস নাহার। তাই এই ছবি এখন ভাইরাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। বান্ধবীদের হারিয়ে অসহায়ের মতো নার্গিসের একাকী ক্লাসের এই দৃশ্য অনেকের মনেই দাগ কেটেছে। ফেসবুকে অনেকে এ নিয়ে সরকার ও অভিভাবক উভয়েরই সমালোচনা করেছেন।

জানা যায়, অষ্টম শ্রেণিতে থাকা অবস্থায় নার্গিসসহ তার আটজন সহপাঠী ছিলেন। কিন্তু স্কুল খোলার পর এখন নবম শ্রেণিতে নার্গিসই একমাত্র ছাত্রী। সে তার সব বান্ধবীকে হারিয়েছে ইতোমধ্যে। নার্গিস ও তার আট বান্ধবী অষ্টম শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণিতে ভর্তিও হয়। কিন্তু লকডাউনের সময় স্কুল বন্ধ থাকা অবস্থায় একে একে নার্গিসের আটজন বান্ধবীর বিয়ে হয়ে যায়। তাই সে এখন একা ক্লাস করছে।

নার্গিস কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার হলোখানা ইউনিয়নের সারডোব উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী। যার এখন কথা বলার কোনো সঙ্গী নেই। বান্ধবীদের ছাড়া মন খারাপের মধ্য দিয়েই স্কুলে সময় কাটছে তার।

নার্গিস জানায়, বান্ধবীদের বিয়ে হয়ে গেছে।তাই আমার মধ্যেও অজানা শঙ্কা কাজ করছে। আমার শেষ পরিণতি কী হবে তাও অজানা। আমি আমার বাবা-মাকে অনুরোধ করেছি, আমাকে যেন হঠাৎ করে বিয়ে না দেয়। আমি পড়াশোনা শেষ করে চাকরি করে নিজের অবস্থা তৈরি করেই বিয়ে করব। এর আগে নয়। অন্যের বোঝা হয়ে থাকতে চাই না আমি।

নার্গিসের অসহায় দৃশ্য দেখে ফেসবুকে মাহাবুব আলম খোকন লিখেছেন, ‘‘সরকার মহামারী করোনার দোহাই দিয়ে স্কুল খোলার তারিখের পর তারিখ দিয়েছে গত দুই বছর যাবত। বাবা-মা সরকারের প্রতি হতাশা হয়ে মেয়েদের বিয়ে দিতে বাধ্য হয়েছে।’’

মোঃ আসলাম হাওলাদার লিখেছেন, ‘‘সবগুলার বাল্য বিবাহ হয়েছে, ওদের ধরে এনে আবার স্কুলে ভর্তি করানো উচিত। নার্গিস অসুন্দরী এ কারণে বিয়ে হয় নাই! এমন কমেন্ট যারা করেছে তাদের নার্গিসের সাথে লেখাপড়া করে শিক্ষিত হওয়া উচিৎ!’’

এস এম সাজ্জাদ রিপনের মন্তব্য, ‘‘ভাগ্য নিয়ে চিনিমিনি না খেলে ওরা আসল পরিণতির দিকে এগিয়ে গেছে। আমি দেখতেছি উচ্চ শিক্ষিত মেয়েদের বিয়ে দিতে গার্ডিয়ানরা অনেক চিন্তিতো।’’

মিরাজ আলী লিখেছেন, ‘‘এর দ্বায় সরকারের। অকারণে লকডাউন, আর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কারণেই মেয়েগুলোর লেখাপড়া ধ্বংস হয়ে গেলো।’’

মনোয়ার হোসাইন লিখেছেন, ‘‘সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে শিক্ষক মহোদয়দের উচিত নার্গিসের নিজ বাসভবনে গিয়ে ক্লাস নিয়ে আসা,,,,।’’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নার্গিসের একা ক্লাস
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ