Inqilab Logo

বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৪ কার্তিক ১৪২৮, ১২ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

পাঁচ মাস পর পাকিস্তানকে লাল তালিকামুক্তের ঘোষণা যুক্তরাজ্যের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১:০৪ পিএম

যুক্তরাজ্য শুক্রবার পাঁচ মাস পর আন্তর্জাতিক ভ্রমণের জন্য পাকিস্তানকে তার ‘লাল তালিকা’ থেকে সরানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ব্রিটিশ পরিবহনমন্ত্রী গ্র্যান্ট শ্যাপস একথা বলেছেন। তিনি টুইটারে ঘোষণা করেন, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, তুরস্ক এবং মালদ্বীপসহ আটটি দেশ ও অঞ্চল ভ্রমণের লাল তালিকা থেকে ২২ সেপ্টেম্বর ভোর ৪টায় বেরিয়ে আসবে। শ্যাপস বলেন, এছাড়াও, যুক্তরাজ্যে ভ্রমণকারীদের জন্য পরীক্ষা সহজ করা হচ্ছে।
‘আগামী ৪ অক্টোবর থেকে, যদি আপনি সম্পূর্ণরূপে [টিকা দেওয়া] থাকেন তবে ইংল্যান্ডে কোনো অ-লাল দেশ থেকে আগমনের আগে আপনার প্রি-ডিপারচার পরীক্ষার প্রয়োজন হবে না এবং অক্টোবরের পর থেকে, ২য় দিন পিসিআর টেস্টের বিপরীতে একটি সস্তা পার্শ্বীয় প্রবাহ প্রতিস্থাপনে সক্ষম হবে’ -তিনি শেয়ার করেছেন।
মন্ত্রী আরো ঘোষণা করেন যে, যুক্তরাজ্য আন্তর্জাতিক ভ্রমণের জন্য তার ‘ট্রাফিক লাইট’ ব্যবস্থা বাতিল করছে, যার মতে কম ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোকে কোয়ারেন্টিনমুক্ত ভ্রমণের জন্য সবুজ, মধ্যম ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোকে অ্যাম্বার এবং লাল দেশগুলো থেকে আগতদের ১০ দিন হোটেলে আইসোলেশনে থাকতে হবে।
তিনি বলেন, ৪ অক্টোবর থেকে আন্তর্জাতিক ভ্রমণের জন্য একটি ‘সরলীকৃত ব্যবস্থা’ থাকবে। নতুন প্রস্তাবের অধীনে, একটি একক লাল তালিকা থাকবে এবং অন্য সব দেশের জন্য নিয়মগুলো সরলীকৃত হবে, -মন্ত্রী যোগ করেন।
যদিও যুক্তরাজ্য কর্তৃপক্ষ এখনও অনেক কিছু পরিষ্কার করতে না পারলেও ব্রিটিশ সরকারের ওয়েবসাইটে একটি আপডেটে বলা হয়েছে, ‘যেসব যাত্রী ইংল্যান্ডের আন্তর্জাতিক ভ্রমণ বিধিমালায় অনুমোদিত ভ্যাকসিন এবং সার্টিফিকেট দিয়ে সম্পূর্ণভাবে টিকা হিসেবে স্বীকৃত নন, তাদের এখনও একটি প্রি-ডিপারচার টেস্ট করাতে হবে। একটি দিন ২ এবং দিন ৮ পিসিআর পরীক্ষা এবং নতুন দ্বি-স্তর ভ্রমণ কর্মসূচির অধীনে একটি অ-লাল তালিকাভুক্ত দেশ থেকে ফিরে আসার পর ১০ দিনের জন্য সেলফ আইসোলেশন’।
টেস্ট টু রিলিজ স্কিমের মাধ্যমে বেসরকারি কোভিড -১৯ পরীক্ষার জন্য অর্থ প্রদান করলে অপ্রচলিত হিসাবে বিবেচিত যাত্রীরা তাড়াতাড়ি কোয়ারেন্টাইন শেষ করতে সক্ষম হতে পারেন। ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার সংক্রান্ত খবর পাকিস্তানে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার ক্রিশ্চিয়ান টার্নারও শেয়ার করেন।
তিনি টুইট করে বলেন, ‘পাকিস্তান লাল তালিকার বাইরে আছে তা নিশ্চিত করতে পেরে খুশি। আমি জানি যে, গত পাঁচ মাস যুক্তরাজ্য ও পাকিস্তানের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের ওপর নির্ভর করে এমন অনেকের জন্য কতটা কঠিন ছিল’।
তিনি বলেন, তিনি স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী (এসএপিএম) ডা. ফয়সাল সুলতান, ফেডারেল মন্ত্রী আসাদ উমর এবং পাকিস্তান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ‘তাদের ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার জন্য’ কৃতজ্ঞ।
টার্নার বলেন, যুক্তরাজ্য ‘দুই দেশের ডাটা শেয়ারিং এবং জনস্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য পাকিস্তানের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ চালিয়ে যাবে’। ‘সবাই নিরাপদ না হওয়া পর্যন্ত কেউ নিরাপদ নয়’।
‘অবশেষে সঠিক সিদ্ধান্ত’
উন্নয়ন, প্রতিক্রিয়া, উন্নয়ন ও বিশেষ উদ্যোগের মন্ত্রী আসাদ উমর বলেছেন: ‘শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানকে লাল তালিকা থেকে সরিয়ে নেওয়ার সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে জেনে ভাল লাগল’।
উমর ‘পাকিস্তানে কোভিড পরিস্থিতি সম্পর্কে তথ্য তুলে ধরার’ জন্য যুক্তরাজ্য হাইকমিশনের পাশাপাশি ব্রিটিশ সংসদ সদস্যদের প্রশংসা করেছেন।
এসএপিএম ডক্টর ফয়সাল সুলতান এ সিদ্ধান্তকে ভ্রমণকারীদের জন্য ‘বড় খবর’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি ‘আমাদের মহামারি প্রতিক্রিয়া এবং সিস্টেমগুলো গভীরভাবে বোঝার পাশাপাশি রোগ সুরক্ষা সক্ষম করার জন্য ডেটা এবং তথ্যের চলমান শেয়ার করে নেওয়ার’ জন্য পাকিস্তানি কর্মকর্তাদের সাথে জড়িত থাকার জন্য ব্রিটিশ হাইকমিশনার এবং যুক্তরাজ্য সরকারী কর্মকর্তাদের প্রশংসা করেন। সূত্র : ডন অনলাইন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাজ্য


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ