Inqilab Logo

রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১ কার্তিক ১৪২৮, ০৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

খুলনায় আ’লীগের নির্বাচনী ক্যাম্প পোড়ানোর নাটক ভেস্তে গেলো!

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:৫৩ পিএম

খুলনা মহানগরীর মাঝে অবস্থিত যোগিপোল ইউনিয়নে নির্বাচন আগামী ২০ সেপ্টেম্বর। এ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন গত মেয়াদে দুর্নীতির দায়ে ইউপি চেয়ারম্যান পদ হতে অপসারিত শেখ আনিসুর রহমান। অজ্ঞাত ক্ষমতার জোরে এবারও তিনি আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেয়েছেন। এ ইউনিয়নে তার শক্ত প্রতিপক্ষ যুবলীগ নেতা সাবেক জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান সাজ্জাদুর রহমান লিংকন।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) তেলিগাতি দক্ষিণপাড়ায় তার একটি নির্বাচনী ক্যাম্পে কে বা কারা আগুন দেয়। সকাল থেকে বিষয়টি নিয়ে চরম উত্তেজনা ও নানামুখী গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়। আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী শেখ আনিসুর রহমানের সমর্থকেরা অভিযোগ করেন তার প্রতিদ্বন্দ্বী সাজ্জাদুর রহমান লিংকনের কর্মীরা নির্বাচনী ক্যাম্প পুড়িয়েছে। এদিকে, নির্বাচনের আগে নির্বাচনী ক্যাম্প পোড়ানোর মত একটি স্পর্শকাতর অভিযোগ পেয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও গণমাধ্যম কর্মীরা ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

ঘটনাস্থলে গিয়েই নানাজনের বক্তব্যে প্রকাশ হয়ে পড়ে এটি ছিল সাজানো একটি নাটক। দু দিন আগে জোরপূর্বক অম্বিকা রানী নামে এক নারীর জমিতে বাঁশ ও পলিথিন দিয়ে ওই ক্যাম্প স্থাপন করেন শেখ আনিসুর রহমান। যা নিয়ে ওই নারী থানায় অভিযোগও দিয়েছেন। পুলিশও বলছে অফিসটির কোনো বৈধতা ছিল না। আগুনের ঘটনা রহস্যজনক। স্থানীয়রা বলছেন, প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে পোড়ানো হবে বলেই ক্যাম্পটি ওভাবে তৈরী করা হয়েছিল।

এবিষয়ে আ’লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ আনিসুর রহমান বলেন, অম্বিকা মিথ্যাবাদী ও বেয়াদব, তার অভিযোগ মিথ্যা। তিনি আরো বলেন, শুক্রবার দিনগত রাত আড়াইটার দিকে দুষ্কৃতকারীরা তেলিগাতি দক্ষিণপাড়ায় তার একটি নির্বাচনী ক্যাম্প আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। এঘটনায় তিনি উজ্জল, উৎপল, শহিদুল ইসলাম পিটোসহ কয়েকজনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। (রাত পৌনে ৮ টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি)।

আড়ংঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, একজন প্রার্থী একটি ইউনিয়নে বৈধভাবে তিনটি নির্বাচনী ক্যাম্প স্থাপন করতে পারেন। যেটি পোড়ানোর অভিযোগ করা হয়েছে সেটি বৈধ কোন ক্যাম্প নয়। বাঁশের চারটা খুঁটি পুতে দড়ি টানিয়ে পোস্টার ঝোলানো হয়েছিল। উপরে পলিথিনের ছাউনি ছিল। অম্বিকা মন্ডলের অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে তিনি বলেন, পরে স্থানীয়রা বসে বিষয়টি মীমাংসা করেছে। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের কর্মী-সমর্থকদের মাঝে উত্তেজনা থাকলেও পুলিশ সতর্ক অবস্থানে আছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খুলনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ