Inqilab Logo

বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

ভীতি প্রদর্শন ও আতঙ্ক তৈরির জন্য সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলব : ফখরুল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:০৮ পিএম | আপডেট : ৭:২৫ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ১১ জন সাংবাদিক নেতার ব্যাংক হিসাব তলবের ঘটনাকে গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের প্রতি এই সরকারের ভীতি প্রদর্শন ও আতঙ্ক তৈরির ক্ষেত্রে আরও একটি নতুন মাত্রা যুক্ত করেছে। এ ঘটনায় আমি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আজ গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, কর্তৃত্ববাদী ফ্যাসিস্ট সরকার সারাদেশে দমন-নিপীড়ন চালাচ্ছে তা থেকে সাংবাদিকরাও রেহাই পাচ্ছেন না। সত্য প্রকাশে নির্ভীক সাংবাদিকদের টুঁটি চেপে ধরার পর এখন জাতীয় প্রেসক্লাব, বিএফইউজে, ডিইউজে ও ডিআরইউ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়েছে। এর মাধ্যমে সাংবাদিকদের মধ্যে ভয় ও আতঙ্ক সৃষ্টির আরো একটি নতুন কৌশল নিয়েছে সরকার। এটা নিঃসন্দেহে উদ্দেশ্যমূলক। নজিরবিহীন এ ঘটনা স্বাধীন সাংবাদিকতা এবং মত প্রকাশের বিরুদ্ধে চরম হুমকি।

মির্জা ফখরুল বলেন, সমগ্র দেশটা এখন আওয়ামী দুঃশাসনের লীলাভূমিতে পরিণত হয়েছে। ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করতে ভোটারবিহীন সরকার বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মী, মানবাধিকার কর্মী ও বিরুদ্ধ মতবাদের নাগরিকদের ওপরই জুলম-নির্যাতন চালাচ্ছে। এখন তারা গণমাধ্যমের সাংবাদিকদেরও সত্য প্রকাশের কারণে নিষ্ঠুর নির্যাতন শুরু করেছে। ১১ সাংবাদিক নেতার ব্যাংক হিসাব তলবের ঘটনা তারই বহিঃপ্রকাশ।

তিনি বলেন, সম্প্রতি অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের ঘোষণায় আবারও প্রমাণিত হয়েছে, দেশের গণমাধ্যম ও সাংবাদিকদের কোন স্বাধীনতা নেই। বিভিন্ন কায়দায় দেশের সংবাদমাধ্যমগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করতে চায় কর্তৃত্ববাদী সরকার। দেশে এক ব্যক্তির শাসন প্রতিষ্ঠিত করাই আওয়ামী লীগের অভিষ্ট লক্ষ্য। এ লক্ষ্যকে বাস্তবে রুপ দিতে বর্তমান অনৈতিক সরকার নির্ভীক সাংবাদিকতার কলম চেপে ধরছে। বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব অবিলম্বে সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করার আহবান জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ