Inqilab Logo

রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১ কার্তিক ১৪২৮, ০৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ধনী দেশগুলোতে ১০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন নষ্ট হয়ে যাবে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

ধনী দেশগুলোতে মজুদ করে রাখা ১০ কোটি ডোজ করোনা ভ্যাকসিন আগামী ক্রিসমাসের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে যাবে। সম্প্রতি একটি নতুন বিশ্লেষণে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ধনী দেশগুলোতে ভ্যাকসিন নষ্ট হলেও ‘অচিন্তনীয়’ বিষয় হচ্ছে, দরিদ্র দেশগুলো যথেষ্ট ভ্যাকসিন পাচ্ছে না।

এয়ারফিনিটি ডেটা গ্রুপ পরিচালিত গবেষণায় দেখা গেছে, আগামী গ্রীষ্মের মধ্যে করোনা মহামারীতে আরও ১০ লাখ মানুষের মৃত্যু হতে পারে। এ গবেষণাকে সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী গর্ডন ব্রাউন অনুমোদন করেছেন, যিনি বুধবার জাতিসংঘের ভ্যাকসিন সম্মেলনে নেতৃত্ব দেয়ার আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে এই ফলাফল পাঠিয়েছেন। তিনি ভ্যাকসিনগুলো নষ্ট হওয়ার আগেই সেগুলো ব্যবহারের জন্য বাইডেনকে আহ্বান জানান। ইতিমধ্যে, জনস্বাস্থ্যের উপর আরও ভাল বৈশ্বিক পদক্ষেপ এগিয়ে নেয়ার জন্য ব্রাউনকে দূত হিসাবে নিযুক্ত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। তিনি বলেন, ‘এটা অচিন্তনীয় এবং অবাস্তব যে ১০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন সমৃদ্ধ দেশগুলোর মজুদ থেকে ফেলে দিতে হবে, যদিও বিশ্বের দরিদ্রতম দেশের জনসংখ্যা আমাদের ভ্যাকসিন নষ্ট হওয়ার জন্য ক্ষতিপূরণ দেবে ‘ তিনি বলেন, ‘এটি একটি গভীর এবং সম্মিলিত রাজনৈতিক ট্র্যাজেডি হবে যদি এই শীর্ষ সম্মেলনটি দরিদ্র দেশগুলোতে অবিলম্বে ভ্যাকসিনগুলো স্থানান্তরিত করার সুযোগ মিস করে।’

যুক্তরাজ্য তার নিজের জনসংখ্যার জন্য আরও ভ্যাকসিন নিশ্চিত করতে অন্যান্য পশ্চিমা দেশগুলোর সাথে যোগ দেয়ার পরে এই সতর্কতাটি দেয়া হলো। বরিস জনসন উন্নয়নশীল দেশগুলোর সাথে ১০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন ভাগ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন - কিন্তু এখন পর্যন্ত মাত্র ৯০ লাখ ডোজ পাঠানো হয়েছে। এয়ারফিনিটি বলেছে যে, তাদের গবেষণায় ভ্যাকসিনের সামগ্রিক সঙ্কটের পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। সূত্র : দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ