Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

তালতলীতে ধর্ষণের দায়ে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রকৌশলী কারাগারে

বরগুনা জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

বরগুনার তালতলীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক কিশোরীকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগে তালতলী তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের আউট প্রসেসিং প্রকৌশলী শরীফুল ইসলামকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত আসামিকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে বরগুনা জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এর আগে গত সোমবার বেলা ১১টার দিকে তালতলী বন্দর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তি তালতলী তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের আউট প্রসেসিং প্রকৌশলী হিসেবে কাজ করতেন। তিনি ঢাকার গাজীপুর পৌরসভার ১৪নং ওয়ার্ডের পিটি পাড়া এলাকার বাসিন্দা নজরুল ইসলামের ছেলে শরীফুল ইসলাম (৩৫)।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী কিশোরীর বড় বোন আকলিমা বেগমের সাথে প্রায় পাঁচ বছর ধরে পরিচয় ছিল। সেই সুবাদে ওই কিশোরীর পরিবারের সাথে যোগাযোগ ছিল শরীফুলের। গত ৭-৮ মাস ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। এক পর্যায়ে গত ৮ দিন পূর্বে ওই কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ঢাকার সাইনবোর্ড এলাকা থেকে তালতলী বন্দর এলাকার একটি ভাড়া বাসায় নিয়ে আসেন এবং সেখানে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করেন ও বিয়ের জন্য বার বার বললেও শরীফুল তালবাহানা করে।
ভুক্তভোগী ওই কিশোরী ঘটনাটি গোপনে পাশের বাসায় বললে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সংবাদকর্মীরা তালতলী থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে।
এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই কিশোরী বাদী হয়ে গত সোমবার রাতে তালতলী থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।
তালতলী থানার ওসি কামরুজ্জামান মিয়া জানান, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্তকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন