Inqilab Logo

সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৯ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

দক্ষিণাঞ্চলে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির উন্নতি, ৬দিনে মৃত্যু সংবাদ নেই

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১:৪৪ পিএম

দক্ষিণাঞ্চলে করোনা সংক্রমণে গত ৬দিন কোন মৃত্যু সংবাদ নেই। আক্রান্ত ও মৃত্যুর এ হার গত মাসের একই সময়ের তুলনায় আশাব্যঞ্জক উন্নতি ঘটেছে। গত ১৬ সেপ্টেম্বর সর্বশেষ বরিশাল ও ভোলাতে দুজনের মৃত্যু সংবাদ দিয়েছিল স্বাস্থ্য বিভাগ। গত ৪৮ ঘন্টায় এ অঞ্চলে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৪৫। আর গত মাসের ২১ ও ২২ তারিখে সংখ্যাটা ছিল ২৮৪। ঐ দুদিনে দক্ষিণাঞ্চলে মৃত্যু হয়েছিল ৮ জনের। এনিয়ে বুধবার সকাল পর্যন্ত দক্ষিণাঞ্চলে সর্বমোট ২ লাখ ৯ হাজার ৫২০ জনের নমুনা পরিক্ষায় ৪৪ হাজার ৮৫০ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। গড় শনাক্তের হার ২১.৪১%। তবে গত ৪৮ ঘন্টায় ১ হাজার ২৪ জনের নমুনা পরিক্ষায় শনাক্তের সংখ্যা ছিল ৪৫ জন। ইনয়ে চলতি মাসের ২২দিনে দক্ষিণাঞ্চলে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৮৫ জনে। মৃত্যু হয়েছে ২২ জনের। এরমধ্যে বরিশাল মহানগরীতেই ১৬৩ জন আক্রান্ত হলেও কোন মৃত্যু সংবাদ নেই।

তবে দক্ষিণাঞ্চলে শনাক্তের হার ইতোমধ্যে ৫%-এর নিচে নামলেও তা নিয়ে আত্মতৃপ্তির অবকাশ নেই বলে মনে করছেন চিকিৎসা বিশেষজ্ঞগন। তাদের মতে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি অনুসরনেরর কোন বিকল্প নেই। কিন্তু পরিস্থিতির উন্নতি হলেও এ আঞ্চলে এখন আর নুন্যতম স্বাস্থ্যবিধি কেউ অনুসরন করছেন না। ৫% মানুষও রাস্তাঘাটে ফেসমাস্ক ব্যবহার করছেন না। বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য বিভাগ ও প্রশাসনের এখন আর কোন হেলদোল নেই। তবে স্বাস্থ্য বিভাগের দাবী তারা স্বাস্থ্য বিধি অনুসরনে যতটুকু প্রচারনা সম্ভব তা করে যাচ্ছেন। এক্ষেত্রে গাইড লাইনও দিচ্ছেন তারা। তবে স্থানীয় সরকার প্রশাসন সহ জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের আরো কঠোর পদক্ষেপ আশা করছেন স্বাস্থ্য বিভাগের দায়িত্বশীল মহল।

এদিকে বুধবার দুপুরের পূর্ববর্তি ৪৮ ঘন্টায় দক্ষিণাঞ্চলের ৬ জেলায় আরো ১৬৭ জন সহ সর্বমোট ৪২ হাজার ১শ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন বলে বিভাগীয় স্বাস্থ্য দপ্তর জানিয়েছে। সর্বশেষ হিসেবে গড় সুস্থতার হার ৯৩.৮৭%।

গত ৪৮ ঘন্টায় মোট আক্রান্ত ৪৫ জনের মধ্যে বরিশালেই সংখ্যাটা ১৪। এরমধ্যে মহানগরীতেই আক্রান্ত হয়েছেন ১২ জন। এনিয়ে মহানগরীতে ১০ হাজার ৩৮৯ জন সহ জেলায় মোট আক্রান্ত ১৮,১৯৩। আর জেলায় মোট মৃত্যু ২২৯ জনের মধ্যে মহানগরীতেই মারা গেছেন ১০১ জন।
এসময়ে ভোলাতে ১১ জন সহ সর্বমোট শনাক্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৬ হাজার ৭৯১ জনে। দ্বীপ জেলাটিতে মৃত্যু হয়েছে ৯১ জনের। পটুয়াখালীতে গত ৪৮ ঘন্টায় নতুন শনাক্ত হয়েছেন ৫জন। জেলাটিতে এপর্যন্ত ৬ হাজার ১৭১ জন আক্রান্তের মধ্যে মারা গেছেন ১০৭ জন। পিরোজপুরে মঙ্গলবারে ৭ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হলেও বুধবারে কোন সংক্রমনের খবর ছিললনা। জেলাটিতে এপর্যন্ত ৫ হাজার ২৫৮ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হবার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮৩ জনের।

বরগুনাতেও গত ৪৮ ঘন্টায় ৫ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। দক্ষিনাঞ্চলের সর্বাধীক মৃত্যুহারের এ জেলাটিতে ইতোমধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৯৭ জনের। জেলাটিতে ইতোমধ্যে মোট আক্রান্ত ৩ হাজার ৮৪২ জনের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৯৭ জনের। স্বাস্থ্য বিভাগের হিসেবে বরগুনাতে এখনো গড় মৃত্যুহার ২.৫২%।

আর দক্ষিনাঞ্চলের সবচেয়ে ছোট জেলা ঝলকাঠীতে গত মঙ্গলবার ৩ জনের দেহে করেনা পজিটিভ শনাক্ত হলেও বুধবারে সংখ্যাটা ছিল শূণ্য। এ অঞ্চলের সর্বাধীক সংক্রমন হারের এ জেলায় এখনো গড় শনাক্তের হার ২৫.৬৫ %। জেলাটিতে ১৭ হাজার ৯১৫ জনের নমুনা পরিক্ষায় শনাক্ত ৪ হাজার ৫৯৫ জনের মধ্যে ইতোমধ্যে মারা গেছেন ৬৯ জন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনা ভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ