Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩ কার্তিক ১৪২৮, ১১ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

মেজর (অবঃ) সিনহা হত্যা মামলা: অহেতুক কাল ক্ষেপণের অভিযোগ

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:২৭ পিএম

মেজর (অবঃ) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলার অন্যতম আসামি, বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশ এর পক্ষে একজন সাক্ষীকে জেরা করতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন তার প্রধান আইনজীবী এড. রানাদাশ গুপ্ত।

বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর তৃতীয় দফায় সাক্ষ্য গ্রহণের শেষ দিনে কক্সবাজারের জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইল এর আদালতে সাক্ষী সার্জেন্ট আইয়ুব আলী'র দেওয়া জবানবন্দীর বিপক্ষে আসামী প্রদীপ কুমার দাশ এর পক্ষে জেরা করার জন্য বলা হলে তার নিয়োজিত আইনজীবী এডভোকেট রানা দাশ গুপ্ত সাক্ষী, সেনা সদস্য সার্জেন্ট আইয়ুব আলী'কে জেরা করতে এ অপারগতা প্রকাশ করেন।

সাক্ষী, সেনা সদস্য সার্জেন্ট আইয়ুব আলী হলেন-এ মামলায় জবানবন্দী গ্রহণ করা ১২ তম সাক্ষী।

একপর্যায়ে আসামি প্রদীপ কুমার দাশ নিজে অথবা অন্যকোন আইনজীবী দিয়ে সাক্ষী সার্জেন্ট আইয়ুব আলী'কে জেরা করবেন কিনা-জানতে চাইলে প্রদীপ কুমার দাশ জেরা করবেন না বলে আদালতের কাছে জানান।

এর আগে বুধবার সকালে আদালতের কার্যক্রম শুরু হলে আসামী প্রদীপ কুমার দাশ এর নিয়োজিত আইনজীবী এডভোকেট রানা দাশ গুপ্ত মেজর (অব:) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলার বিষয়ে সামরিক গোয়েন্দা সংস্থার (ডিরেক্টরেট জেনারেল অব ফোর্সেস ইন্টেলিজেন্স -ডিজিএফআই) তৈরি করা প্রতিবেদন ও ডকুমেন্টস তলব করে এনে মামলার মূল নথীর সাথে সংযুক্ত করার জন্য আদালতে আবেদন করেন। আদালতের বিচারক মোহাম্মদ ইসমাইল আবেদনটি শুনানি করে বিষয়টি জুডিয়াসিয়ারী বিষয় না হওয়ায় আবেদনটি নাকচ করে দেন। তবে সাক্ষী সার্জেন্ট আইয়ুবকে আসামীর আইনজীবীরা যথারীতি জেরা করেন।

রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী পিপি এড. ফরিদুল আলম জানান, ২০ সেপ্টেম্বর থেকে ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট ২৩ জন সাক্ষীকে সমন জারী করা হলেও আসামী পক্ষের আইনজীবীরা জেরায় অহেতুক কাল ক্ষেপন করায় সাক্ষ্য গ্রহণ দেরী হয়ে যাচ্ছে।

এসময় লিয়াকত-প্রদীপসহ ১৫ আসামীকে আদালতে হাজির রাখা হয়েছিল।



 

Show all comments
  • মোহাম্মদ দলিলুর রহমান ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম says : 0
    অহেতুক সময় নষ্ট করবেন না,খুনিরা যত দিন পৃথিবীতে থাকবে খাবে,ততদিন ,মেজর সিনহার আত্মায় কষ্ট পাবে,দেরি করবেন না,আশা করি জনসমাজের সামনে এদের ফায়ারিং করে হত্যার বিচার করবেন,
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কক্সবাজার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ