Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

আফগান প্রধানমন্ত্রী সকাশে পাকিস্তান চীন রাশিয়ার দূত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী মোল্লা মুহাম্মদ হাসান আখুন্দ কাবুলে পাকিস্তান, চীন ও রাশিয়ার প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন বলে তালেবান মুখপাত্র আহমদুল্লাহ মুত্তাকি মঙ্গলবার তার অফিসিয়াল হ্যান্ডেল থেকে এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন। বিস্তারিত না জানিয়ে মুখপাত্র সেই বৈঠকের ছবি পোস্ট করেছেন যেখানে আফগানিস্তান বিষয়ক পাকিস্তানের বিশেষ দূত মুহাম্মদ সাদিকও উপস্থিত ছিলেন। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভার উদ্ধৃতি দিয়ে টিএএএস বার্তা সংস্থার জারি করা এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আফগানিস্তানের জন্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের বিশেষ প্রতিনিধি জমির কাবুলভ তালিবান (রাশিয়াতে নিষিদ্ধ) আন্দোলনের নিযুক্ত আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ হাসান আখুন্দের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন। বিজ্ঞপ্তিতে যোগ করা হয়েছে, ‘এ বৈঠক শেষ হওয়ার পরে আমরা একটি বিস্তারিত বিবৃতি প্রদান করব, এটি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে’। পাকিস্তান, রাশিয়া, চীন এবং ইরান আফগানিস্তানে ২০ বছরের দীর্ঘ যুদ্ধের অংশীদার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার পশ্চিমা মিত্রদের আফগানিস্তানের সংঘর্ষ-পরবর্তী পুনর্গঠনের জন্য ‘প্রাথমিক দায়িত্ব’ বহন করার আহবান জানানোর কয়েকদিন পর এই বৈঠক হয়। নেতারা আমেরিকাকে তালেবানদের সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার আহবান জানান, যদিও তারা নতুন আফগান শাসকদের আরও অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকারের হাতে ক্ষমতা দেওয়ার, প্রতিবেশীদের কাছে শান্তিপূর্ণ থাকার এবং সন্ত্রাস ও মাদক পাচারের বিরুদ্ধে লড়াই করার আহŸান জানান। তাজিক রাজধানী দুশান্বেতে অনুষ্ঠিত চারটি মধ্য এশিয়ার দেশ এবং ভারত সহ আট সদস্যের আঞ্চলিক জোট সাংহাই সহযোগিতা সংস্থার (এসসিও) শীর্ষ সম্মেলনে ভাষণ দেওয়ার সময় নেতারা এই আহŸান জানান। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন বলেছেন, এসসিওর উচিত ‘নতুন আফগান কর্তৃপক্ষকে উদ্দীপিত করার জন্য’ তার জীবনযাত্রা স্বাভাবিক করতে এবং আফগানিস্তানে নিরাপত্তা আনার ক্ষেত্রে ‘তার সম্ভাব্যতা’ ব্যবহার করা। পুতিনের মতামত তার চীনা প্রতিমন্ত্রী শি জিনপিং প্রতিধ্বনিত করেছেন। আমেরিকার নাম উল্লেখ না করে একাদশ বলেছিলেন যে, ‘নির্দিষ্ট দেশগুলোর’ উচিত পরিস্থিতির ‘উস্কানিদাতা’ হয়ে আফগানিস্তানের ভবিষ্যতের উন্নয়নের জন্য তাদের যথাযথ দায়িত্ব গ্রহণ করা। তবে, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ‘আফগানিস্তানে ৪০ বছরের যুদ্ধ শেষ করার একটি বিরল সুযোগ’-এর প্রশংসা করেছেন এবং তালেবানকে তার সরকারের সকল জাতিগোষ্ঠীর প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করার আহŸান জানিয়েছেন। এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ