Inqilab Logo

সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৯ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

‘এখন থেকে নিজেদের নীতি অনুসরণ করব’

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

পাকিস্তানে নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে সিরিজ না খেলেই দেশে ফিরেছে নিউজিল্যান্ড। একই পথে হেটেছে ইংল্যান্ডও। আগামী অক্টোবরের প্রথম দিকে পাকিস্তানের সঙ্গে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ বাতিল করেছে তারা। মূলত পশ্চিমা দেশগুলো একই নীতি অনুসরণ করায় নিউজিল্যান্ডের দেখাদেখি ইংল্যান্ড সিরিজ বাতিল করেছে বলে মনে করছেন রমিজ রাজা।
অনেকটা ঐক্যজোটের মতো করে চলা পশ্চিমা দেশগুলোর এমন মনোভাবে বেশক্ষুব্ধ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট রমিজ। সিরিজ খেলতে পাকিস্তান সফরে আসা কিউইদের ক্রিকেটারদের ওপর কোনো শর্তের বোঝা চাপিয়ে দেওয়া হয়নি বলে মনে করিয়ে দেন রমিজ। আর ইংল্যান্ড কিংবা নিউজিল্যান্ড সফরে গেলে এশিয়ার দেশগুলোকে কোয়ারেন্টাইনের সঙ্গে নানা ধরণের নীতিমালা চাপিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগের তীর ছুঁড়েছেন রমিজ। বিষয়টি থেকে শিক্ষা নিয়ে পাকিস্তান নতুন নীতি অবলম্বন করবে বলে হুশিয়ারি দেন তিনি।
পিসিবি প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘এখান থেকে শিক্ষা নেওয়ার আছে যে ওদের আসার জন্য আমাদের কতটা কাকুতি মিনতি করতে হয় কিংবা কী রকম সুবিধা দিতে হয়। আবার আমরা সেখানে গেলে কঠোর কোয়ারেন্টাইনের মধ্য দিয়ে যেতে হয়, তাদের শর্ত মানতে হয়। এটাই শিক্ষা পেলাম, এখন থেকে আমরা নিজেদের নীতি অনুসরণ করব।’
সিরিজ দুটি স্থগিত হয়ে যাওয়ার বিশ্বকাপের আগে আর ম্যাচ খেলা হচ্ছে না পাকিস্তানের। এবারের বিশ্বকাপে গ্রæপ-২ তে ভারত, নিউজিল্যান্ড, আফগানিস্তান ও বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা দুটি দলের বিপক্ষে খেলবে দলটি। আগামী ২৪ অক্টোবর চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে বাবর আজমদের বিশ্বকাপ মিশন।
নিউজিল্যান্ডের সিদ্ধান্তে ‘অস্বচ্ছতা’ দেখছেন সাইমন
স্পোর্টস ডেস্ক : নিরাপত্তা ইস্যুতে পাকিস্তান সফর স্থগিত করার পর এ ব্যাপারে এখনও বিস্তারিত তথ্য জানায়নি নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (এনজেডসি)। এ কারণে ঘটনার মূল রহস্য বের করতে পারছে না পাকিস্তান কতৃপক্ষ। নিউজিল্যান্ড সফর স্থগিতের সপ্তাহ না পেরোতেই ইংল্যান্ডও তাদের পাকিস্তান সফর স্থগিত করেছে। যা নিয়ে চিন্তিত দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। পাকিস্তান সরকারের পক্ষ থেকেও চেষ্টা করা হয়েছে কিউইদের আশ্বস্থ করার। কিন্তু সমস্যার সমাধান না হওয়ায় ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) হস্তক্ষেপও কামনা করা হয়েছে।
এ প্রসঙ্গে সাবেক কিউই ক্রিকেটার ও জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার সাইমন ডুল বলেন, ‘পাকিস্তানের অবস্থা আমি বুঝতে পারছি। পাকিস্তানের ক্রিকেট ভক্ত, রমিজ রাজা, ইমরান খান-এমনকি পাকিস্তানের পুরো ক্রিকেটের বর্তমান পরিস্থিতি আমি অনুভব করতে পারছি। আমি মনে করি, নিউজিল্যান্ডের সিদ্ধান্ত নিয়ে কিছুটা অস্বচ্ছতা আছে। এর ব্যাখা দেওয়া উচিত ছিল? আমি মনে করি এটি হওয়া উচিত, কিন্তু আমি জানি না এর ভেতরে এবং বাইরে আসলে কি ঘটেছে।’
তিনি আরো বলেন, ‘অভিযোগের বিস্তারিত তথ্য না পেলে কিভাবে তারা জানবে আসলে কী ঘটেছিল। আমি মনে করি পাকিস্তানের জন্য এটা খুবই কঠিন কাজ।’ সাবেক এই কিউই ক্রিকেটার মতে, নিউজিল্যান্ডের জন্যও বিষয়টি সহজ নয়। কেননা, ক্রিকেটারদের নিরাপত্তার ব্যাপারটিও খুব গুরুত্বপূর্ণ এবং নিউজিল্যান্ড সেটাকেই গুরুত্ব দিয়েছে। তাছাড়া তারা যে তথ্য পেয়েছিল সেটাও তাদের কাছে বিশ্বাস্যযোগ্য মনে হয়েছিল বলে অনুমান করেন সাইমন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন