Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩ কার্তিক ১৪২৮, ১১ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

শাহরাস্তিতে মা ও পরকীয়া প্রেমিক খুন করেছে মেয়েকে

চাঁদপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:১৭ পিএম

চাঁদপুরের শাহরাস্তির আলোচিত নওরোজ আফরিন প্রিয়া (২১) হত্যা মামলায় তার মা তাহমিনা সুলতানা রুমিকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ। তিনি বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছিলেন। এবার তাকেই আসামী করে বৃহস্পতিবার বিকেলে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এর আগে প্রিয়া হত্যায় জড়িত সন্দেহে তার মায়ের পরকীয়া প্রেমিক হান্নানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আটককৃত ২জনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
চাঁদপুরের পিপি অ্যাড. রনজিত রায় বৃহস্পতিবার রাতে জানান, প্রিয়া হত্যা মামলায় তার মা ও মায়ের পরকীয়া প্রেমিককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। প্রিয়ার মা তাহমিনা সুলতানা রুমি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। আটক পরকীয়া প্রেমিক মো. আ. হান্নানকে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হবে পরবর্তী কার্যদিবসে।

শাহরাস্তি মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আবদুল মান্নান জানান, তাহমিনা সুলতানা রুমি ও তার প্রেমিক আঃ হান্নান মিলে প্রিয়াকে খুন করে। মেয়ে মায়ের পরকীয়া জেনে ফেলায় ২ জনে পরিকল্পনা করে প্রিয়াকে তাদের পথ থেকে সরিয়ে দিয়েছেন।
১৬ সেপ্টেম্বর রাত ৮টার দিকে উপজেলার রায়শ্রী দক্ষিণ ইউনিয়নের আহাম্মদ নগর ছোটপোদ্দার বাড়িতে নওরোজ আফরিন প্রিয়া (২১) নামে গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

সে ওই বাড়ীর প্রবাসী ইসমাইল হোসেনের একমাত্র মেয়ে। তার স্বামীর বাড়ী কুমিল্লায়। স্বামী কাইরুজ্জামান চৌধুরী হৃদয় কুমিল্লায় চাকরি করেন। নিহতের আবরীন জামান উম্মে আনহার (২) নামে শিশু সন্তান রয়েছে।



 

Show all comments
  • মোহাম্মদ দলিলুর রহমান ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ২:৫৯ পিএম says : 0
    আসতাগফিরুল্লাহ
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ আকতার হোসেন মীর ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১১:৩৭ পিএম says : 0
    পরক্রিয়া প্রেমিক যুগলদের কঠিনের চেয়ে কঠিন শাস্তি দেওয়া না হলে সমাজের এইসব নো;রামী খেলা বন্ধ হবে না ।
    Total Reply(0) Reply
  • Shofik ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:৩০ এএম says : 0
    Women became shameless. Part of this is because of social media like Facebook, imo, etc.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খুন

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ