Inqilab Logo

সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

উত্তর কোরিয়া : আশার বাণী শোনালেন নেতা কিমের বোন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:৫৩ এএম

দক্ষিণ কোরিয়া যদি ‘বৈরি নীতি’ পরিত্যাগ করে তাহলে তাদের সঙ্গে আলোচনা পুনরায় শুরুর ব্যাপারে উত্তর কোরিয়া আগ্রহী বলে মন্তব্য করেছেন কিম জং উনের বোন কিম ইয়ো-জং। কোরীয় যুদ্ধের আনুষ্ঠানিক ইতি ঘোষণায় দক্ষিণের দিক থেকে আসা আহবানের প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ মন্তব্য করেন। ১৯৫০ থেকে ১৯৫৩ সাল পর্যন্ত চলা ওই যুদ্ধ কোরীয় উপদ্বীপকে বিভক্ত করেছে। দুই পক্ষের সংঘর্ষ শেষ হয়েছে যুদ্ধবিরতির মধ্য দিয়ে; কোনো শান্তিচুক্তি না হওয়ায় দেশ দুটি এখনও কার্যত যু্দ্েধর মধ্যেই আছে।

বিবিসি জানিয়েছে, চলতি সপ্তাহে দক্ষিণের প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন দুই কোরিয়া এবং তাদের ঘনিষ্ঠ মিত্র যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের প্রতি কোরীয় যুদ্ধের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি এবং উপদ্বীপে শান্তি প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিতে আহবান জানান। প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় উত্তর কোরিয়ার এক মন্ত্রী মুনের এ প্রস্তাবকে ‘অপরিণত’ অ্যাখ্যা দেন। কিন্তু শুক্রবার দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে দেওয়া অপ্রত্যাশিত এক বিবৃতিতে ইয়ো-জং বলেন, দক্ষিণের প্রেসিডেন্টের প্রস্তাবটি ‘প্রশংসনীয়’।

কিমের এ বোন উত্তরের ক্ষমতাসীন পার্টি এবং তাদের নীতি নির্ধারণে বেশ প্রভাবশালী। বিবৃতিতে তিনি বলেন, দক্ষিণ যদি উত্তরের প্রতি ‘বৈরি নীতি’ পরিত্যাগ করে কেবল তখনই পিয়ংইয়ং আলোচনায় আগ্রহী হবে। তাদের বাদ দেওয়া দরকার দ্বিচারী আচরণ, অযৌক্তিক পক্ষপাতিত্ব, বাজে অভ্যাস এবং বৈরি অবস্থানের কারণে আমাদের আত্মরক্ষার অধিকারের অনুশীলনকে দোষারোপের মাধ্যমে তাদের নিজেদের কর্মকান্ডকে বৈধতা দেওয়া, -বলা হয়েছে বিবৃতিতে। “যখন তারা এ ধরনের পূর্বশর্ত মেনে নেবে, তখনই কেবল মুখোমুখি বসা এবং যুদ্ধের সার্থক সমাপ্তি ঘোষণা সম্ভব হবে,” বলেছেন ইয়ো-জং। সূত্র : বিবিসি নিউজ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উত্তর কোরিয়া

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ