Inqilab Logo

রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১ কার্তিক ১৪২৮, ০৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

চরম দুর্ভোগে এলাকাবাসী

কলাপাড়ার চম্পাপুর সড়কে ভাঙন

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় চম্পাপুর ইউনিয়নের অভ্যন্তরীণ যোগাযোগের একমাত্র পাকা রাস্তাটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তার কোথাও ছোট ছোট পুকুরের মতো গর্ত আবার কোথাও নালা কাটার মতো ভেঙে গেছে। এর ফলে যানবাহন চলাচল তো দূরের কথা মানুষজন চলাচলেই চরম দুর্ভোগ পোহতে হচ্ছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে স্কুল-কলেজগামী ছাত্র-ছাত্রীরা।
এলাকাবাসী জানায়, গত অমাবশ্যার প্রভাবে দেবপুর বেরিবাঁধ ভেঙে জোয়ারের পানি প্রবেশ করে। জোয়ার-ভাটার পানি চলাচলের কারণে ইউনিয়নের অধিকাংশ কাঁচা রাস্তা মাটির সাথে মিশে গেছে। ইউনিয়নের একমাত্র পাকা রাস্তাটির অবস্থাও খুব খারাপ। ভেঙে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। জোয়ার-ভাটার প্রভাবে চালিতাবুনিয়া বাংলাবাজারের পশ্চিম পার্শ্ব থেকে এম ইউ মাধ্যমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার পাকা রাস্তা ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে। রাস্তা ভেঙে যাওয়ায় কোনো যানবাহন চলাচল করতে পারে না। চরম দুর্ভোগের মধ্যে আছে এলাকার মানুষ।
এ ব্যাপারে চম্পাপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. রিন্টু তালুকদার বলেন, রাস্তাটি দ্রুত মেরামতের মাধ্যমে জনদুর্ভোগ লাঘব প্রয়োজন। আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে রাস্তা মেরামতের জন্য লিখিত আবেদন করেছি। কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হক বলেন, চম্পাপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ সংক্রান্ত একটি আবেদন নিয়ে গত ১২ সেপ্টেম্বর আমার কাছে এসেছিলো। বিষয়টি জনগুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলীকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রাস্তাটি দ্রুত মেরামতের জন্য বলেছি। এ ব্যাপারে কলাপাড়া উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী মো. মোহর আলী বলেন, বর্তমানে রাস্তা সংস্কারের কোনো ফান্ড নেই। ফান্ড পাওয়া গেলে দ্রুত রাস্তাটি সংস্কার করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চম্পাপুর সড়কে ভাঙন

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ