Inqilab Logo

বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

তালেবান ইস্যুতে পাকিস্তান, চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সমন্বয় করছে রাশিয়া

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৪:২৭ পিএম

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ শনিবার বলেছেন, আফগানিস্তানের নতুন তালেবান শাসকরা তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে, বিশেষ করে সত্যিকারের প্রতিনিধিত্বশীল সরকার গঠনের জন্য এবং উগ্রবাদের বিস্তার রোধ করতে একসঙ্গে কাজ করছে। তিনি বলেন, তাদের সাথে চারটি দেশ যোগাযোগের মধ্যে রয়েছে।

লাভরভ বলেন, রাশিয়া, চীন ও পাকিস্তানের প্রতিনিধিরা সম্প্রতি কাতার এবং তারপর আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল ভ্রমণ করেছেন। তারা তালেবান এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই এবং আবদুল্লাহ আবদুল্লাহর প্রশাসনের সাথে আলোচনা করেছেন। তিনি বলেন, তালেবান কর্তৃক ঘোষিত অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ‘আফগান সমাজের গোটা দল-জাতিগত-ধর্মীয় এবং রাজনৈতিক শক্তিকে’ প্রতিফলিত করে না, তাই আমরা যোগাযোগ রেখে চলেছি।’

শনিবার একটি সংবাদ সম্মেলনে এবং পরে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে তার বক্তৃতায়, লাভরভ আফগানিস্তান থেকে তড়িঘড়ি করে প্রত্যাহার সহ বাইডেন প্রশাসনের সমালোচনা করেছিলেন। তিনি বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ন্যাটো প্রত্যাহার ‘পরিণতির কোন বিবেচনা ছাড়াই করা হয়েছিল এবং আফগানিস্তানে অনেক অস্ত্র অবশিষ্ট আছে।’ এই ধরনের অস্ত্রগুলো যে ‘ধ্বংসাত্মক উদ্দেশ্যে’ ব্যবহার করা হবে না, তার কোন নিশ্চয়তা নেই।

পরে জাতিসংঘে দেয়া বক্তৃতায়, লাভরভ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার পশ্চিমা মিত্রদের ‘আজকের মূল সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘের ভূমিকা হ্রাস করার অব্যাহত প্রচেষ্টা বা এটিকে সরিয়ে দেয়ার জন্য বা এটিকে কারও স্বার্থ প্রচারের জন্য একটি নিন্দনীয় হাতিয়ার’ বলে অভিযুক্ত করেন। উদাহরণস্বরূপ, লাভরভ বলেছিলেন যে, জার্মানি এবং ফ্রান্স সম্প্রতি বহুপাক্ষিকতার জন্য একটি জোট গঠনের ঘোষণা দিয়েছে। ‘যদিও জাতিসংঘের চেয়ে কোন ধরনের কাঠামো বহুপক্ষীয় হতে পারে?’

গত সপ্তাহে লাভরভ বাইডেন প্রশাসনের সম্প্রতি ঘোষিত ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় কৌশলের দিকে ইঙ্গিত করে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনায় ‘বড় উদ্বেগ’ প্রকাশ করেছেন-যার উদ্দেশ্য, তিনি বলেন, ‘চীনের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করা।’ লাভরভ বলেন, বড় শক্তির মধ্যে সম্পর্ক অবশ্যই ‘সম্মানজনক’ হতে হবে। তিনি বলেন, বিশ্বের সম্মুখীন সমালোচনামূলক ইস্যুতে আলোচনার জন্য এবং সমঝোতা করার জন্য বড় শক্তির একটি ‘বড় দায়িত্ব’ রয়েছে এবং রাশিয়া এখন জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচটি স্থায়ী সদস্যদের শীর্ষ সম্মেলনের জন্য তার প্রস্তাব ‘পুনরুজ্জীবিত’ করছে। সূত্র: ডন।



 

Show all comments
  • ফারুকুজ্জামান তালুকদার ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯:৩৪ পিএম says : 0
    লাভরভকে দেখে রাশিয়ান মনে হয় না, মধ্যপ্রাচ্যের লোক মনে হয় ৷
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগানিস্তান


আরও
আরও পড়ুন