Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

হেলমান্দে দাড়ি কামানো বা ছাঁটার ওপরে নিষেধাজ্ঞা তালেবানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৪:৩৯ পিএম

দাড়ি কামানো অথবা ছোট করে রাখা ইসলামি আইন লঙ্ঘন করে বলে দাবি । এ কারণে আফগানিস্তানের হেলমান্দ প্রদেশে দাড়ি কামানো অথবা ছাঁটার ব্যাপারে নরসুন্দরদের উপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে তারা।

রোববার তালেবানরা নরসুন্দরদের আনুষ্ঠানিক নোটিশ দিয়েছে। যাতে বলা হয়েছে চুল ও দাড়ির ক্ষেত্রে ইসলামি আইন অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে। এতে আরও বলা হয়েছে এই ব্যাপারে কোন ধরনের অভিযোগ করার অধিকার কারো নেই। নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘনকারীদের কঠোর সাজা দেয়ার হুমকি দেয়া হয়েছে।

তালেবানদের এমন আদেশে পেশাগতভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন নরসুন্দরেরা। কাবুলের বেশ কিছু নরসুন্দরও জানিয়েছেন, তারাও একই ধরনের আদেশ পেয়েছেন। একজন নরসুন্দর জানিয়েছেন, তালেবান যোদ্ধারা প্রতিনিয়ত তাদের কাছে আসছেন এবং শাসিয়ে যাচ্ছেন যে, যারা আদেশ অমান্য করছে তাদের ধরার জন্য পুলিশ পাঠানো হবে।

কাবুলের সবচেয়ে বড় হেয়ার-ড্রেসিং দোকানের মালিক জানিয়েছেন, তিনি একটি ফোন কল পেয়েছেন। নিজেকে সরকারি কর্মকর্তা বলে পরিচয় দিয়ে তাকে একজন হুমকি দিয়েছেন ‘মার্কিন স্টাইল’ অনুসরণ না করার জন্য। নরসুন্দরেরা জানিয়েছেন তালেবানদের এমন আদেশে তারা পেশাগতভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।

একজন নরসুন্দর বলেছেন, ‘আমি ১৫ বছর ধরে এই পেশায় আছি। কিন্তু আমি আর চালিয়ে যেতে পারব বলে মনে হচ্ছে না।’ তার সেবাগ্রহীতাদের দাড়ি কামানো বন্ধ করে দিয়েছেন। দাম কমিয়েও খদ্দের আকর্ষণ করা যাচ্ছে না বলে জানাচ্ছেন তিনি।

এমন আদেশ তালেবানের অতীত শাসনামলে ফিরে যাওয়ার ইঙ্গিত দেয়। যদিও তারা আগের মতো অত কঠোর নিয়মকানুন রাখবে না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ পর্যন্ত সময়কালে তালেবান শাসনামলে জমকালো চুল না রেখে বরং পুরুষদের দাড়ি রাখার ব্যাপারে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তারপরও দাড়ি চেঁছে ফেলা অথবা বিভিন্ন কায়দার চুল-দাড়ি রাখা আফগানিস্তানে জনপ্রিয় হয়েছে।

গত মাসে আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলে নেবার পর থেকে অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর সাজা আরোপ করছে তালেবান। শনিবার হেরাত প্রদেশে বন্দুকযুদ্ধে নিহত চারজন অপহরণকারীর লাশ অন্যদের জন্য দৃষ্টান্ত হিসাবে রাস্তায় ঝুলিয়ে রাখা হয়। সূত্র: বিবিসি বাংলা।

 



 

Show all comments
  • Dadhack ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০:১১ পিএম says : 0
    Excellent news. Those who are muslim they cannot shave off their beard, not even trim like kafir. Importance of the Beard in the words of Rasulullah (Sallallahu Alayhi Wasallam): (1) Rasulullah (Sallallahu Alayhi Wasallam) said "I have no connection with one who shaves, shouts and tears his clothing e.g. in grief or affication." - Reported by Abu Darda (R.A.) in Muslim, Hadith no. 501 (2) The teachings of Hadhrat Ammar Bin Yaasir, Abdullah Ibn Umar, Sayyidina Umar, Abu Hurairah and Jaabir (R.A.), indicate that ALL used to keep beards that were one fist length or more. Hadhrat Jaabir (R.A.) had said: "We used to grow long beards and only during Hajj and Umrah did we trim them to the required length (i.e. fist length)." (3) Hadhrat Abdullah Ibn Umar (R.A.) relates that: "He who imitates the kuffar (non-believers) and dies in that state, he will be raised up with them on the Day of Qiyamat (Judgment)." (4) Rasulullah (Sallallahu Alayhi Wasallam) says: "Trim closely the moustache, and let the beard flow (Grow)." - Narrated Ibn Umar (R.A.) in Muslim, Hadiith no. 498 (5) "Rasulullah (Sallallahu Alayhi Wasallam) ordered us to trim the moustache closely and spare the beard" says Ibn Umar. - Muslim, Hadith no. 449 (6) Rasulullah (Sallallahu Alayhi Wasallam)said: "Act against contrary to the polytheists, trim closely the moustache and grow the beard." - Reported by Ibn Umar (R.A.) in Muslim, HHadith no. 500 (7) Rasulullah (Sallallahu Alayhi Wasallam) said "Trim closely the moustache and grow the beard." - Reported by Abu Hurairah (R.A.) in Musliim, Hadith no. 501 (8) Rasulullah (Sallallahu Alayhi Wasallam) said: "Anyone who shaves has no claim to the mercy of Allah" - Reported by Ibn Abbas (R.A.) in Tibrabi< (9) Hadhrat Abdullah Ibn Umar (R.A.) used to cut that portion (which exceeds the grip of the hand) of the beard. - Tirmidhi
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তালেবান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ