Inqilab Logo

সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২ কার্তিক ১৪২৮, ১০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

১৪ নভেম্বর এসএসসি-দাখিল ও ২ ডিসেম্বর এইচএসসি-আলিম পরীক্ষা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে দীর্ঘ দেড় বছর ধরে বন্ধ থাকার পর গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে খুলে দেয়া হয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। শিক্ষার্থীরা ক্লাসে ফেরার পর করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকায় এবার আটকে থাকা চলতি বছরের এসএসসি-দাখিল ও এইচএসসি-আলিম পরীক্ষা গ্রহণের তারিখ ঘোষণা করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ। আগামী ১৪ নভেম্বর এসএসসি-দাখিল পরীক্ষা এবং ২ ডিসেম্বর এইচএসসি-আলিম পরীক্ষা শুরু হবে। সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা এবং বিকাল ২টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত দুই ধাপে পরীক্ষা হবে। গতকাল সোমবার মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে পরীক্ষা দুটির চূড়ান্ত সূচি প্রকাশ করা হয়, যার অপেক্ষায় ছিল প্রায় ৩৫ লাখ শিক্ষার্থী। যদিও এর আগে ১৪ নভেম্বর থেকে এসএসসি সমমানের দাখিল পরীক্ষা শুরুর সময়সূচি প্রকাশ করেছিল মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড।

বিগত এক দশকের রীতি অনুযায়ী চলতি বছরের এসএসসি-দাখিল পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল গত ফেব্রুয়ারিতে এবং এইচএসসি-আলিম পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল এপ্রিলে। কিন্তু করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে এই দুটি পরীক্ষা নির্ধারিত সময়ের অনেক পরে নিতে যাচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। যদিও গতবছর করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার আগে এসএসসি-দাখিল পরীক্ষা নেয়া হলেও এইচএসসি-আলিম পরীক্ষা নিতে পারেনি মন্ত্রণালয়। পরবর্তীতে পরীক্ষায় জেএসসি-জেডিসি ও এসএসসি-দাখিল পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হয় গত জানুয়ারিতে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে আগেই জানিয়ে দেয়া হয়েছে, এবার পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে এসএসসি-দাখিল ও এইচএসসি-আলিমে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে কেবল নৈর্বচনিক বিষয়গুলোর পরীক্ষা নেওয়া হবে। বাংলা, ইংরেজির মত আবশ্যিক বিষয়গুলোতে পরীক্ষা না নিয়ে আগের পাবলিক পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে মূল্যায়ন করা হবে বলে জানিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। তিনি বলেছিলেন, এসএসসির ক্ষেত্রে জেএসসি এবং এইসএসসির ক্ষেত্রে জেএসসি ও এসএসসির ফলাফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের আবশ্যিক বিষয়গুলোর নম্বর দেয়া হবে। এসব বিষয়ে কোনো অ্যসাইনমেন্ট নেওয়া হচ্ছে না। এতে এসএসসিতে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে তিনটি এবং এইচএসসিতে ছয়টি বিষয়ের পরীক্ষায় বসতে হবে।

প্রকাশিত রুটিন অনুযায়ী, আগামী ১৪ নভেম্বর সকালে বিজ্ঞান বিভাগের পদার্থবিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) পরীক্ষার মধ্য দিয়ে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হবে। পরদিন ১৫ নভেম্বর সকালে বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্ব সভ্যতা, বিকালে হিসাব বিজ্ঞান পরীক্ষা হবে। ১৬ নভেম্বর সকালে রসায়ন (তত্ত্বীয়), ১৮ নভেম্বর সকালে শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া (তত্ত্বীয়), ২১ নভেম্বর সকালে ভূগোল ও পরিবেশ এবং বিকালে ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং বিষয়ের পরীক্ষা হবে। এরপর ২২ নভেম্বর সকালে উচ্চতর গণিত ও জীববিজ্ঞান, ২৩ নভেম্বর সকালে পৌরনীতি ও নাগরিকতা, অর্থনীতি এবং বিকালে ব্যবসায়িক উদ্যোগ বিষয়ের পরীক্ষা হবে। পরীক্ষা শুরুর তিনদিন আগে শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠান থেকে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে বলা হয়েছে।

আর দাখিলের পূর্বঘোষিত রুটিনে- ১৪ নভেম্বর কুরআন মাজিদ ও তাজভিদ বিষয়ের মধ্য দিয়ে পরীক্ষা শুরু হবে। একই দিন পদার্থ বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) পরীক্ষাও হবে। ১৮ নভেম্বর হাদিস শরিফ। ২১ নভেম্বর ইসলামের ইতিহাস, রসায়ন (তত্ত্বীয়), তাজভিদ নসর ও নজম (মুজাব্বিদ গ্রুপ), তাজভিদ (হিফজুল কুরআন গ্রুপ)।

এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হবে ২ ডিসেম্বর সকালে পদার্থবিজ্ঞান প্রথমম পত্র পরীক্ষার মাধ্যমে। শেষ হবে ৩০ ডিসেম্বর সকালে সমাজবিজ্ঞান দ্বিতীয় পত্র, সমাজকর্ম দ্বিতীয় পত্র এবং বিকালে ক্রীড়া দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষার মাধ্যমে।

এদিকে আলিম পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করা না হলেও বিগত বছরগুলোতে এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষা একই দিনে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। তাই ওই দিনেই মাদরাসা বোর্ডের অধীনে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। #



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

১৮ অক্টোবর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ