Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য ‘মিথ্যার ফুলঝুরি’ ছাড়া কিছু নয়: ইরান

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১১:১৩ এএম

ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেত জাতিসংঘে দেয়া বক্তব্যে ইরান সম্পর্কে যে বাগাড়ম্বর করেছেন তা প্রত্যাখ্যান করেছে তেহরান। ইরান বলেছে, বেনেতের বক্তব্য ‘মিথ্যার ফুলঝুরি’ ছাড়া আর কিছু নয়।

জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি মাজিদ তাখতে রাভাঞ্জি নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে দেয়া এক পোস্টে এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ইরানের শান্তিপূর্ণ পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কে কথা বলার অধিকার শত শত পরমাণু অস্ত্রের অধিকারী ইসরাইলের নেই। রাভাঞ্চি আরো লিখেছেন, জাতিসংঘে চলতি বছর ‘ইরান ভীতি’ ছড়িয়ে দেয়ার কাজকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেছে তেল আবিব।

সোমবার জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনে দেয়া ভাষণে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনেত ইরানের পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কে তেল আবিবের পুরনো অভিযোগগুলোর পুনরাবৃত্তি করেন।

গত কয়েক বছরে পরমাণু শিল্পের গবেষণা ও বিকাশে ইরান অনেকদূর অগ্রসর হয়েছে বলে স্বীকার করেন বেনেত। তিনি বলেন, মুখের কথায় আর ইরানের সেন্ট্রিফিউজগুলোর কার্যক্রম বন্ধ করা যাবে না।

ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী দাবি করেন, ইরানের ‘পরমাণু অস্ত্র তৈরির কর্মসূচি’ এমন অবস্থায় চলে গেছে যেখান থেকে আর ফিরে আসা সম্ভব নয়। বেনেত আরো দাবি করেন, ইরানের পরমাণু কর্মসূচি ‘সবগুলো রেডলাইন’ অতিক্রম করেছে।

ইহুদিবাদী প্রধানমন্ত্রী এমন সময় ইরানের বেসামরিক পরমাণু কর্মসূচিকে ‘অস্ত্র তৈরির কর্মসূচি’ হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা করলেন যখন তেল আবিবের কাছে অন্তত ২০০টি পরমাণু অস্ত্র রয়েছে। এছাড়া, ইসরাইল এখন পর্যন্ত তার গোপন পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি তদারকি করতে জাতিসংঘকে অনুমতি দেয়নি।

পক্ষান্তরে ইরান পরমাণু অস্ত্র বিস্তার রোধ চুক্তিতে সই করেছে এবং দেশটির পরমাণু কর্মসূচি জাতিসংঘের সরাসরি তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হচ্ছে।

সূত্র: পার্সটুডে



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইরান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ