Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে নির্যাতন থানায় মামলা

প্রকাশের সময় : ১০ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের পূর্বগ্রাম এলাকায় দাবিকৃত যৌতুকের ৫ লাখ টাকা না পেয়ে স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন শারমিন আক্তার নামে এক গৃহবধূর উপর পাশবিক নির্যাতন চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রোববার সকালে গৃহবধূ শারমিন আক্তারের পিতা মোহাম্মদ আলী বাদি হয়ে পাষÐ স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজনদের আসামি করে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।
গৃহবধূর পিতা মোহাম্মদ আলী জানান, তাদের বাড়ী উপজেলার মুশুরী এলাকায়। গত ৫ বছর আগে পূর্বগ্রাম এলাকার হারুন অর রশিদের ছেলে শফিকুল ইসলামের সঙ্গে শারমিন আক্তারের বিয়ে দেন। মেয়ের সুখের চিন্তা করে বিয়েতে ২ ভরি স্বর্ণালংকার, স্টীলের আলমারি, খাট, সোকেচ, ড্রেসিংটেবিল, ওয়ারড্রপসহ প্রায় আড়াই লাখ টাকার মালামাল দেয়া হয়। তাদের সংসারে আদিব নামে ৪ বছরের সন্তান রয়েছে। বেশ কিছু দিন ধরেই পারিবারিক বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে স্বামী শফিকুল ইসলামসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন শারমিন আক্তারকে জ্বালা যন্ত্রণা ও মারধরসহ নির্যাতন চালিয়ে আসছে। এ ছাড়া যৌতুক হিসেবে ৫ লাখ টাকা দাবি করা হয়। নির্যাতনের পরও সন্তান আদিবের মুখের দিকে চেয়ে শারমিন আক্তার ঘর-সংসার করে আসছিলো। গত শনিবার রাতে দাবিকৃত যৌতুকের টাকা দিতে অস্বীকার করলে স্বামী শফিকুল ইসলামসহ শ্বশুর হারুন অর রশিদ, ভাসুর আরজু রশিদসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন ঘুষি মেরে শারমিন আক্তারের নাক-মুখ থেতলে দেয়। এক পর্যায়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে পিটিয়ে আহত করা হয়। পরে এ ঘটনায় শারমিন আক্তারের পিতা মোহাম্মদ আলী বাদি হয়ে রূপগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে নির্যাতন থানায় মামলা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ