Inqilab Logo

সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৯ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হওয়া পর্যন্ত টিকাদান চলবে

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে দেশব্যাপী কর্মসূচি সাংবাদিকদের ড. আহমদ কায়কাউস

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

প্রধানমন্ত্রীর জন্ম দিন উপলক্ষে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে দেশব্যাপী একযোগে টিকাদান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই দিনে ৭৫ লাখ মানুষকে কোভিড-১৯ টিকা দানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। ইউনিয়ন, ওয়ার্ড থেকে শুরু করে সিটি কর্পোরেশন ও শহর এলাকা জুড়ে এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। কর্মসূচিতে সরকারি, বেসরকারি ও সেচ্ছাসেবীসহ প্রায় ৮০ মানুষ অংশ নেয়।

টিকাদান কর্মসূচির অগ্রগতি পর্যবেক্ষণে গতকাল ধানমন্ডি ৮/এ, ডিঙি রেস্টুরেন্ট সংলগ্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস। এসময় স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রফেসর ডা. এবিএম খুরশিদ আলমসহ অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের মুখ্যসচিব বলেন, সারাদেশে একযোগে টিকাদান কর্মসূচি সুষ্ঠুভাবে পালিত হচ্ছে। দেশের মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে টিকাদান কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছে। এই কর্মসূচি আমাদের লক্ষ্যমাত্রা পুরণ না হওয়া পর্যন্ত চলমান থাকবে। খোজ নিয়ে জানা গেছে, যেসব কেন্দ্রে লক্ষ্যমাত্রা পুরণ হয়নি সেসব কেন্দ্রে বিকেল ৫টা পর্যন্ত টিকাদান চলমান ছিল।

প্রসঙ্গত, সারাদেশের সাথে রাজধানীর ঢাকা মেডিকেল কলেজ, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতাল ও কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালেও এই কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫ তম জন্মদিনকে স্মরণীয় করে রাখতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে যুক্ত সকল সংগঠনকে আনুমানিক ৭৫ লক্ষ্য মানুষকে টিকাদানের কর্মসূচি গ্রহণ করেন। পাশপাশি এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের মর্যাদা অক্ষুণ্য রাখতে নির্দেশনা দেন। এর আগে গত সোমবার কর্মসূচিটি উপলক্ষে স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে জানানো হয়, ১) এদিন সারাদেশের সকল সিটি কর্পরেশন, পৌরসভা, উপজেলা ও ইউনিয়নে দিনব্যাপী এই ক্যাম্পেইন পরিচালিত হবে যা শুরু হবে সকাল ৯টা থেকে। ২) এই ক্যাম্পেইনে শুধুমাত্র ১ম ডোজ টিকা দেওয়া হবে। ৩) পরবর্তী মাসে একইভাবে ক্যাম্পেইন এর মাধ্যমে ২য় ডোজ প্রদান করা হবে। ৪) ক্যাম্পেইনের আগে নিবন্ধনকৃত ২৫ বছর বয়োষোর্ধ নাগরিকদের এসএমএস প্রদানের মাধ্যমে অবহিত করে কেন্দ্রে ডাকা হবে। ৫) ক্যাম্পেইন শুরুর প্রথম ২ ঘন্টা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পঞ্চাষোর্ধ বয়স্ক নাগরিক, নারী ও শারিরীক প্রতিবন্ধীদের টিকা দেওয়া হবে ৬) টিকা নিতে এনআইডি কার্ড ও টিকা কার্ড সাথে আনতে হবে। ৭) ক্যাম্পেইনে গর্ভবতী ও দুগ্ধদানকারী নারীদের টিকা প্রদান করা হবেনা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ