Inqilab Logo

শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

কঙ্গোতে যৌন হয়রানি করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কর্মীরা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

২০১৮ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ইবোলা প্রাদুর্ভাবের সময় কঙ্গো প্রজাতন্ত্রে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কর্মীরা বিপুল সংখ্যক নারী ও কিশোরীকে যৌন হয়রানি করেছিল। সংস্থাটির স্বাধীন তদন্ত কমিশনে বিষয়টি উঠে এসেছে। মঙ্গলবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক টেডরস আধানম প্রতিবেদনকে ‘ভয়াবহ’ বলা উল্লেখ করেছেন। আর সংস্থার আফ্রিকা অঞ্চলের পরিচালক মাতশিদিসো মোয়েতি বলেছেন, তিনি ‘অপমানিত, ভীত এবং ভগ্নহৃদয়।’ স্বাধীন তদন্ত কমিশন ১৩ থেকে ৪৩ বছর বয়সী প্রায় ৮০ জন নারী ও কিশোরীর সাথে কথা বলেছে। এই নিপীড়নের সাথে জড়িত ২১ কর্মীকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এদের মধ্যে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক কর্মী রয়েছেন। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এসব কর্মীদের বিরুদ্ধে ধর্ষণসহ নিপীড়নের গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। ধর্ষণের শিকার নারীদের মধ্যে ২৯ জন নারী গর্ভবতী হয়েছেন। অভিযুক্ত কর্মীদের কেউ কেউ এসব নারীদের গর্ভপাতে বাধ্য করেছিলেন। পশ্চিমা ক‚টনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, অভিযুক্তদের মধ্যে চার জনকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে এবং দুজনকে বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। রয়টার্স।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কঙ্গো


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ