Inqilab Logo

শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২১ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

কুড়িয়ে পাওয়া শিশুটিকে তার মায়ের কাছে হস্তান্তর করলো ছাতক থানা পুলিশ

ছাতক (সুনামগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৩৭ পিএম

সুনামগঞ্জের ছাতকে কুড়িয়ে পাওয়া সেই প্রতিবন্ধী শিশুটিকে দীর্ঘ ১৮ঘন্টা প্রচেষ্টার পর তার মায়ের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ। শনিবার বেলা ৩টায় ছাতক থানার সেকেন্ড অফিসার (শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা), উপ-পরিদর্শক হাবিবুর রহমান পিপিএম, উপ-পরিদর্শক আনোয়ার মিয়া, ও উপজেলা প্রবেশন কর্মকর্তা'র প্রতিনিধির সমন্বয়ে শিশুটিকে তার মায়ের জিম্মায় দেয়া হয়। এসময় থানা পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

থানার উপ-পরিদর্শক আনোয়ার মিয়া জানান, শুক্রবার (১ অক্টোবর) রাত ৯টার দিকে উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ ট্রাফিক পয়েন্ট এলাকায় বাক প্রতিবন্ধী ওই শিশুটিকে কুড়ে পায় স্থানীয় সিএনজি অটো-রিকশা চালক মাঈনুদ্দিন। পরে থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করা হলে তিনি শিশুটিকে গোবিন্দগঞ্জ থেকে থানায় নিয়ে আসেন এবং দীর্ঘ ১৮ ঘন্টা প্রচেষ্টা শেষে শিশুটিকে শনাক্তের পর তার মা নিরালা বেগমের জিম্মায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ নাজিম উদ্দিন জানান, শনাক্ত পূর্বক সেই প্রতিবন্ধী শিশুটিকে তার মায়ের জিম্মায় প্রদান করা হয়েছে। শিশুটির নাম মেহেদি হাসান সুমন (১১)। সে সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের মানিককিলা গ্রামের খুরশিদ আলমের পুত্র। সুমন তার মা ও ভাইয়ের সাথে বসবাস করে আসছিলো সিলেটের পীরমহল্লার বনকলাপাড়ায়। গত ১ অক্টোবর সকালে তাদের সিলেটস্থ ভাড়াটিয়া বাসা থেকে শিশুটি নিখোঁজ হয়েছিল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সুনামগঞ্জ

১১ অক্টোবর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ