Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সাকিবকে খেলানোর আভাস কোচের

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০০ এএম

প্রীতি জিনতার দল গতপরশু পাঞ্জাব কিংসের কাছে হেরে আইপিএলের প্লে অফ কঠিন হয়ে গেছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের। শেষ দুই ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও রাজস্থানের বিপক্ষে জিততে পারলে তাদের শেষ চার নিশ্চিত হবে। কাজটা কঠিন নয় তবে অসাধ্য সাধন করতে প্রয়োজন সেরা টিম কম্বিনেশন।

কলকাতার সেরা তারকা আন্দ্রে রাসেল চোটের কারণে দলে নেই। বিদেশি ক্রিকেটার ও অধিনায়ক এউইন মরগ্যান, টিম সাউদি নেই ফর্মে। লকি ফার্গুসনও ভালো করতে পারছেন না। দলের এমন অবস্থায় টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ের এক নম্বর অলরাউন্ডার সাকিব দলে সুযোগ পান না। পাঞ্জাবের বিপক্ষে ম্যাচে দলে সুযোগ পান কিউই ক্রিকেটার টিম সেইফার্ট। ভালো করতে পারেননি তিনি। সাকিবকে বেঞ্চে রেখে কেন সেইফার্টকে নেওয়া হয়েছিল? কলকাতার কোচ ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ম্যাচ শেষে দিয়েছেন ব্যাখ্যা, ‘সাকিব অবশ্যই নির্বাচনের জন্য বিবেচনায় আছে। আমাদের স্কোয়াডে আরো অনেকেই মাঠে নামতে মুখিয়ে। কোচ হিসেবে আপনাকে সব সময়ই কঠিন দায়িত্ব নিতে হয়। টিম সেইফার্ট ট্রিনিবাগো নাইট রাইডার্সের হয়ে সিপিএলে ভালো করেছে। এজন্যই তাকে বেছে নেওয়া হয়েছে।’
সিপিএলে ম্যাককালামের দল ট্রিনিবাগোর হয়ে সেন্ট লুসিয়ার বিপক্ষে ১৬ বলে ৪০ রান করেছিলেন সেইফার্ট। এক ম্যাচ পর একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ২৫ বলে ৩৭ রান করেন তিনি। দুই ইনিংসে কোচের মন জয় করে আইপিএলে সুযোগ পেলেও সেইফার্ট শেষদিকে ব্যাটিংয়ে নেমে ৪ বলে ২ রান করেন। স্বদেশি সেইফার্টকে নিয়ে ম্যাকক্যালাম আরো বলেন,‘আমাদের মনে হয়েছে মধ্যভাগে শক্তি বাড়ানো প্রয়োজন। কারণ আমরা শুরুতে ভালো করছি। এজন্য টিমকে একটু পেছনে পাঠিয়ে মরগ্যান ও কার্তিককে লম্বা সময় ব্যাটিংয়ের সুযোগ দিয়েছি।’
শেষ দুই ম্যাচে সাকিবকে একাদশে দেখা যাবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে কলকাতার কোচ বলেন, ‘নির্বাচনের কথা বললে সাকিব সব সময়ই বিবেচনায় থাকে, কারণ তার সামর্থ্য। বাম হাতের অর্থোডক্স বল করার ক্ষমতা এবং তার ব্যাটিং, সম্ভবত তাকে ৩ নম্বরে ব্যাটিং করানোও যাবে। তবে এর মানে এই নয় যে, সে যেকোনো পজিশনে গিয়ে খেলতে পারবে না। নির্বাচনে সব সময়ই তার নাম উঠে আসে। আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি পরবর্তী ম্যাচেও তাকে বিবেচনায় আনা হবে।’
আইপিএলের শুরু থেকে অবশ্য সাকিব নিয়মিত খেলেছেন। তবে তার পারফরম্যান্স সন্তোষজনক ছিল না। তিন ম্যাচে করেন মাত্র ৩৮ রান, বল হাতে নিয়েছিলেন দুই উইকেট। এরপর দল থেকে বাদ পড়েন।
এরআগে আইপিএলে গতপরশু রাতের ম্যাচ শুরু হতেই টুইট করেন আকাশ চোপড়া, ‘সাকিব যদি কিউই হতো...।’ ভারতের সাবেক ক্রিকেটার ও বর্তমানে বিশ্লেষক আকাশ চোপড়ার টুইটে অসম্পূর্ণ বাক্যটি আসলে খোঁচা। সেটি সম্ভবত কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রধান কোচকে তাক করে। চোপড়া বোঝাতে চেয়েছেন, বাংলাদেশের বাঁহাতি অলরাউন্ডার নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড় হলে হয়তো কলকাতার একাদশে সুযোগ পেতেন।
ভারতের হয়ে ৭ টেস্ট খেলা এবং আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংস ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর প্রতিনিধিত্ব করা ব্যাটসম্যান অভিনব মুকুন্দ আকাশ চোপড়ার টুইটের মন্তব্যে ব্যাখ্যা দেন, ‘সে (সাকিব) খেললে প্রথম ৭ ব্যাটসম্যানের মধ্যে ৫ জনই হতো বাঁহাতি। ত্রিপাঠি তিনে যেহেতু খুব ভালো করছে, দুর্ভাগ্যজনকভাবে সাকিবকে এর নিচে তো আর খেলানো যায় না। এদিক ভেবে দেখেছেন?’
মুকুন্দের মন্তব্যের জবাব আকাশ চোপড়া দেন এভাবে, ‘আমার কথা হলো লকির জায়গায় একজন ব্যাটসম্যান খেলানো যায় না। ৪ ওভার বোলিংয়ের সুযোগ তো রাখতে হবে। (ম্যাচ চলাকালে) এখন আইয়ার ও নীতিশকে ৪ ওভার ভাগ করে নিতে হবে। কোনো বোলারই তো বিশ্রাম পাচ্ছে না।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সাকিব

১৩ অক্টোবর, ২০২১
৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
১০ আগস্ট, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ