Inqilab Logo

বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

প্রধান স্থল ও সমুদ্র বন্দরের দ্রুত যোগাযোগ ব্যবস্থার লক্ষ্যে যশোর-বরিশাল-চট্টগ্রাম ফ্লাইট চালুর দাবী

নাছিম উল আলম | প্রকাশের সময় : ১০ অক্টোবর, ২০২১, ১০:০৭ এএম

দেশের ৩টি প্রশাসনিক বিভাগ এবং প্রধান স্থল বন্দর বেনাপোল,ভোমড়া ছাড়াও পায়রা, মোংলা ও চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দরকে সরাসরি আকাশ পথে সংযুক্তির লক্ষে যশোরÑচট্টগ্রাম রুটে রাষ্ট্রীয় বিমান ফ্লইট চালুর সব আয়োজন সম্পন্নের ৭ মাস পরেও তা বাস্তবায়ন হয়নি। পাশাপাশি ঐ সেক্টরে বরিশোলকে অন্তর্ভূক্তির দাবীটিও হারাতে বসেছে। অথচ দেশের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ যশোর-চট্টগ্রাম রুটের প্রস্তাবিত ঐ ফ্লইটটি বরিশালকে অন্তর্র্ভূক্ত করে চালুর দাবী জানিয়ে আসছে। তবে গত ১ অক্টোবর থেকে প্রায় দেড়গুন ভাড়ায় বেসরকারী ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স যশোর-চট্টগ্রাম ফ্লাইট চালু করেছে। বেসামরিক বিমান চলাচল প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী যশোর বিমান বন্দরে এ ফ্লইট উদ্বোধন করেন। বরিশাল প্রেসক্লাব ও বরিশাল চেম্বার সভাপতি সহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বাস্তবতার নিরিখে অবিলম্বে যশোরÑবরিশালÑচট্টগ্রাম আকাশ পথে জাতীয় পতাকাবাহী বিমান ফ্লাইট চালুর দাবী জানিয়েছেন।
পুরনো দুটির সাথে নতুন ৩টি ‘ড্যাস-৮’ এয়াক্রাফট নিয়ে গত মার্চের মধ্যভাগ থেকে দেশের সব অভ্যন্তরীন সেক্টরে নতুন করে বিমান তার ফ্লাইট চালু করে। এসময় ২৮ মার্চ থেকে প্রতি মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার যশোরÑচট্টগ্রাম রুটে এবং রবি ও বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামÑযশোর রুটে বিমান যাত্রী পরিবহনের ঘোষনা দিয়ে সিডিউল ঘোষনা করে। এ রুটে এক পথে ভাড়া নির্ধরন করা হয়েছিল ৪ হাজার ২শ টাকা । গত ২৬ মার্চ বরিশাল সেক্টরে নিয়মিত ফ্লাইট চালু উপলক্ষে স্থানীয় একটি হোটেলে এক অনুষ্ঠানে বিমান-এর এমডি ও পরিচালক-প্রশাসন অংশ নেন। অনুষ্ঠানে সর্র্বস্তরের মানুষের পক্ষ থেকে প্রস্তাবিত যশোরÑচট্টগ্রাম ফ্লাইট পুনরায় চালুর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে এ আকাশ পথে বরিশালকে সংযুক্তিরও দাবী জানান। এ প্রেক্ষিতে বিমান কতৃপক্ষ বিষয়টির সাথে নীতিগত একমত পোষন করে পরিক্ষা নিরিক্ষা করে সিদ্ধান্ত গ্রহনের কথাও জানিয়েছিলেন।
কিন্তু করোনা মহামারী ভয়াবহ বিস্তারে বিমান-এর ঐ ফ্লাইট আর চালু করা যায়নি। ইতোমধ্যে পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হয়ে আাসলেও বিমান কতৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে আর কোন উদ্যোগ গ্রহন করেনি। তবে গত ৭ অক্টোবর বিমান সৈয়দপুর-কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট চালু করেছে।
অপরদিকে বেসরকারী ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স গত ১ অক্টোবর থেকে প্রায় দেড়গুন ভাড়ায় যশোরÑচট্টগ্রাম আকাশ পথে ফ্লাইট চালু করলেও বরিশালকে অন্তভর্’ক্ত করেনি। প্রতিষ্ঠানটির দায়িত্বশীলদের মতে, খুব শিঘ্রই তাদের বহরে নতুন এয়াক্রাফট যোগ হলেই বরিশালের সাথে চট্টগ্রামের ফ্লইট চালু হবে।
উল্লেখ্য, ১৯৭৮ থেকে প্রায় ’৯০ সাল পর্যন্ত যশোরÑচট্টগ্রাম রুটে সপ্তাহে দুদিন বিমান ফ্লাইট পরিচালন করে। পরবর্তীকালে বিমান-এরই একটি মহলের অনিহার কারণে যাত্রীবান্ধব এ আকাশ পরিসেবা বন্ধ হয়ে যায়। ফলে সুদুর চট্টগ্রাম থেকে সমগ্র খুলনা বিভাগ ছাড়াও বেনাপোল ও ভোমড়া স্থল বন্দর ও মোংলার সহজ যোগাযেগটি বন্ধ হয়ে যায়। এমনকি চট্টগ্রামের যেসব ব্যবসায়ীগন বেনাপোল হয়ে ভারতের সাথে বিভিন্ন পণ্য অমদানীÑরপ্তানী করছেন তাদের দূর্ভোগও বর্ণনাতীত। চট্টগ্রাম থেকে কোলকাতা সহ ভারতের বিভিন্নস্থানে যাতায়াকারী যত্রীদেরও সীমাহীন দূর্ভোগ সহ্য করে ১৮Ñ২০ ঘন্টায় বেনাপোল যেতে হচ্ছে।
অপরদিকে, বরিশাল থেকে ঢাকা হয়ে সুদুর চট্টগ্রামে পৌছতে এখনো ২০Ñ২৪ ঘন্টা সময় লাগছে। অথচ ব্যাবসা-বানিজ্য সহ পেশাগত কারণে দক্ষিণাঞ্চলের ৩ লক্ষাধীক মানুষ চট্টগ্রাম মহনগরীতে বসবাস করছেন। এছাড়াও প্রতিদিন যে বিপুল সংখ্যক যাত্রী বিভিন্ন প্রয়োজনে বরিশাল থেকে যশোর,বেনাপোল বা ভারতে যাতায়াত করেন, তাদেরও সড়ক পথে পৌছতে প্রায় ৮ ঘন্টা সময় লাগছে। এসব বিচেনায় দক্ষিনাঞ্চলবাসী দীর্ঘদিন ধরেই যশোর-বরিশাল-চট্টগ্রাম আকাশ পথে বিমান-এর ফ্লাইট চালুর দাবী জানিয়ে আসছেন।
এ ব্যপারে বিমান-এর পরিচালক বিক্রয় ও বিপনন সিদ্দিকুর রহমান-এর সাথে আলাপ করা হলে তিনি যশোরÑবরিশালÑচট্টগ্রাম ফ্লাইটের প্রয়োজনীয়তার সাথে একমত পোষন করে বিষয়টি সম্পর্কে খোজ নিয়ে সম্ভব সব কিছু করবেন বলে জানান।
বরিশাল চেম্বারের সভাপতি সঈদুর রহমান রিন্টু অবিলম্বে যশোর Ñ বরিশাল Ñ চট্টগ্রাম রুটে বিমান-এর ফ্লাইট চালুর দাবী জানিয়ে এতে দক্ষিণাঞ্চলের আমজনতার দীর্ঘদিনের বিড়ম্বনার অবশান হবে বলে জানান। বরিশাল প্রেসক্লাব সভাপতি মু. ইসমাইল হোসেন নেগাবান পায়রা সমুদ্র বন্দর ও কুয়াকাটা পর্যটন কেন্দ্র সহ সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলকে চট্টগ্রাম ও খুলনা-যশোর-বেনাপোলের সাথে সংযূক্তির লক্ষে যশোরÑবরিশালÑচট্টগ্রাম রুটে আকাশ পরিসেবা চালুর দাবী জানিয়েছেন। এতেকরে দেশের ৩টি প্রশাসনিক বিভাগের মধ্যে সহজ ও দ্রুত যোগাযোগ চালু হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যোগাযোগ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ