Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

পাক-ভারত মহারণ আট-দশটা ম্যাচের মতোই!

চাপ নিচ্ছেন না রিজওয়ান

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০১ এএম

সব ম্যাচের সেরা ম্যাচ পাক-ভারত ম্যাচ- ক্রিকেট বিশ্বে এমন কথা অনেককেই বলতে শোনা যায়।

এই দুই দলের লড়াই অনেক সময়ই হয়ে ওঠে খেলার চেয়েও বড় কিছু। মাঠের সীমানা ছাড়িয়ে তা নাড়া দেয় দুই দেশের রাজনীতি থেকে শুরু করে সবকিছুতেই। এই রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে এখন আর দ্বিপক্ষীয় সিরিজে মুখোমুখি হয় না দল দুটি। একমাত্র আইসিসি কিংবা এসিসির টুর্নামেন্টেই দেখা যায় পাক-ভারত দ্বৈরথ। সর্বশেষ ইংল্যান্ডে ২০১৯ বিশ্বকাপে দেখা হয়েছিল দুই দলের। সংযুক্ত আরব আমিরাতে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার টুয়েলভ পর্বে আবার দেখা হচ্ছে দুই চিরপ্রতিদ্ব›দ্বীদের। বিশ্ব ক্রিকেটেও এই ম্যাচের আবেদন বাড়তি।

হাতে এখনও সময় আছে বেশ। যথারীতি এবারের বিশ্বকাপে দুই দলের লড়াইকে ঘিরেও চড়তে শুরু করেছে উত্তেজনার পারদ। শুরু হয়ে গেছে ম্যাচটির সম্ভাব্য ফল নিয়ে নানা ধরনের ভবিষ্যদ্বাণীও। শুধু ক্রিকেটপ্রেমীরাই নন, এসব নিয়ে আলোচনায় মেতেছেন দুই দলের সাবেক ক্রিকেটাররাও। কদিন আগে পাকিস্তানের সাবেক ফাস্ট বোলার আকিব জাভেদ ম্যাচটি নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করতে গিয়ে একতরফাভাবে ভারতকেই এগিয়ে রাখার কথা বলেছেন। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে কে জিতবে, এটা নিয়ে এবার কথা বলেছেন পাকিস্তানের আরেক সাবেক তারকা শহীদ আফ্রিদি। পাক-ভারত অনেক স্মরণীয় লড়াইয়ের অংশ ছিলেন আফ্রিদি। পাকিস্তানের সাবেক এই অধিনায়ক অতীতের সেই অভিজ্ঞতা থেকে আসন্ন ম্যাচ নিয়ে শুরুতেই বলেছেন, ‘দেখুন, পাকিস্তান-ভারত ম্যাচ সব সময়ই দুই দলের খেলোয়াড়দের জন্যই বিশাল চাপের এক ম্যাচ।’
এমন চাপের ম্যাচেও দুর্দান্ত কত কীর্তিই না খেলোয়াড়দের কাছ থেকে যুগে যুগে উপহার পেয়েছে বিশ্বজোড়া ক্রিকেটপ্রেমীরা। চেতন শর্মাকে মারা জাভেদ মিয়াঁদাদের সেই ছক্কা, মুলতানে বীরেন্দর শেবাগের ত্রি’শতক, আকিব জাভেদের হ্যাটট্রিক, কানপুরে আফ্রিদির ঝড়, বিশ্বকাপে শচীনের সেই মারমার-কাটকাট ব্যাটিং... আরও কত কত অসাধারণ মুহ‚র্তই না আছে ভারত-পাকিস্তান লড়াইয়ের পরতে পরতে!

সব ধরনের ক্রিকেট মিলিয়ে ভারত-পাকিস্তান লড়াইয়ে দুই দলকে সমানে সমানই বলতে হবে। তবে মঞ্চ যখন বিশ্বকাপের, ভারত একচেটিয়া এগিয়ে। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিলিয়ে দুই দলের দেখা হয়েছে ১২ বার। ১২টি ম্যাচই জিতেছে ভারত। ওয়ানডে বিশ্বকাপে সাতটি, বাকি পাঁচটি টি-টোয়েন্টিতে। ১৩তম লড়াইয়ে এসে কি জয়ের মুখ দেখবে পাকিস্তান? তারা কিন্তু এবার ভাগ্য বদল করতে মরিয়া। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান রমিজ রাজা সম্প্রতি বলেছেন, একটি বড় বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তার কথা হয়েছে যে এবার টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তান জিতলে পিসিবিকে তারা ব্ল্যাঙ্ক চেক (টাকার অঙ্ক না বসিয়ে সই করা চেক) দেবে!

পরিস্থিতি যখন এই, কে জিতবে ২৪ অক্টোবরের সেই আগুনে লড়াই? এমন প্রশ্ন ভেসে বেড়াচ্ছে ক্রিকেট বিশ্বে। আকিব জাভেদ এ লড়াইয়ে পাকিস্তানকে পিছিয়ে রাখলেও শহীদ আফ্রিদি নির্দিষ্ট করে কিছু বলেননি। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করতে গিয়ে কৌশলী পন্থাই বেছে নিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক, ‘যে দল চাপটা ভালোভাবে সামলাতে পারবে, সে দলই জিতবে। এ ছাড়া সে দলেরই জয়ের সম্ভাবনা বেশি থাকবে, যে দলে ভুলের সংখ্যা কম হবে।’

তবে চারপাশের উত্তেজনায় বিচলিত নন মোহাম্মদ রিজওয়ান। পাকিস্তানের কিপার-ব্যাটার জানালেন, এই ম্যাচকে তারা অন্য সব ম্যাচের মতো করেই নেবেন। ৬ বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে ১৭ টেস্ট, ৪১ ওয়ানডে ও ৪৩ টি-টোয়েন্টি খেললেও এখনও ভারতের বিপক্ষে খেলার সুযোগ হয়নি তার। সব ঠিকঠাক থাকলে এবার তার সেই অভিজ্ঞতা হবে। তবে পাকিস্তানে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বললেন, এই ম্যাচকে আলাদা গুরুত্ব দেওয়া মানে বাড়তি চাপ নেওয়া, ‘ভারত-পাকিস্তান ম্যাচকে আমরা আর সব ম্যাচের মতোই দেখব। হাইপ তৈরি জয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ও সমর্থকদের মধ্যে, সেটায় কোনো সমস্যা নেই। কিন্তু আমাদের হৃদয়ে ও ভাবনায় আমরা এই ম্যাচকে অন্য সব দলের বিপক্ষে ম্যাচের মতোই দেখব। কারণ, আমরা ক্রিকেটাররা বাড়তি চাপ নিলে তা ভালো কিছু হবে না, আগেও যেমন দেখা গেছে।’

বিশ্বকাপে এই লড়াইয়ের চাপে বারবারই ভেঙে পড়েছে পাকিস্তান। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিলিয়ে ১২ বারের দেখায় একবারও তারা হারাতে পারেনি ভারতকে। রিজওয়ান চাপকে দূরে সরাতে চাইলেও অবশ্য তাদের দেশ থেকেই চেপে বসছে চাপের নানা উপকরণ। পাকিস্তানের বোর্ড প্রধান রমিজ রাজা বেশ কদিন আগেই দলকে বলেছেন, যে কোনো ম‚ল্যে হারাতে হবে ভারতকে। এই ম্যাচ জিততে পারলে এক বিনিয়োগকারী পাকিস্তান দলকে ব্ল্যাঙ্ক চেক দিতে প্রস্তুত বলেও দিন দুয়েক আগে জানান রমিজ।



 

Show all comments
  • Farooque hasan ১১ অক্টোবর, ২০২১, ৪:৪১ এএম says : 0
    পাকিস্তান টিমের সবচেয়ে মজবুত হার্ডের অধিকারী মোহাম্মদ রেদওয়ান। কারণ সে সব সময় কুরআন তিলাওয়াত করে। ফালতু কথা বলে না। আল্লাহর উপর ভরসা করে। আর আল্লাহর উপর ভরসা করলে তারা কখনো ভেঙে পড়ে না। পাগড়ী ওয়ালা দের সুপারপাওয়ার কে পরাজিত করা তার সবচেয়ে বড় প্রমাণ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাক-ভারত মহারণ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ