Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

দুই ভুয়া ই-কমার্সের ৬ জন গ্রেফতার

সিআইডির হাতে ৬০ প্রতিষ্ঠানের তালিকা

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১২ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০২ এএম

সাশ্রয়ী মূল্যে মোটরসাইকেল, টিভি, ফ্রিজসহ নানা ইলেকট্রনিক পণ্য বিক্রির কথা বলে সাধারণ ক্রেতাদের কাছ থেকে আড়াই কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে দুই ভুয়া ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ‘থলেডটকম’ ও ‘উইকমডটকম’। চটকদার বিজ্ঞাপনে আকৃষ্ট হয়ে ৩০ দিনের মধ্যে পণ্য সরবরাহ করা হবে বলে গ্রাহকরা এ ভুয়া দুই ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন পণ্যের অর্ডার দেয়। কিন্তু অর্ডার এবং গ্রাহকদের টাকা নিয়ে পণ্য না দিয়ে প্রতারণা শুরু করে প্রতিষ্ঠান দুইটির কর্মকর্তারা। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে সরকারি অনুমোদনহীন ও লাইসেন্সবিহীন ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ‘থলেডটকম’ ও ‘উইকমডটকম’র হেড অব অপারেশন মো. নজরুল ইসলামসহ প্রতিষ্ঠানের ছয় কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি। গ্রেফতারকৃতরা হলেন-হেড অব অপারেশন নজরুল ইসলাম, অ্যাকাউন্ট অফিসার সোহেল হোসেন (২৭), ডিজিটাল কমিউনিকেশন অফিসার মো. তারেক মাহমুদ অনিক (২৮), সেলস এক্সিকিউটিভ অফিসার সাজ্জা হোসেন ওরফে পিয়াস (২৭), কল সেন্টার এক্সিকিউটিভ অফিসার মুন্না পারভেজ (২৬) ও সুপারভাইজার মো. মাসুম হাসান (২৭)।

অন্যদিকে অর্থপাচারের অভিযোগে অনলাইন টিকেটিং এজেন্সি টুয়েন্টিফোর টিকেটি ডটকমের পরিচালক মিজানুর রহমান সোহেলকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি। রাজধানীর ভাটারা থানায় করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার রিং আইডির পরিচালক সাইফুল ইসলামের জামিনের আবেদন নাকচ করেছেন আদালত। ঢাকার মহানগর হাকিম মোর্শেদ আল মামুন ভূঁইয়ার আদালতে গতকাল সোমবার সাইফুল ইসলামের পক্ষে তার আইনজীবী জামিন আবেদন করেন। রিং আইডির মালিক কানাডা প্রবাসী শরিফ ইসলাম ও আইরিন ইসলামকে দেশে ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোলের সাহায্য নেবে সিআইডি। এ বিষয়ে ইন্টারপোলকে শিগগিরই চিঠি দেয়া হবে।

রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি কার্যালয়ে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের প্রতারণার বিষয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন বলেন, টাকা নিয়ে পণ্য ডেলিভারি না দেয়া ও টাকা ফেরত না দিয়ে প্রতারণা করছে এমন ৬০টি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের তালিকা করেছে সিআইডি। এগুলোর মধ্যে ৩২টি প্রতিষ্ঠানকে রাখা হয়েছে নজরদারিতে। এসব প্রতিষ্ঠান যারা চালাচ্ছেন যেকোনো সময় তাদের গ্রেফতার করা হতে পারে।
তিনি আরো বলেন, অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে সিআইডিও ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান নিয়ে কাজ করছে। কিছু ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান দিনের পর দিন পণ্য ডেলিভারি করছে না। কয়েকজন ভুক্তভোগী এ জন্য থানায় অভিযোগ করেছেন। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সম্প্রতি কিছু ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের মালিকসহ কর্মকর্তাদের গ্রেফতার করা হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে ও সিআইডির অনুসন্ধানে ৬০টি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের সংক্ষিপ্ত তালিকা করা হয়েছে।

এ ৬০টি প্রতিষ্ঠান এ পর্যন্ত গ্রাহকদের কত টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কত টাকা হাতিয়েছে এটা হিসাব না করে বলা যাবে না। পরবর্তীতে হিসাব করে জানানো হবে। এর আগে সাশ্রয়ী দামে টিভি, ফ্রিজ, মোটরসাইকেল ও ইলেট্রনিক পণ্য বিক্রির প্রলোভন দেখিয়ে গ্রাহকদের কাছ থেকে আড়াই কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে সরকারি অনুমোদনহীন ও লাইসেন্সবিহীন ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ‘থলেডটকম’ ও ‘উইকমডটকম’র হেড অব অপারেশন মো. নজরুল ইসলামসহ প্রতিষ্ঠানের ৬ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করে সিআইডি।

অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন জানান, বিজ্ঞাপনের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে ৩০ দিনের মধ্যে পণ্য সরহরাহ করার শর্তে টাকা পরিশোধ করে ভুক্তভোগীরা। টাকা পরিশোধের ৩০ দিনের মধ্যে পণ্য সরবরাহের কথা থাকলেও নির্ধারিত সময়ে ‘থলেডটকম’ ও ‘উইকমডটকম’ পণ্য সরবরাহ করেনি।
রিং আইডির মালিকদের ফেরাতে ইন্টারপোলের সাহায্য নেবে সিআইডি: রিং আইডির মালিক কানাডা প্রবাসী শরিফ ইসলাম ও আইরিন ইসলামকে দেশে ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোলের সাহায্য নেয়া হবে। এ বিষয়ে ইন্টারপোলকে শিগগিরই চিঠি দেয়া হবে। গতকাল সোমবার সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান অতিরিক্ত ডিআইজি কামরুল আহসান।

তিনি বলেন, সিআইডির অনুরোধে বাংলাদেশ ব্যাংক রিং আইডির দুইশ কোটি টাকা জব্দ করেছে। তবে তাদের হাতিয়ে নেয়া টাকার পরিমাণ আরও বেশি। সেই অর্থ কোথায় জমা আছে তা এখনো অজানা। এসব বিষয়ে জানতেই ইন্টারপোলের সহযোগিতা নিয়ে তাদের ফেরানোর উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। এদিকে, আইডি খোলা এবং আয়ের নানা প্রলোভন দেখিয়ে গ্রাহকের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে রিং আইডির অন্যতম এজেন্ট মো. রেদোয়ান রহমানকে রোববার বিকেলে গ্রেফতার করে সিআইডি।

তার বিষয়ে অতিরিক্ত ডিআইজি কামরুল আহসান বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান, ২০১৮ সাল থেকে রিং আইডিতে ইউজার হিসাবে কাজ শুরু করেন রেদোয়ান। গত সাত-আট মাস আগে রিং আইডিতে এজেন্ট হিসাবে নিয়োগ পান। তখন থেকেই ৬শতাধিক আইডি বিক্রি করে তিনি এক কোটির বেশি টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে জানা গেছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান, প্রতিটি সিলভার আইডি বাবদ ১২ হাজার টাকা, গোল্ড আইডি বাবদ ২২ হাজার, প্রবাসী গোল্ড আইডি বাবদ ২৫ হাজার, প্রবাসী প্লাটিনাম আইডি বাবদ ৫০ হাজার করে নিয়েছেন।

রিং আইডির সাইফুলের জামিন নাকচ: ভাটারা থানায় করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার রিং আইডির পরিচালক সাইফুল ইসলামের জামিনের আবেদন নাকচ করেছেন আদালত। ঢাকার মহানগর হাকিম মোর্শেদ আল মামুন ভূঁইয়ার আদালতে গতকাল সোমবার সাইফুল ইসলামের পক্ষে তার আইনজীবী জামিন আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করেন ভাটারা থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা এসআই রনপ কুমার ভক্ত। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন নাকচ করে দেন। গত ১ অক্টোবর রাজধানীর গুলশান থেকে সাইফুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরদিন আদালত তার দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। রিমান্ড শেষে ৫ অক্টোবর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। ওই দিন সাইফুল ইসলামের পক্ষে তার আইনজীবী জামিন আবেদন করেন। আদালত জামিন শুনানির দিন সোমবার ধার্য করেন।

টুয়েন্টিফোর টিকেটি ডটকমের পরিচালক সোহেল গ্রেপ্তার: অর্থপাচারের অভিযোগে এবার অনলাইন টিকেটিং এজেন্সি টুয়েন্টিফোর টিকেটি ডটকমের পরিচালক এম মিজানুর রহমান সোহেলকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি। সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজাদ রহমান বলেন, কাফরুল থানায় সিআইডির করা অর্থপাচার আইনের মামলায় টুয়েন্টিফোর টিকেটি ডটকমের পরিচালক সোহেলকে গ্রেপ্তার করে সিআইডির একটি টিম। মামলার চার নম্বর আসামি তিনি।

সিআইডি সূত্র জানায়, বিমানের টিকিট বিক্রির নামে ৪ কোটি ৪৪ লাখ টাকা নিয়ে উধাও হয় অনলাইন টিকেটিং এজেন্সি ‘টুয়েন্টিফোর টিকেটি ডটকম।’ গ্রাহক ও ৬৭টি এজেন্টের কাছ থেকে এই টাকা আত্মসাৎ করেছে তারা। এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) কাফরুল থানায় কোম্পানির মালিক আব্দুর রাজ্জাকসহ পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করে। সোমবার অতিরিক্ত ডিআইজি কামরুল হাসান বলেন, ২০১৯ সালের মে মাসে যাত্রা শুরু অনলাইন টিকিটিং এজেন্সি টুয়েন্টিফোর টিকেটি ডটকম। তারা গত দুই বছরে ৫০ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ই-কমার্স


আরও
আরও পড়ুন