Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

ঠাকুরগাঁওয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ১২ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ঠাকুরগাঁও জেলা সংবাদদাতা : ঠাকুরগাঁওয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে একই পরিবারের ৫ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এমন অনাকাক্সিক্ষত দুর্ঘটনায় শোকের ছায়া এখন ঠাকুরগাঁও পীরগঞ্জ উপজেলার ভোমরাদহ ইউনিয়নের জনগাঁ গ্রামে। জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, খরেশ চন্দ্র একজন ট্রাফিক কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত ছিলেন দিনাজপুর জেলার কোতোয়ালী থানায়। দুর্গাপূজার ছুটি নিয়ে আসেন গ্রামের বাড়ি জনগাঁ গ্রামে। মঙ্গলবার ভোর রাতে বিদ্যুতের শর্ট সার্কিটে বাড়িতে আগুন লাগে। এ সময় ঘরের ভেতরে ঘুমিয়ে থাকা খরেশ চন্দ্রসহ পরিবারের ৫ সদস্যই অগ্নিদগ্ধ হয়। ঘটনাস্থলেই মারা যায় তার স্ত্রী কেয়া রানী ও সেলিকা সন্ধ্যা রানী। এ সময় আশপাশের লোকজন আহত ৩ জনকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। পরে রংপুর নেয়ার পথে মেয়ে নাইস ও ছেলে নির্ণয় মারা যায়। মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় খরেশ চন্দ্র।
এ ঘটনার পর জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জনপ্রতিনিধিসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন।
স্থানীয় সংসদ সদস্য ইয়াসিন আলী জানান, ওই পরিবারটিতে আর কেউ থাকলো না। আমরা তাদের স্বজনদের নিয়ে মরদেহ সৎকার করার সব রকম ব্যবস্থা নিচ্ছি।
এ বিষয়ে পুলিশ সুপার ফারহাত আহম্মেদ জানান, জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ