Inqilab Logo

রোববার, ১৬ জানুয়ারী ২০২২, ০২ মাঘ ১৪২৮, ১২ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

সকল মানুষের কাছে উন্নয়নের সুফল পৌঁছে দেয়া হবে

কলাপাড়ায় স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

পটুয়াখালী জেলা ও কলাপাড়া উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৩ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৩ এএম

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে। সকল মানুষের কাছে উন্নয়নের সুফল পৌঁছে দেয়া হবে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার বালিয়াতলী পয়েন্টে আন্ধারমানিক নদীর উপর নির্মিত সৈয়দ নজরুল ইসলাম সেতু পরিদর্শন শেষে স্থানীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর ২১ বছর পাকিস্তানি মদদে এবং তাদের পৃষ্ঠপোষকতায় আমাদেরকে গোলাম বানিয়ে রেখেছিল। দেশের সব উন্নয়ন বন্ধ করে রেখেছিল। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর বাংলদেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে দেশের উন্নয়নে কাজ করেছে। তাই বাংলাদেশ আজকে বিশ্বের কাছে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিত হয়েছে।

মন্ত্রী আরো বলেন, আজকে দেশ বিদ্যুৎ উৎপাদনে ক্ষমতা লাভ করেছে। এছাড়া খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে। স্বাস্থ্য ও সমাজ ব্যবস্থার উন্নতিসহ সকল ক্ষেত্রে সামগ্রিক উন্নয়ন লাভ করেছে। পৃথিবীর মানুষ আজকে তাকিয়ে আছে বাংলাদেশের দিকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মন্ত্রিপরিষদের সদস্য এবং সংসদ সদস্যরা নিরলস পরিশ্রম করে এলাকার উন্নয়নে করে যাচ্ছেন।

এসময় পটুয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ মো. মহিবুর রহমান মহিব এমপি, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দিন আহম্মেদ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী মো. আব্দুর রশিদ খান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস এম রাকিবুল আহসান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহম্মদ শহিদুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মোতালেব তালুকদার, কলাপাড়া পৌর মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদারসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানরা উপস্থিত ছিলেন।
মন্ত্রী এর আগে হেলিকপ্টার যোগে সাড়ে তিনটায় কলাপাড়ায় এসে পৌঁছান। পরে তিনি সড়ক পথে সৈয়দ নজরুল ইসলাম সেতু পরিদর্শন শেষে স্থানীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। বিকেল সাড়ে চার দিকে মন্ত্রী ফের হেলিকপ্টার যোগে ঢাকার উদ্দেশে রওনা করেন।

এর আগে গতকাল দুপুরে পটুয়াখালী জেলা পরিষদের নবনির্মিত শেখ রাসেল শিশু পার্ক উদ্বোধন করেন মন্ত্রী। এসময় মন্ত্রী বলেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচন তরান্বিত করার জন্য পৌরসভা নির্বাচন আইনের পরিবর্তন আনা হয়েছে, এরপরে ইউনিয়ন পরিষদের ক্ষেত্রেও একইভাবে আইন প্রবর্তন করা হবে। এতে জনপ্রতিনিধিদের মর্যাদার হানী নয়, বরং তাদের মর্যাদা আরও বৃদ্ধি করার জন্য এই পদ্ধতি করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ এদেশের মানুষের আকাক্সক্ষা পূরণের জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ। নির্বাচন ব্যবস্থা সুষ্ঠু ধারা অব্যাহত রাখা এবং উত্তরোত্তর আরও সমৃদ্ধ করার জন্য আমাদের আরও ব্যবস্থাপনা আছে, সেটা করা হবে।
মন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে মেগা উন্নয়ন বাস্তবায়ন করছেন। সব এলাকায় রাস্তা ঘাট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্রিজ কালভার্ট ও শতভাগ বিদ্যুতায়নের মাধ্যমে গ্রামকে শহরের সুযোগ সুবিধা সৃষ্টির লক্ষ্যে কাজ করছেন।

এর আগে তিনি স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের বাস্তবায়িত লোহালিয়া সেতুর নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেন এবং পটুয়াখালী পৌরসভা বাস্তবায়িত মরহুম বীর মুক্তিযোদ্ধা খান মোশাররফ হোসেন সেতুর উদ্বোধন শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসন আয়োজিত সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উন্নয়ন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ