Inqilab Logo

রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২২ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

টাকার গরমে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০২ এএম

ক্রিকেট মাঠ থেকে বিদায়ের পর রাজনীতির মাঠে দাপিয়ে বেড়িয়েছেন ইমরান খান। জনগণের আস্থা অর্জন করে হয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীও। প্রায় তিন দশক আগে বর্ণাঢ্য খেলোয়াড়ি জীবনকে বিদায় বললেও এখনো এর নাড়ি-নক্ষত্র, নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কে অগাধ জ্ঞান ইমরানের। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত যে শুধু ক‚টনৈতিকভাবে তার সরকারকে চাপে রাখছে না, পাকিস্তান ক্রিকেটকেও বেকায়দায় ফেলতে চাইছে; সেটি ভালো করেই আঁচ করতে পারছেন ইমরান। এ নিয়ে এবার রীতিমতো বোমা ফাটালেন দেশকে নেতৃত্ব দিয়ে ১৯৯২ বিশ্বকাপ শিরোপা এনে দেওয়া অধিনায়ক।
গত সপ্তাহেই নিজের ৬৯তম জন্মদিনের কেক কাটা ইমরানের দাবি, টাকার জোরে বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ করছে ভারত। ২০০৩ সালের পর প্রথমবার পাকিস্তান সফরে গিয়ে নিরাপত্তার ‘অজুহাত’ দেখিয়ে না খেলেই দেশের উদ্দেশে উড়াল দেয় নিউজিল্যান্ড দল। কিউইদের দেখাদেখি ইংল্যান্ডও বাতিল করে পাকিস্তান সফর। অথচ দেশটির গোয়েন্দা সংস্থার কাছে জঙ্গি হামলা সংক্রান্ত কোনো তথ্যই ছিল না।
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে টানা দুটি সিরিজ বাতিল হওয়ায় ক্ষোভে ফুঁসছিল পাকিস্তান। এর পেছনে ভারতের ইন্ধন ছিল বলেই মত দেন অনেকে। এবার ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিসিআই) সরাসরি কাঠগড়ায় তুললেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান।
লন্ডনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট আইকে (এমইই) দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইমরান বলেন, ‘সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো টাকা। ভারত সবচেয়ে ধনী ক্রিকেট বোর্ড। এ কারণেই ওদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার সাহস কেউ দেখায় না। ইংল্যান্ড যেটা আমাদের (পাকিস্তানের) সঙ্গে করেছে, সেটা ভারতের সঙ্গে করতে পারবে না।’
সর্বকালের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার আরও বলেন, ‘শুধু খেলোয়াড়দেরই নয়, ভারতীয় বোর্ড অন্য বোর্ডগুলোকে টাকা দেয়। তাই ওরাই বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ করে।’
কিছুদিন আগে খেলোয়াড়দের ‘মানসিক ও শারীরিক সুস্থতা’ আর নিরাপত্তাকে কারণ দেখিয়ে পাকিস্তান সফর বাতিল করে ইংল্যান্ড। সফরটা হলে ২০০৫ সালের পর এই প্রথম পাকিস্তান সফরে যেত ইংল্যান্ডের কোনো দল। তাদের পাকিস্তান সফর বাতিল পাকিস্তানের জন্য ছিল দ্বিতীয় ধাক্কা।
কারণ, এর তিনদিন আগেই নিরাপত্তা শঙ্কাকে কারণ দেখিয়ে নিউজিল্যান্ড দল সফরে গিয়েও কোনো ম্যাচ না খেলে পাকিস্তান থেকে চলে যায়। নিউজিল্যান্ডও পাকিস্তান সফরে গিয়েছিল ১৮ বছর পর। গোটা ব্যাপারটার সঙ্গেই টাকার একটা সম্পর্ক খুঁজে পাচ্ছেন ইমরান। সেই সঙ্গে ইংলিশ বোর্ড পাকিস্তান সফর বাতিল করে হীনম্মন্যতার পরিচয় দিয়েছে বলে মনে করেন ইমরান, ‘ইংল্যান্ড ভাবে, পাকিস্তানের মতো দেশের সঙ্গে খেলে তারা দয়া করছে। আসলে তারা টাকার গরম দেখাচ্ছে। অথচ আমি পাকিস্তান-ইংল্যান্ডের ক্রিকেটীয় সম্পর্ক ভালো করতে চেয়েছি। তারা এই কাজ করে (সফর বাতিল করে) নিজেদের সম্মান ডুবিয়েছে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন