Inqilab Logo

বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৪ কার্তিক ১৪২৮, ১২ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

গাজায় ৯৭ শতাংশ পানিই দূষিত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৩ এএম

ব্যবহারযোগ্য পানির তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায়। এতে সমস্যায় পড়েছে অবরুদ্ধ এলাকার প্রায় ২০ লাখ মানুষ। গাজার অধিকাংশ মানুষকে বেসরকারি কোম্পানিগুলো থেকে পানি কিনে খেতে হয়। বিদ্যুৎ সংকটের ফলে পৌরসভার পানির লাইনে প্রায়ই পানি থাকে না। মাঝে মধ্যে পানি পাওয়া গলেও তা পান করার উপযোগী থাকে না। খবর আল-জাজিরা। গাজা উপত্যকার পানি অনেক বেশি দূষিত যা জনস্বাস্থ্যের ওপর মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব ফেলছে, বিশেষ করে শিশুদের ওপর। তারা বিভিন্ন পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। ইসরাইলের অবরোধ, মানবিক সহায়তা কমিয়ে দেওয়া এবং ক্রমাগত বিমান হামলার কারণে গত কয়েক বছরে পানির এই সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে। আল-শাতী শরণার্থী শিবিরের ৩৬ বছর বয়সী ফ্যালেস্টিন আবদেলকরিম বলেন, এখানের পানি খাওয়ার উপযুক্ত নয়। মনে হচ্ছে এখানকার পানি সমুদ্র থেকে আসে। এ পানি আমরা রান্না বা গোসলের কাজে ব্যবহার করতে পারি না। তিনি বলেন, শরণার্থী শিবিরের জীবন খুবই কঠিন। আমরা সব সময় পানি কিনে খাই। গাজা উপত্যকার বাসিন্দারা সপ্তাহে তিনবার পৌরসভার পানি নেওয়ার অনুমতি পায়। উত্তর গাজার বাসিন্দা মোহাম্মাদ সেলিম (৪০) নামের একজন জানিয়েছেন, পানি দূষিত হওয়ার কারণে বাগান করা যাচ্ছে না। পানি অতিরিক্ত লবনাক্ত হওয়ায় সব গাছ শুকিয়ে গেছে। মানবাধিকার সংগঠনগুলো গাজা উপত্যকায় পানির খারাপ পরিস্থিতি নিয়ে কয়েক বছর ধরে সতর্ক করে আসছে। গত সোমবার জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের ৪৮তম অধিবেশনে গেøাবাল ইনস্টিটিউট ফর ওয়াটার, এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড হেলথ এবং ইউরো-মেডিটেরিয়ান হিউম্যান রাইটস মনিটর বলেছে, গাজা উপত্যকার পানি পান করা যায় না এবং ধীরে ধীরে মানুষের শরীরকে বিষাক্ত করছে দূষিত পানি। আল-জাজিরা।

 

 



 

Show all comments
  • jack ali ১৪ অক্টোবর, ২০২১, ১:৩৪ পিএম says : 0
    O'Allah help the Palestinian as they don't have any power to defeat the Barbarian Zionist O'Allah wipe out Barbarian Zionist from Palestinian land. Ameen
    Total Reply(0) Reply
  • Monjur Rashed ১৪ অক্টোবর, ২০২১, ৩:৫৪ পিএম says : 0
    Very pathetic. Sufferings of Palestinians have aggravated as their Arab neighbors have left them.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গাজা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ