Inqilab Logo

শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২১ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

জামাই-শাশুড়ি মিলে ভয়ঙ্কর মাদক আইস ব্যবসা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৬ এএম

কাপড়ের ব্যবসা ছেড়ে মাদকের ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ে মো. রবিন। রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে কাপড়ের ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় পরবর্তীতে মাদকের ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ে সে। একইসঙ্গে মাদকের ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ে তার শ্বশুর ও শাশুড়িও। গতকাল সকালে মোহাম্মদপুর এবং ধানমন্ডি এলাকা থেকে অভিযান পরিচালনা করে রবিন এবং তার শাশুড়ি আরাফা বেগমকে গ্রেফতারের পর এসব তথ্য জানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর।

সন্ধ্যায় তেজগাঁয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের (উত্তর) কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান উপ-পরিচালক মো. রাশেদুজ্জামান। তাদের কাছ থেকে ১৭০ গ্রাম আইস এবং ৬৫০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত আইস ও ইয়াবার বাজার মূল্য আনুমানিক এক কোটি টাকা।
তিনি বলেন, রবিন এবং তার শ্বশুরবাড়ির সবাই মাদক ব্যবসায় জড়িত। রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডের আলপনা প্লাজা কাপড়ের দোকান ছিল রবিনের। ব্যবসা বন্ধ থাকায় প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করে সে মাদক ব্যবসার দিকে ঝুঁকে যায়। রবিনের শ্বশুর নুরুল হুদা দুমাস আগে চট্টগ্রামে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের অভিযানে মাদকসহ গ্রেফতার হয়। বর্তমানে তিনি কারাগারে। এছাড়া রবিনের স্ত্রীও মাদকসেবী।


মো. রাশেদুজ্জামান জানান, গ্রেফতারকৃত রবিন ও আরাফা বেগমকে টেকনাফ থেকে আইস এবং ইয়াবা সরবরাহ করে আসছিল একটি চক্র। কারা আইস ও ইয়াবা সরবরাহ করতো তাদের বিষয়ে তদন্ত চলছে পরবর্তীতে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিভিন্ন মাধ্যমে কুরিয়ারে করে টেকনাফ থেকে তাদের কাছে আইস ও ইয়াবা এসেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কর্মকর্তারা। দুই বছর ধরে তারা মাদক ব্যবসায় জড়িত বলেও কর্মকর্তাদের কাছে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে।

এদিকে গত ১২ অক্টোবর অপর এক অভিযানে ৮৬০০ পিস ইয়াবাসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। গ্রেফতারকৃতরা হলো মোহাম্মদ ইব্রাহিম, গৌরাঙ্গ সাহা, হদয় পোদ্দার ও মনজুর আলম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভয়ঙ্কর মাদক আইস ব্যবসা
আরও পড়ুন