Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

ভূতের মুখে রাম নাম

মোদিকে পত্রে বাংলাদেশের হিন্দুদের রক্ষায় পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান শুভেন্দুর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০০ এএম

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিধানসভায় বিরোধীদলীয় প্রধান ও বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অনুরোধ করেছেন বাংলাদেশের ধর্মীয় উগ্রপন্থীদের হামলা থেকে ‘সনাতনী জনগণ’কে রক্ষায় জরুরি পদক্ষেপ নিতে। গত বৃহস্পতিবার মোদির কাছে লেখা এক চিঠিতে মি. অধিকারী বলেছেন, বাংলাদেশের সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায় এখন চরম দুরবস্থার মধ্যে রয়েছে। তার ভাষায়, ভ্যান্ডাল বা ‘ধংসোন্মাদ’রা বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় মিছিল করে প্রতিমা মণ্ডপ এবং মন্দিরে আক্রমণ চালিয়ে ভাঙচুর করেছে। এসব কারণে বাংলাদেশের হিন্দুদের জন্য এবারের দুর্গা পূজার আনন্দ বিষাদে পরিণত হয়েছে বলে তিনি চিঠিতে উল্লেখ করেন।
মি. অধিকারী আরো লিখেছেন, এসব ঘটনার পর বাংলাদেশের হিন্দুদের যেসব আত্মীয়স্বজন পশ্চিমবঙ্গে থাকেন তারা চরম উদ্বেগের মধ্যে রয়েছেন। তারা বাংলাদেশের আত্মীয়দের নিরাপত্তা দেয়ার ব্যাপারে টেলিফোন করে সমর্থন জানাচ্ছেন। বাংলাদেশের হিন্দুরা প্রায়শই উগ্রপন্থী হামলার শিকার হন বলে পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি প্রধান তার চিঠিতে উল্লেখ করেছেন। বাংলাদেশে দুর্গা পূজার সময় হামলার ঘটনা নিয়ে যেসব ছবি ও ভিডিও প্রচারিত হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের হিন্দুত্ববাদীরা সেগুলো ব্যাপকভাবে শেয়ার করছে।

পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির এই দুই শীর্ষ নেতার উদ্বেগকে অনেকটা ভূতের মুখে রাম নাম হিসেবে দেখছেন সচেতন মহল। বিগত বছরগুলোয় ভারতের বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলোয় সংখ্যালঘু তথা মুসলিমদের পিটিয়ে হত্যা, শ্রীরাম জপে বাধ্য করা, বাড়িঘর ভেঙে এলাকাছাড়া করা অনেকটা রুটিনে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশের প্রতিবেশি আসামে মন্দির নির্মাণের ছুতোয় মুসলিমদের উচ্ছেদ এবং তা করতে গিয়ে সরাসরি গুলি ও নিহতের লাশে পৈশাচিকতা এখনও তাজা স্মৃতি হয়ে রয়েছে।

‘লাভ জিহাদ, মন্দিরের পানি পানের ঠুনকো অভিযোগে হিন্দুত্ববাদী বিজেপি শাসিত ভারতে কত যুবককে হত্যা-নির্যাতন করা হয়েছে তার লেখাজোখা কোন পরিসংখ্যান নেই। কট্টর হিন্দুত্ববাদী বিজেপি নেতা যোগী আদিত্যনাথের আমলে উত্তরপ্রদেশে এ ধরনের ঘটনা এখন এতটাই ডালভাত হয়ে গেছে যে, এখন মিডিয়াতেও এসব খবর ঠাঁই পায় না বললেই চলে। যে দেশে একজন মানুষের চেয়ে একটি গরুর মূল্য বেশি সেদেশের মানুষের অন্য দেশের বিষয়ে নাক গলানো ভূতের মুখে রাম নাম বলেই মনে হয়।

জনসংখ্যার বিচারে ভারতের সবচেয়ে বড় রাজ্য উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা নির্বাচন আগামী বছরের শুরুতেই। ভোটের আগে রাজ্যের নানা প্রান্ত থেকেই খবর আসছে, পরিকল্পিতভাবে মুসলিমদের ওপর সেখানে হামলা চালানো হচ্ছে এবং মারধর করে তাদের ‘জয় শ্রীরাম’ বলতেও বাধ্য করা হচ্ছে। এ ধরনের ঘটনার ভিডিও করে তা ছেড়ে দেয়া হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়াতেও - যাতে মুসলিম সমাজে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

গত মার্চের মাঝামাঝিতে দিল্লির কাছে উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদের একটি হিন্দু মন্দিরে ঢুকে পানি খাওয়ার অপরাধে বারো-তেরো বছরের একটি ছেলেকে মাটিতে ফেলে নৃশংসভাবে মারধর করছিল দু’তিনজন যুবক। বাচ্চা ছেলেটির নাম আসিফ, বাবার নাম হাবিব - এটা শোনার পর বেধড়ক মারের পাশে চলতে থাকে অকথ্য গালিগালাজ। প্রথমে মাটিতে ফেলে রড দিয়ে পেটায়, তারপর হাত-পা মুচড়ে দিয়ে লাথি মারতে থাকে।
এর মাসতিনেক পরেই গাজিয়াবাদের কাছে লোনিতে সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধ আবদুস সামাদকে একটি নির্জন জায়গায় টেনে নিয়ে গিয়ে প্রবল মারধর করা হয়। জোর করে তাকে ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে বাধ্য করা হয়, কাঁচি দিয়ে কেটে দেওয়া হয় লম্বা দাড়ি - আর এখানেও ভিডিও ধারণ করা হয় গোটা ঘটনাটির। তিনি বলেন, ওরা শুধু আমাকে শ্রীরাম শ্রীরামই বলায়নি, বারবার বলছিল, করবি আর পাকিস্তানের দালালি’?

পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের যে মুজফফরনগর ও শামলিতে আট বছর আগের দাঙ্গায় শত শত মুসলিম ঘরছাড়া হয়েছিলেন, সেখানেও হালে আবার ফিরে এসেছে সেই দুঃস্বপ্নের স্মৃতি।
গত জুলাইয়ের শুরুতেই উত্তরপ্রদেশের নয়ডাতে একটি গাড়িতে তুলে নিয়ে সম্পূর্ণ অচেনা লোকজন মেরে অজ্ঞান করে রাস্তায় ফেলে দিয়েছিল প্রবীণ কাজিম আহমেদকেও। লম্বা দাড়ি আর ফেজ টুপি থেকে তাঁকে খুব সহজেই চেনা যায় মুসলিম বলে - আর সে জন্যই তাকে নিশানা করেছিল হামলাকারীরা।
এ ধরনের শত শত নয়, হাজার হাজার ঘটনা যে দেশে যেসব রাজনৈতিক কর্মীদের হাতে হরহামেশা ঘটছে সেই দেশের একজন বিজেপি নেতার শান্তিপ্রিয় প্রতিবেশি দেশের সংখ্যালঘুদের জন্য মায়াকান্নায় বিস্মিত সচেতন মহল। সূত্র : বিবিসি বাংলা।



 

Show all comments
  • Jakaria Hossen Shawon ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১২:৪৮ এএম says : 0
    বাংলাদেশে যা কিছু হয় সব কিছুই তো মেনে নিতে হয় এটাও মেনে নিলাম
    Total Reply(0) Reply
  • Abu Yousuf ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১২:৪৮ এএম says : 0
    Oil your own machine
    Total Reply(0) Reply
  • Masumbillah Taj ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১২:৪৮ এএম says : 0
    হিন্দুরা বাংলাদেশের সুরক্ষিত আছে মুসলমানরা ভারতে সুরক্ষিত নাই
    Total Reply(0) Reply
  • Voice For Community ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১:০৬ এএম says : 0
    এখন এটা আরও ক্লিয়ার যে, পুজা মন্ডপে কুরআন অবমাননা সরাসরি ভারতের ষড়যন্ত্র। কিন্তু আমাদের দেশ নিয়ে ভারতের অনেক মাথা ব্যাথা থাকার কারনটা এদেশের একটা দল বোঝে না।
    Total Reply(0) Reply
  • Saiful Islam ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১:০৯ এএম says : 0
    কেন বাংলাদেশের প্রশাসন রাষ্ট্র ব্যবস্থা দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে মনে হয় ! এই দেখি আরেক উস্কানি বক্তব্যে !
    Total Reply(0) Reply
  • Billal Hossain ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১:০৯ এএম says : 0
    এটা আমাদের দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় এখানে কারো নাক গলানোর অধিকার নেই' ।
    Total Reply(0) Reply
  • Maftoon Ahmed Khan Rubel ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১:০৮ এএম says : 0
    নিজের চরকায় তৈল দাও,,,,বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক জাতির বিশ্ব রোলমডেল,,,,
    Total Reply(0) Reply
  • Najrul Shahin ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১:১০ এএম says : 0
    এখন পরিষ্কার বুঝা যায় এই কাজ ভারতের ইন্দোনেই হয়েছে। ভারত বাংলাদেশ কে হুমকিতে রাখতে চায়।এবং নিজেদের গোলাম বানিয়ে রাখতে চায় তাই হয়ত এমনটা করেছে তারা। কারন গতকালও পদ্মাসেতুর প্রকল্প এরিয়া থেকে ভারতীয় এক নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়েছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Naib Al Emran ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১:০৬ এএম says : 0
    দাঙ্গা বাধানোর চেষ্টা করো না আসল খবর জেনে বুঝে মন্তব্য করো
    Total Reply(0) Reply
  • Baadshah Humaun ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১:০৬ এএম says : 0
    বাংলাদেশের হিন্দুরা ভালো আছে আমরা সবাই হিন্দু মুসলিম মিলে থাকতে ভালোবাসি কিছু উগ্র এই হিন্দু মুসলিম মধ্যে দাংঘা লাগায়
    Total Reply(0) Reply
  • Imran Selim ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১:০৬ এএম says : 0
    এটা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয় যেমনটা তোরা ভারতের মুসলিমদের বেলায় বলছ।তাই নাক না গলালে ভালো।
    Total Reply(0) Reply
  • মোহাম্মদ দলিলুর রহমান ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ২:৩০ এএম says : 0
    কোরআন কে অসম্মান করেছে তাতে এই সমস্ত কিছু হয়েছে,এত বসর হয় নাই কোনও,তার পরও মুসলমান হিন্দু গায়ে হাত দেয় নাই,সামান্য কিছু ভাংচুর করেছে ,.................
    Total Reply(0) Reply
  • jack ali ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১২:৩৬ পিএম says : 0
    আমরা মুসলিম ইন্ডিয়াকে শাসন করেছি প্রায় আট শত বছর ধরে ইন্ডিয়ান সৎ স্কলাররা বলেছিলেন যে ইচ্ছা করলে আমরা মুসলিমদেরকে পিপড়ার মত টিপে মেরে ফেলতে পারতাম কারন তারা ছিল সংখ্যায় কম কিন্তু আমরা এটা করি নাই কারণ তারা সততার সাথে ইন্ডিয়াকে শাসন করেছে কখনো হিন্দুদের প্রতি একটা চুল পরিমান অন্যায় করে নাই অথচ এই তোমরা হিন্দু ইংরেজদের সাথে ষড়যন্ত্র করে ইন্ডিয়াকে তোমরা পরাধীন করে দিলে আর তোমরা তখন ইংরেজদের সাথে মিলে মুসলিমদেরকে মারা আরম্ভ করলো ইন্ডিয়া থেকে পাকিস্তান ভাগ হলো তখন তোমরা কাশ্মীরে দুই লক্ষের বেশি মুসলিম হত্যা করেছিলেন এবং 25 হাজার মুসলিম যুবতী নারীকে তোমরা আটক করে রেখেছিলে এবং জোরজবস্তি করে হিন্দু করার চেষ্টা করেছিলেন যারা হিন্দু হয়নি তাদেরকে তোমরা নির্মমভাবে হত্যা করেছিলেন, হায়দারাবাদ ছিল মুসলিম অধ্যুষিত একটি রাষ্ট্র নেহেরু সাহেব কি করলেন প্লেন দিয়ে দিয়ে কামান দিয়ে বম্বিং করে লক্ষ্য বাচ্চা মহিলা লোকদের কে হত্যা করে হায়দ্রাবাদ দখল করে নিল তোমাদের বিজেপি সরকার প্রধান গুজরাটের গণহত্যাকারী এখনো তোমরা কথায় কথায় মুসলিমদেরকে মারো আর জোর করে বল জয় শ্রীরাম আর না বললে তোমরা তাদেরকে মেরে ফেলো মুসলিমরা গরু খেলে তাদেরকে তোমরা হত্যা করো আসামে তোমরা মুসলিমদের জমি দখল করে নিয়ে নিয়েছো তোমরা মুসলিম হত্যা করছো মুসলিমদের শরীরের উপরে নাচানাচি করছো তোমরা তো মানুষ না জানোয়ার...বাংলাদেশে হিন্দুরা সবথেকে বেশি কাজ পায় ..ইন্ডিয়া থেকেও লক্ষ লক্ষ হিন্দু বাংলাদেশে এসে কাজ করে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার ইনকাম করে নিয়ে যায় তোমরা আমাদের বুকের তোমরা আমাদের বুকের উপর দিয়ে বড় বড় ট্রাক চালিয়ে পণ্য পরিবহন করো এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় তোমরা হাজার হাজার কোটি টাকা সেভ করো আমাদের সামুদ্রিক বন্দর তোমরা ব্যবহার করো 49 টা নদী নদী বাঁধ দিয়ে আমাদের দেশটাকে মরুভূমিতে পরিনত করে দিয়েছো যখন তোমাদের ওখানে বন্যা হয় তোমরা নদীর বাঁধ গুলো খুলে দাও আর আমাদের দেশটাকে ডুবিয়ে দাও তোমরা আমাদের বুকের উপর দিয়ে বড় বড় ট্রাক চালিয়ে পণ্য পরিবহন করো এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় তোমরা হাজার হাজার কোটি টাকা সেভ করো.. তোমরা বন্ধ করে দিয়েছো আরো কত জঘন্যতম অত্যাচার করছো তোমরা আমাদের প্রতি সেটা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না...আমাদের সমুদ্রের সীমা তোমরা দখল করে নিয়েছো...এই জুলুম আল্লাহ সহ্য করবে না মনে করছো তোমাদের শক্তি আছে বাংলাদেশে কিছু করতে পারবে না আল্লাহ তোমাদেরকে এমন মাইর দিবে তখন বুঝবা কত ধানে কত চাল
    Total Reply(0) Reply
  • Haider Ali Mollah ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১২:২৮ পিএম says : 0
    বাংলাদেশের হিন্দুদের নিয়ে আপনাদের চিন্তা করতে হবে না। তারা আমাদের ভাই। তারা এখানে শান্তিতে আছে, থাকবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Aftab Ahmed ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ৩:৪৪ এএম says : 0
    sabbash baper beta .
    Total Reply(0) Reply
  • Khan ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ৩:৫৫ এএম says : 0
    এর পিছনে BJP এর হাত থাকতে পারে কারন চীনের দিক দিয়ে ওরা রাজনৈতিক ভাবে মার খাচ্ছে এর জন্য ওরা বাংলাদেশের দিকে নজর ফেরাতে এই কাজে লিপ্ত হচ্ছে।
    Total Reply(0) Reply
  • মোহাম্মদ দলিলুর রহমান ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৫৭ এএম says : 0
    এই ভারতবর্ষে ছিল মসলিম শাসন কিন্তু মুসলমান শাসকেরা হিন্দুদের একচোখে দেখতেন,আজ ভারতের হিন্দুরা ঐ সব কিছু ভুলে গেছে,ভারতে মুসমানদের নামের উপর যে সমস্ত গ্রাম থানা জিলা এবং বিভিন্ন স্কুল কলেজ ইউনিভার্সিটি এবং কি বিভিন্ন পতিষ্ঠান,সব গুলি নাম বদলি করে হিন্দুদের নামে নামকরণ করা হয়,বাংলাদেশের কোথায় ও এমন কিছু করার প্রমান ভারত দিতে পারবে,সাবধান ভারত উসকানি দিয়ে লাভ হবে না ,আমরা বাংলাদেশ সেটা করব না,আমরা হিন্দু মুসলিম সম্পদায়ীক সংঘাত করতে দেব না তোমাদের মতো আমরা নয়,হিন্দু মুসলিম সবাই এই দেশের নাগরিক,কিন্তু ধর্ম নিয়ে আমাদের কোনো রূপ ধন্দ নেই,তোমাদের উস্কানিতে,আমাদের দেশের হিন্দুরা না বুঝে এই গুলি করে থাকে,সাবধান বাংলাদেশের ব্যপারে নাক গলাতে চেষ্টা করিও না,আমাদের দেশের হিন্দুরা আমরা মনে করি সুখে শান্তিতে মিলে মিশে আছে,এর পরে ও যদি তাহারা মনে করে আমরা আমাদের জন্ম ভূমি ছেড়ে চলে যাবে আমরা ভারতে চলে যাবে,সেটা কথা মধ্যে সিদ্ধান্ত করে ওদের নিয়ে যাও,ধর্মের প্রতি আঘাত করার পয়োজন নেই।আর আমাদের দেশের হিন্দু কিন্তু গরু মূত গোবর খায় না,সেটাও জেনে রাখো।
    Total Reply(0) Reply
  • Nayeemul ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ৭:০০ এএম says : 0
    Do not interfere with another county's internal issues. All south Asian countries know who is the main terrorist in the region. This is more clear now that India causes all the riots and terrorist attacks in the region to escalate tension between different countries. As a result most neighbors of India are moving away from India. Oil your own machine and save your country from China. Where does your power go when China attacks you and annexed your land. You Hindus are always selfish and cannot tolerate good things from other people. Shut your pp drinking mouth and stay out of our matters.
    Total Reply(0) Reply
  • Md Abdul Malek ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৩৮ পিএম says : 0
    আমার প্রিয় শিক্ষকদের তালিকায় কিন্তু রাম চরন দাস ও আছেন। সহকর্মী তাদের মাঝে-ও কিন্তু অরবিন্দু দাস এবং অজিত সিং ও আছে । আস্থা শীল চিকিৎসক তাদের দলে কিন্তু অন্জন কুমার দেব এবং মৃণাল কান্তি তারা-ও আছে। ....
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

২১ নভেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন