Inqilab Logo

রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২২ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

বাংলাদেশি বালকের বোলিংয়ের ভিডিও শেয়ার করে প্রশংসায় ভাসছেন শচিন

শাহেদ নুর | প্রকাশের সময় : ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৪৬ পিএম

বাংলাদেশি বালকের বোলিংয়ের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে প্রশংসায় ভাসছেন ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচিন টেন্ডুলকার। বৃহস্পতিবার নিজের ফেইসবুক পেইজে বরিশালের ছয় বছরের ওই বালকের বোলিংয়ের ভিডিও পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘ওয়াও, এক বন্ধুর মাধ্যমে ভিডিওটি পেয়েছি- সত্যি অসাধারণ। ক্রিকেটের জন্য এই ছোট্ট শিশুর ভালোবাসা বোঝা যায়।’

ভিডিওটি ইতোমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ৪০ সেকেন্ডের ভিডিওতে তাকে মোট আটটি বল করতে দেখা গেছে। কখনও রাস্তায়, কখনও তাকে বল করতে দেখা যায় বরিশাল উলালঘূণী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে। এরমধ্যে কোনটি ছিলো লেগ স্পিন, কোনটি গুগলি। প্রতিবারই ব্যাটসম্যানরা হচ্ছিলেন পরাস্ত। তিনবার তাকে ব্যাটসম্যানকে বোল্ড করে উল্লাস করতে দেখা যায়।

শচীনের পোস্টের নিচে মন্তব্য করেছেন সময়ের অন্যতম সেরা লেগ স্পিনার রশীদ খানও। আফগানিস্তানের তারকা বোলার আগুনের ইমোজি দিয়ে প্রশংসা করেছেন আসাদুজ্জামানের দক্ষতার।

বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক শাহরিয়ার নাফীসও তার বোলিংয়ে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন ফেইসবুকে।

বাংলাদেশি ওই বালকের প্রশংসার পাশাপাশি ভিডিওটি শেয়ার করায় নেটিজেনদের প্রশংসা পাচ্ছেন শচিন টেন্ডুলকার।

শচিন টেন্ডুলকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে কমেন্টে জনপ্রিয় তরুণ নির্মাতা মাবরুর রশীদ বান্নাহ লিখেছেন, ‘শচিন টেন্ডুলকার আপনাকে ধন্যবাদ। বাংলাদেশ থেকে ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা।’

রেজওয়ান আহমেদ লিখেছেন, ‘রতনে রতন চিনে।’

শচিনের প্রশংসা করে রাম পুজন সিং লিখেছেন, ‘স্যার, আপনার একটি বিরাট অবস্থান এবং বড় প্ল্যাটফর্ম আছে। কিছু উদীয়মান প্রতিভা সম্পর্কে আপনার একটি টুইট বা একটি পোস্ট, তাদের জন্য জীবন বদলে দিতে পারে। ভালো কাজ চালিয়ে যান, স্যার।’

তাজুল ইসলাম তানিম লিখেছেন, ‘যেখানে শচীন টেন্ডুলকার বাংলাদেশের একটা ছেলেকে নিয়ে পোস্ট করে সেখানে বাংলাদেশের কোন ক্রিকেট বোর্ড বা কোন খেলোয়াড় তাকে নিয়ে কোনো আগ্রহ নেই, বাংলাদেশে বর্তমানে বিশ্বমানের একজন লেগ স্পিনারের খুবই অভাব। ভারত ক্রিকেটারদের সঠিক মূল্য দেয় বাংলাদেশ তা কখনোই দেয় না।’

আফসোস করে জুনায়েদ আহমেদ লিখেছেন, ‘শচীন টেন্ডুলকার মুগ্ধ হয়েছেন, তাই আমরা মুগ্ধ হচ্ছি! আফসোস, আমরা নিজে থেকে মুগ্ধতা ছড়াতে কবে শিখবো? এই ছেলেটা আমাদের ক্রিকেটে অনেক কিছু দিতে পারবে, দরকার শুধু ঠিকঠাকভাবে পরিচর্যা করা।’

আশাবাদ ব্যক্ত করে সানওয়ার এইচ সনেট লিখেছেন, ‘একদিন সে বাংলাদেশের শেন ওয়ার্ন হবে, ইনশা আল্লাহ।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শচিন টেন্ডুলকার
আরও পড়ুন