Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৪ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সামরিক শাসনের দাবিতে উত্তাল খার্তুম

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ অক্টোবর, ২০২১, ৭:৩৯ পিএম

সুদানে রাজনৈতিক পরিস্থিতি ঘনীভূত হওয়ায় সামরিক অভ্যুত্থানের দাবিতে রাজপথে বিক্ষোভে নেমেছে দেশটির হাজার হাজার মানুষ। শনিবার রাজধানী খার্তুমে হাজার হাজার নাগরিক সেনাবাহিনীকে দেশের ক্ষমতা নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে স্লোগান দেন। সহিংসতা ঠেকাতে মোতায়েন করা হয়েছে বিপুল সংখ্যক নিরাপত্তা সদস্য। তুর্কি বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সি এমন সংবাদ প্রকাশ করেছে।
বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সির এক প্রতিবেদক বিক্ষোভ চলার সময় ওই ঘটনাস্থল থেকে জানান, বিক্ষোভকারীরা সুদানের জাতীয় পতাকা দোলাচ্ছিলেন। এ সময় তারা বিভিন্ন ব্যানার বহন করছিলেন। যাতে বিভিন্ন কথা লেখা ছিল, যেমন : ধৈর্য্যশীল মানুষেরা এখন ক্ষুধার্ত, ‘একজন মানুষ, একজন সৈনিক’ অর্থাৎ প্রত্যেক মানুষই একজন যোদ্ধা।
এ বিক্ষোভের সময় তারা বিভিন্ন শ্লোগান দিচ্ছিলেন এবং বর্তমান অন্তর্বতীকালীন সরকারে পদত্যাগের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।
উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে প্রবল আন্দোলনের মুখে ক্ষমতাচ্যুত হন সুদানের প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বশির। এরপর আলোচনার মাধ্যমে ক্ষমতা ভাগাভাগি করে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নেয় সেনাবাহিনী ও বেসামরিক দল। কিন্তু এতে দেশটির অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক এবং খাদ্য সংকট আরও বেড়েছে। এ অবস্থায় রাজপথে নেমেছে জনগণ।
গত সেপ্টেম্বরে সাবেক প্রেসিডেন্ট বশিরের সমর্থকদের অভ্যুথান চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার পরই দেশটিতে নতুন করে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। তখন সামরিক নেতারা ফোর্সেস অব ফ্রিডম অ্যান্ড চেঞ্জ (এফএফসি) জোটের সংস্কারের জোর দাবি জানান। এমকি বর্তমান মন্ত্রিসভার পরিবর্তনেরও দাবি তুলে সশস্ত্র বাহিনী। তবে বেসামরিক দলের প্রতিনিধিদের অভিযোগ, সামরিক বাহিনী ক্ষমতা দখলের পাঁয়তারা চালাচ্ছে।
এমন পরিস্থিতির মধ্যেই শনিবার রাস্তায় নেমেছেন সামরিকপন্থী সমর্থকেরা। জেনারেল আব্দেল ফাত্তাহ আল-বুরহানকে দেশের দায়িত্ব নেওয়ার আহ্বান জানান আন্দোলনকারীরা। বিক্ষুব্ধদের প্রেসিডেন্ট প্যালেসের সামনে অবস্থান নিতে দেখা গেছে। এক বিক্ষোভকারী সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা সামরিক সরকার চাই, বর্তমান সরকার বিচার ও সমতা আনতে পুরোপুরি ব্যর্থ’। সূত্র : মিডল ইস্ট মনিটর



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ