Inqilab Logo

রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২২ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

শেখ রাসেল বেঁচে থাকলে পারিবারিক ঐতিহ্যের যোগ্য উত্তরসূরি হয়ে উঠতেন : কেসিসি মেয়র

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৮ অক্টোবর, ২০২১, ৩:৩৭ পিএম

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৭ তম জন্মবার্ষিকীতে সোমবার প্রথমবারের মতো শেখ রাসেল দিবস উদযাপিত হয়। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘শেখ রাসেল দীপ্ত জয়োল্লাস, অদম্য আত্মবিশ্বাস’। এ উপলক্ষ্যে সকালে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা, কেক কাটা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিটি মেয়র বলেন, শেখ রাসেলের আত্মত্যাগ যেন সকল শিশুর যোগ্য মানুষ হিসেবে গড়ে ওঠার প্রেরণা। বেঁচে থাকলে শেখ রাসেল একজন সফল নেতা হতে পারতেন। পারিবারিক ঐতিহ্যের যোগ্য উত্তরসূরি হয়ে উঠতেন। কিন্তু ঘাতকের নির্মমতার শিকার হতে হয়েছে নিষ্পাপ শিশু রাসেলকে। শিশুদের আত্মশক্তিতে বলীয়ান হয়ে সাহসিকতার সাথে এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণায় শিশু রাসেলের জন্মদিনকে সরকার জাতীয় দিবস হিসেবে ঘোষণা করেছে।

খুলনার জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত জানান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ ইউসুপ আলী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, সংবিধান প্রণয়ন কমিটির সদস্য এ্যাডভোকেট এনায়েত আলী এবং অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) এসএম ফজলুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন সিভিল সার্জন ডাঃ নিয়াজ মোহাম্মদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উত্তর) সুশান্ত সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আলমগীর কবির, জেলা শিক্ষা অফিসার খো. রুহুল আমিন ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এএসএম সিরাজুদ্দোহা।

অনুষ্ঠানের শুরুতে অতিথিরা শিশুদের সাথে নিয়ে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষ্যে কেক কাটেন। অনুষ্ঠান শেষে দিবসটি উপলক্ষ্যে আয়োজিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এর আগে সকালে খুলনা সার্কিট হাউজ প্রাঙ্গণে জেলা ও মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কেসিসি’র মেয়র, বিভাগীয় প্রশাসন, পুলিশ কমিশনার, জেলা প্রশাসন, মহানগর আওয়ামী লীগ, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তর ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ