Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

উঠল বয়কটের ডাক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ অক্টোবর, ২০২১, ১২:১২ এএম

ভারতে ফের রোষানলে খাবার ডেলিভারি সংস্থা জোমাটো। ক্রেতার সঙ্গে অভব্য আচরণের অভিযোগ উঠল তাদের বিরুদ্ধে। রীতিমতো অপমানজনক মন্তব্য করায় সংস্থাটির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন এক ক্রেতা। এ ঘটনায় প্রতিক্রিয়াও জানিয়েছে জোমাটো।
ঘটনাটি ঠিক কী? আসলে তামিলনাড়ুর বিকাশ নামের এক যুবক টুইটারে জানান, সম্প্রতি তিনি জোমাটো থেকে খাবার অর্ডার করেছিলেন। কিন্তু ডেলিভারির পর দেখতে পান তিনি যে খাবারগুলো অর্ডার দিয়েছিলেন তার মধ্যে একটি ডিশ নেই। সঙ্গে সঙ্গে কাস্টমার কেয়ারে বিষয়টি জানান বিকাশ। তার অভিযোগ, কোনও সাহায্য তো মেলেইনি, উলটে তার সঙ্গে অপ্রীতিকর আচরণ করা হয়। কাস্টমার কেয়ারের তরফে বলা হয়, ক্রেতা হিন্দি না জানলে তাকে অর্থ ফেরত দেয়া হবে না। ভারতীয় হিসেবে প্রত্যেকের হিন্দি জানা উচিত। এমনকী তামিল বলে তাকে মিথ্যেবাদী আখ্যাও দেয়া হয়।
গোটা বিষয়টিতে অত্যন্ত ক্ষুব্ধ বিকাশ। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, কীভাবে একটি জনপ্রিয় সংস্থা ক্রেতার সঙ্গে এই ভাষায় কথা বলতে পারেন? কেন না পাওয়া খাবারের মূল্য ফেরত পেতে হিন্দি জানা আবশ্যিক? তার টুইট দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তারপরই ওঠে বিতর্কের ঝড়। কখনও ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত তো কখনও ক্রেতাকে মারধর করে বারবার সমালোচনায় বিদ্ধ হয়েছে জোমাটো। এবার ক্রেতাকে ‘হিন্দি’র পাঠ দিতে গিয়ে বিরাগভাজন হল জোমাটো। গোটা ঘটনায় অবশেষে টুইট করে ক্ষমা চায় জোমাটো। জানায়, এমন ঘটনা সত্যিই প্রত্যাশিত নয়। বিকাশের থেকে অর্ডারের বিস্তারিত তথ্যও জানতে চাওয়া হয়েছে। যাতে গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখতে পারে তারা। সূত্র : দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ