Inqilab Logo

সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ৩০ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

ফের আটক হয়েছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ অক্টোবর, ২০২১, ১০:১৫ এএম

ভারতের উত্তরপ্রদেশে ফের পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। এ নিয়ে চলতি মাসে দ্বিতীয় বার আটক হলেন তিনি। লখিমপুর খেরির পর এবার আগ্রার অকুস্থলে নিহত এক ব্যক্তির পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার সময় বুধবার (২০ অক্টোবর) এই ঘটনা ঘটে। পরে অবশ্য তাকে মুক্তি দেওয়া হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, পুলিশ হেফাজতে মৃত এক দলিত ব্যক্তির পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে বুধবার উত্তরপ্রদেশের রাজধানী লখনৌ থেকে আগ্রার উদ্দেশে রওনা হয়েছিলেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। কিন্তু কিছুটা সামনে এগোনোর পরই লখনৌ-আগ্রা এক্সপ্রেসওয়ের টোল প্লাজার কাছে তার গাড়ি আটকায় পুলিশ।
এসময় এক্সপ্রেসওয়েতে প্রায় দুই ঘণ্টা আটকে রাখা হয় প্রিয়াঙ্কার গাড়িবহর। সামনে না এগিয়ে তাকে ফিরে যেতে বলার পরও রাজি না হওয়ায় শেষমেশ প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে আটক করে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। পরে তাকে পুলিশ লাইনে নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে ছিলেন উত্তরপ্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি অজয় কুমার লাল্লু।
তবে পুলিশের দাবি, ১৪৪ ধারা ভেঙে পাঁচ জনের বেশি এক সঙ্গে যাওয়ার কারণেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়। শেষ পর্যন্ত সন্ধ্যায় তিন জন সঙ্গী নিয়ে প্রিয়াঙ্কাকে আগ্রায় মৃত দলিতের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার অনুমতি দেয় পুলিশ।
আটক হওয়ার সময় প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘তারা বলছে, আমি যেতে পারব না। আমি যেখানেই যাচ্ছি, বাধা দেওয়া হচ্ছে। আমার কি রেস্তোরাঁয় বসে থাকা উচিত? কারও সঙ্গে দেখা করতে পারব না? পুলিশি হেফাজতে কারও মৃত্যুর ঘটনা থেকে কী ভাবে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে!’
হিন্দিতে প্রিয়াঙ্কা টুইট করে বলেন, ‘পুলিশের হেফাজতে থাকার সময় মৃত্যু হয়েছে অরুণ বাল্মিকীর। তার পরিবার সুবিচার চাইছে। তাদের সঙ্গেই দেখা করতে যাচ্ছিলাম। এতে উত্তরপ্রদেশ সরকারের এত ভয় পাওয়ার কি আছে? কেন আমার পথ আটকানো হচ্ছে?’
তার অভিযোগ, বিজেপির শাসনে উত্তরপ্রদেশে সাধারণ মানুষের ওপর পুলিশি নিপীড়ন চলছে। আগ্রার ঘটনায়ও পুলিশি নিপীড়িনের অভিযোগ উঠেছে। এসব ঘটনা আড়াল করতেই সক্রিয় উত্তরপ্রদেশের সরকার।’
প্রসঙ্গত, ২৫ লাখ টাকা চুরির অভিযোগে অরুণ বাল্মিকী নামে পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছিল আগ্রার জদগীশপুরা থানার পুলিশ। তবে গ্রেফতারের পর মঙ্গলবার রাতে থানায় প্রচণ্ড মারধরের কারণে ওই দলিত ব্যক্তির মৃত্যু হয় বলে অভিযোগ রয়েছে।
যদিও আগ্রার পুলিশ সুপার মুনিরাজ জি বলেন, ‘মঙ্গলবার রাতে হঠাৎই ওই ব্যক্তি অসুস্থ হয়ে পড়েন। হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে ‘মৃত’ ঘোষণা করা হয়।’
উল্লেখ্য, লখিমপুর খেরিতে নিহত কৃষকদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার সময় গত ৫ অক্টোবর প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে আটক করেছিল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। প্রায় ৩৫ ঘণ্টা পরে সরকারি ভাবে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। পরে অবশ্য জামিনে মুক্তি পান তিনি। সূত্র : এনডিটিভি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ