Inqilab Logo

শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদন্ড

ফেনী জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২১ অক্টোবর, ২০২১, ১১:৩৯ পিএম

ফেনী শহরের বারাহিপুর এলাকায় পারিবারিক কলহের জেরে তাহমিনা আক্তার নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় স্বামী ওবায়দুল হক টুটুলকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল ফেনী জেলা ও দায়রা জজ ড. বেগম জেবুন্নেছা এ আদেশ দেন।
এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি হাফেজ আহম্মদ জানান, মামলার বাদী ন্যায় বিচার পেয়েছে। আসামিকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের পাশাপাশি ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেয়া হয়েছে। আসামি পক্ষের আইনজীবী আবদুস সাত্তার বলেন সুবিচার হয়নি। আমরা এ রায়ে সন্তুষ্ট নই। অচিরেই উচ্চ আদালতে আপিল করা হবে। এদিকে রায় ঘোষণার পর নিহত তাহমিনার পিতা সাহাব উদ্দিন বলেন, আমি ন্যায়বিচার পেয়েছি।
২০২০ সালের ১৫ এপ্রিল স্ত্রী তাহমিনাকে ফেসবুক লাইভে এসে কুপিয়ে হত্যা করে ওবায়দুল হক টুটুল। হত্যার দিন ফেসবুকে লাইভে এসে টুটুল জানান, পারিবারিক অশান্তির কারণে তিনি স্ত্রীকে হত্যা করছেন। তার শিশুকন্যাকে দেখভালের জন্য তিনি সবার কাছে অনুরোধ করেন এবং হত্যার ঘটনার জন্য মাফও চান।
হত্যাকান্ডের ৫ বছর আগে ফেনী পৌরসভার বারাহিপুর এলাকার গোলাম মাওলা ভূঁঞার ছেলে ওবায়দুল হক ভূঁঞা টুটুলের সঙ্গে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আকদিয়া গ্রামের সাহাব উদ্দিনের মেয়ে তাহমিনা আক্তারের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে তাফান্নুন আরোয়া মায়োস নামে দেড় বছর বয়সী একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন