Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

খুনি সাইফুলের ফাঁসির দাবীতে বিশ্বনাথে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ

বিশ্বনাথ (সিলেট) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৩৮ পিএম

সিলেটের বিশ্বনাথে আলোচিত স্কুলছাত্র সুমেল ও কৃষক ছরকুম আলী দয়াল হত্যা মামলার প্রধান আসামী লন্ডনি সাইফুলের ফাঁসি, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার, পলাতক খুনিদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবীতে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা করেছে চাউলধনী হাওর ও কৃষক বাঁচার আন্দোলন কমিটির নেতারা। শুক্রবার বাদ আসর বিক্ষোভ মিছিলটি বিশ্বনাথ পৌর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষণ শেষে স্থানীয় বাসিয়া ব্রীজে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় বক্তারা বলেন, চাউলধনী হাওরের ভুয়া লীজ গ্রহীতা সন্ত্রাসী, খুনি সাইফুল গংরা দীর্ঘ ১০বছর ধরে এই হাওর পারের ২৫টি গ্রামের কৃষকদের নানা ভাবে ক্ষতি করে আসছে। গত ফেব্রুয়ারি মাসে হাওরের কৃষি জমিতে পানি সেট দিতে গিয়ে সাইফুল ও তার অস্ত্রবাহীনির হাতে খুন হন ছরকুম আলী দয়াল। এই হত্যাকান্ডে রেশ কাটতে না কাটতেই সাইফুল বন্দুক দিয়ে প্রকাশ্যে গুলি করে নির্মমভাবে খুন করে স্কুল ছাত্র সুমেলকে। এ ঘটনার পর থানার সাবেক ওসি ও এক এসআই আসামিদের পালিয়ে যেতে সহযোগীতা করে। এ হত্যাকান্ডের ৮মাস অতিবাহিত হওয়ার পরও আসামিরা গ্রেফতার হয়নি।
সর্বশেষ বৃহস্পতিবার সন্ধায় আন্দোলনকারিদের সহায়তায় ঢাকার সেগুন বাগিচা কাচা বাজার এলাকার নাভানা টাওয়ার থেকে প্রধান আসামি সাইফুল আলমকে আটক করে রমনা থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়। কিন্তু দুঃখের বিষয় হল, পুলিশ প্রশাসন আসামিদের গ্রেফতার করেনি এবং তার অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করেনি। আমরা প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষ করছি। পলাতক খুনি আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার ও তাদের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করে দ্রুত বিচারের মাধ্যমে ফাঁসি কার্যকর করার জোর দাবি জানানো হয়।
চাউলধনী হাওর কৃষক বাঁচাও আন্দোলন কমিটির আহ্বায়ক আবুল কালামের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহবায়ক আনোয়ার হোসেন ধন মিয়া মেম্বার ও বাবুল মিয়া মাস্টারের যৌথ পরিচালনায় প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন চাউলধনী হাওর কৃষক বাঁচাও আন্দোলন কমিটির যুগ্ম আহবায়ক আরিফুল্লাহ সিতাব, আফজল হোসেন, নজির মিয়া, নিহত ছরকুম আলী দয়ালের ভাতিজা আহমদ আলী প্রমুখ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ