Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৪ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সন্তান বাঁচাতে কুমির হত্যা!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০১ এএম

কুমির না হাতি কে বেশি শক্তিশালী! সম্প্রতি পানি ও জঙ্গলের দুই শক্তিধরের লড়াইয়ের একটি ভিডিও নেটমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে প্রমাণ মাপের একটি কুমিরকে পানিতে নেমে অবলীলায় পিষে মারছে একটি হাতি। গোটা ঘটনার এক মিনিট ৪০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছে।
ভিডিওতে দেখা গেছে শুড়ে কুমিরের লেজ ধরে পানির মধ্যে আছড়ে ফেলছে হাতিটি। তার পর কুমিরের শরীরের উপর দুই পা তুলে দাঁড়িয়ে পিষে দিচ্ছে তাকে। ভিডিওর শেষ দিকে হাতির সঙ্গে লড়াই করতে করতে একটা সময়ে নিস্তেজ হয়ে পড়তে দেখা যায় কুমিরকে। পরে কুমিরটি মারা যায়।
আফ্রিকার জাম্বিয়ায় ঘটনাটি ইউটিউবে প্রকাশ করে একটি ইউটিউব চ্যানেল। আফ্রিকার জঙ্গলের বন্যপ্রাণীদের ভিডিও নিয়মিত ইউটিউবে পোস্ট করে এই ইউটিউব চ্যানেলটি। এই ভিডিওটি পোস্ট হওয়ার পর থেকে ১১ লাখ বার দেখা হয়েছে।
ভিডিওর বিবরণে ঘটনাটি সবিস্তারে জানিয়েছে ইউটিউব চ্যানেলটি। লিখেছে, ‘হাতি স্বভাবে শান্ত। কিন্তু সন্তানের নিরাপত্তার প্রশ্নে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে। এ ক্ষেত্রেও সেটি হয়েছে। কুমিরটি হাতির বাচ্চার জন্য অপেক্ষায় ছিল। মা হাতি বুঝতে পেরে তৎক্ষণাৎ কুমিরটিকে আক্রমণ করে’।
ইউটিউব চ্যানেলটি জানিয়েছে, তাদের হাতে এ ধরনের ভিডিও আগে কখনও এসে পৌঁছায়নি। বিরল মুহূর্তটি ক্যামেরায় বন্দি করেছেন হ্যানস হেনরিক হার নামের এক আলোকচিত্রী। চ্যানেলটি জানিয়েছে, হাতিটির দাঁত নেই। তবে কুমিরকে আক্রমণের জন্য তার ওজনই যথেষ্ট ছিল। বিপুল ওজনের ভার সহ্য করতে পারেনি কুমিরটি। সূত্র : দ্য সিটিজেন, নিউজ ১৮।



 

Show all comments
  • MD Hossain ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৪৬ এএম says : 0
    সন্তানকে বাঁচাতে পৃথিবীর সকল প্রাণীই সবকিছু করতে পারে।
    Total Reply(0) Reply
  • মুক্তিকামী জনতা ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৪৬ এএম says : 0
    একেই বলে সন্তানের প্রতি মায়ের ভালোবাসা।
    Total Reply(0) Reply
  • তানিম আশরাফ ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৪৭ এএম says : 0
    একটা ভিডিওতে দেখলাম মা মুরগি বিষধর সাপের মুখ থেকে বাচ্চাদের সেফ করলো জীবনের ঝুঁকি নিয়ে।
    Total Reply(0) Reply
  • Rezaul Karim ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৭:৪০ এএম says : 0
    VDO Linkটা পেলে ভাল হতো।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ